মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪
১ শ্রাবণ ১৪৩১
ঈদের আগে কুমিল্লায় মসলার বাজার চড়া
বশিরুল ইসলাম
প্রকাশ: শনিবার, ১৫ জুন, ২০২৪, ১:৩৬ এএম আপডেট: ১৫.০৬.২০২৪ ১:৫৪ এএম |


 ঈদের আগে কুমিল্লায় মসলার বাজার চড়া

ঈদুল আজহা বা কোরবানীর ঈদ সামনে এলে মসলার চাহিদা বাড়ার সাথে সাথে বাড়ে দামও । আর মাত্র ২দিন পরেই কোরবানীর ঈদ। ঈদকে সামনে রেখে কেনাকটা করছেন ভোক্তারা কিন্তু পন্যের দাম ক্রেতাদের স্বস্তি দিচ্ছেনা। বিশেষ করে মসলা জাতীয় পন্যের দাম বেশ চড়া।  গত ১মাসের ব্যবধানে বাজারে এলাচি, জিরা, পেয়াজ, আদা, রসুনের মত মসলার দাম অনেকটাই বেড়েছে। কয়েক ধরনের সবজি ছাড়া প্রায় সব মসলার দামই উর্দ্ধগতি।
কোরবানি এলে বাড়ে মসলার চাহিদা সাথে বাড়ে দামও। কোরবানীর ঈদের আগের চেয়ে বর্তমানে বেশ কিছু মসলার দাম বেশি। গতকাল ১৪ জুন শুক্রবার কুমিল্লা শহরের রাজগঞ্জ ও চকবাজার ঘুরে খুচরা ও পাইকারী বিক্রেতাদের সাথে কথা বলে এসব তথ্য জানা গেছে।
বিক্রেতারা জানিয়েছেন, বেশির ভাগ মসলা বিদেশ থেকে আমদানি করে আনতে হয়। ফলে বিভিন্ন হাত হয়ে আসায় মসলার দাম বেড়ে এই পর্যায়ে এসে দাড়িয়েছে। গত রমজানের ঈদের পর থেকে মসলার দাম বেড়েছে। মসলার দাম বাড়ার পেছনে ব্যবসায়ীরা দায়ী করেন বিশ^ বাজারে মসলার দাম বৃদ্ধি এবং ডলার সংকট। বিশ^ বাজারে এমনিতেই মসলার দাম বেড়েছে সাথে যোগ হয়েছে ডলার সংকটের বিষয়টি। ফলে ব্যবসায়ীরা  বেশি টাকায় আমদানী করতে হচ্ছে।  
দাম বেড়েছে সবচেয়ে বেশি এলাচিতে। এলাচি গত রমজান ঈদে যেখানে ৩হাজার থেকে সাড়ে ৩হাজার টাকায় বিক্রি হয়েছে সেখানে কোরবানী ঈদকে সামনে রেখে ৪হাজার থেকে সাড়ে চার হাজার টাকায় বিক্রি হচ্ছে। ১ বছর আগে যেখানে এলাচির দাম ছিল  ১হাজার ৬শ টাকা থেকে ২হাজার ৮শ টাকা। এক বছরের ব্যবধানে সেই পন্যটির দাম প্রায় দ্বিগুন বেড়েছে।
দারুচিনি মসলাটি কোরবানীর ঈদে সবচেয়ে বেশি ব্যবহার হয়ে থাকে। এই মসলাটি কেজি ৫৬০/- থেকে ৬০০টাকায় বিক্রি হচ্ছে। অথচ এই মসলাটি এক বছর আগে ৪২০টাকা থেকে ৫২০টাকায় বিক্রি হয়েছে। লবং বা লং ১৬০০টাকা থেকে ১৮০০টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে যা গত ১বছর আগে ১৪০০টাকা থেকে ১৬০০টাকায় বিক্রি হয়েছে। ধনিয়ার কেজি ২০০টাকা থেকে ২২০টাকা যা ১ বছর আগে ছিল ১৩০টাকা থেকে ১৬০টাকা। গোলমরিচ কালো  ৭০০টাকা  থেকে ১৪০০টাকা এবং সাদা গোলমরিচ ১৪০০টাকা থেকে ১৮০০টাকায় বিক্রি হচ্ছে।  তেজ পাতা ও জিরার দাম নাড়াচাড়া করেনি। তেজপাতা ১৫০টাকা কেজি ও  জিরা ৮০০টাকা কেজি। তাছাড়াও জয়ত্রী ৩৮০০টাকা কেজি, জয়ফল ১৩৫০টাকা কেজি, কাজুবাদাম ১২০০টাকা থেকে ১৫০০টাকা কেজি, কাঠবাদাম ১০০০টাকা থেকে ১২০০টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে। যা আগের তুলনায় কিছুটা বেড়েছে। মসলার মধ্যে সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত হয় পেয়াজ। পেয়াজ প্রতি কেজি ৮০টাকা থেকে ৮৫টাকায় বিক্রি হচ্ছে। গত ১মাস আগে ৬০টাকা থেকে ৬৫ টাকা বিক্রি হয়েছে। পেয়াজ কেজিতে ২০টাকা বেড়েছে। আদা ১মাস আগে ২০০টাকা থেকে ২২০টাকায় বিক্রি হয়েছে এখন আদা প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ২৪০টাকা থেকে ২৮০টাকায়। রসুনের দাম বেশি বাড়েনি।  কেজিতে ১০টাকা বেড়েছে। হলুদের গুড়া কেজি ৩২০টাকা এবং মরিচের গুড়ার কেজি ৫২০টাকা। সয়াবিন তৈল প্রতি লিটার ১৬৫টাকা  খোলা সোয়াবিন তৈল ১৪০টাকা। সরিষার তৈল লিটার ২০০টাকা থেকে ২২০টাকায় বিক্রি হচ্ছে। সেমাই প্রতি কেজি ১৪০টাকা, আলু প্রতি কেজি ৫৫টাকা চিনি প্রতি কেজি ১৩০টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে। মসুর ডাল মোটা ১১০টাকা মসুর ডাল চিকন ১২৫টাকা, চাউল মিনিকেট কেজি ৭৫টাকা আটাশ চাউল কেজি ৫৫টাকা সাধারণ বা মোটা চাউল ৪৫টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে।
চকবাজারের জননী ট্রেডার্সের কর্মচারী জানান, বেশি দামে কিনতে হচ্ছে তাই বিক্রি করতে হয় বেশি দামে। আগে যখন দাম কম ছিল তখন কম দামে বিক্রি করেছি। এখন বরং লাভ কম হচ্ছে। আগে বেশি বিক্রি করতে পারতাম এখন কম বিক্রি করতে হয়।
মসলা ক্রয় করতে আসা বারপাড়ার কামাল মিয়া জানান, ভাল মানের মসলা কিনতে অনেক কষ্ট হয়। অনেক সময় একটু কম দামের মসলা দিয়ে ঈদের বাজার করি। কেননা মসলার দাম এত বেশি যা মসলা কিনলে আর অন্য বাজার করতে সমস্যা হয়।
 














সর্বশেষ সংবাদ
রাজাকারদের ভূমিকা সম্পর্কে এরা জানে?
কুমিল্লায় জোড়া খুনের মামলায় ছয়জনের মৃত্যুদণ্ড
কুবিতে এক দফা দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল
কুবিতে ছাত্রলীগের বিক্ষোভ মিছিল
কোটা আন্দোলন: নিরাপত্তার স্বার্থে ঢাবির হলে থাকবেন শিক্ষকরা
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
আমার বাসার কাজের লোক ৪০০ কোটি টাকার মালিক
লাইসেন্সবিহীন হাসপাতালে ভূয়া বিল, ভুয়া ডাক্তার
জুন মাসে ৬ খুন কুমিল্লায়
উপজেলা পরিষদ এসোসিয়েশন কুমিল্লার নতুন কমিটি
কুমিল্লায় উল্টো রথযাত্রা
Follow Us
সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আবুল কাশেম হৃদয় (আবুল কাশেম হৃদয়)
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ১২২ অধ্যক্ষ আবদুর রউফ ভবন, কুমিল্লা টাউন হল গেইটের বিপরিতে, কান্দিরপাড়, কুমিল্লা ৩৫০০। বাংলাদেশ।
ফোন +৮৮ ০৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২ ৪৪৩, +৮৮ ০১৭১১ ৯৯৭৯৬৯, +৮৮ ০১৯৭৯ ১৫২৪৪৩, ই মেইল: [email protected]
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত, কুমিল্লার কাগজ ২০০৪ - ২০২২ | Developed By: i2soft