সোমবার ২২ জুলাই ২০২৪
৭ শ্রাবণ ১৪৩১
শিক্ষিকার বিয়ে ঠেকাতে গিয়ে মারধরের শিকার শিক্ষা কর্মকর্তারা!
প্রকাশ: শনিবার, ৬ জুলাই, ২০২৪, ৮:৪৮ পিএম |

শিক্ষিকার বিয়ে ঠেকাতে গিয়ে মারধরের শিকার শিক্ষা কর্মকর্তারা! ময়মনসিংহের গৌরীপুরে এক প্রাথমিক শিক্ষিকার বিয়ে ঠেকাতে গিয়ে দুই সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা মারধর ও হামলার শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার (৪ এপ্রিল) বিকেলে গৌরীপুর পৌর শহরের ইসলামাবাদ মহল্লায় ওই শিক্ষিকার বাসায় এই ঘটনা ঘটে।

মারধরের শিকার ওই দুই শিক্ষা কর্মকর্তা হলেন আব্দুর রশিদ ও আবু রায়হান।
 
জানা যায়, প্রায় পাঁচ মাস আগে উপজেলা শিক্ষা অফিসের সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা আব্দুর রাশিদ পারিবারিকভাবে স্থানীয় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষিকাকে বিয়ের প্রস্তাব দেন। এরপর বিয়ের আলোচনা কিছুটা অগ্রসর হলেও পরে তা ভেস্তে যায়। এরমধ্যে পারিবারিকভাবে শুক্রবার (৫ এপ্রিল) ওই নারী শিক্ষকের অন্যত্র বিয়ে ঠিক হয়। বিষয়টি জানতে পেরে বৃহস্পতিবার বিকেলে আব্দুর রাশিদ তার সহকর্মী আবু রায়হানকে নিয়ে ওই শিক্ষিকার বাসায় বিয়ে ঠেকাতে যান।  
 
শিক্ষিকার পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কথাবার্তার একপর্যায়ে দুপক্ষের বাগ্‌বিতণ্ডা হয়। এসময় শিক্ষিকার পরিবারের সদস্যরা হামলা ও মারধর করে আহত করেন আব্দুর রশিদ ও আবু রায়হানকে। এরমধ্যে আহত আবু রায়হান উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিয়েছেন।
 
আবু রায়হান বলেন, ‘ওই নারী শিক্ষকের বাবার সঙ্গে কথা বলেই আব্দুর রাশিদ আমাকে নিয়ে তাদের বাসায় যান বিয়ের প্রস্তাব নিয়ে। কিন্তু বাসায় প্রবেশের পর কোনো কিছু বুঝে উঠার আগেই তার পরিবারের সদস্যরা আমাদের দুজনের ওপর হামলা চালায়। আমার মাথা ফাটিয়ে দিয়েছে। রশিদও আহত হয়েছেন। আমি এই ঘটনার বিচার চাই।’
আব্দুর রাশিদ বলেন, ‘নারী শিক্ষক আমাকে পছন্দ করেন। এজন্য তার বাবাকে বিয়ের প্রস্তাব দিয়েছিলাম। আমি তার বাবার সঙ্গে কথা বলেই তাদের বাসায় যাই। আমাদের ওপর হামলা-মারধর করলো, এটা অত্যন্ত দুঃখজনক।’
 
শিক্ষিকার বাবা বলেন, ‘প্রায় পাঁচ মাস আগে আব্দুর রশিদ আমার মেয়েকে বিয়ের প্রস্তাব দেয়ার পর পরিবারের সদস্যরা দ্বিমত পোষণ করায় প্রস্তাব নাকচ হয়। এরপর মেয়ের বিয়ের প্রস্তাব আসলেই তিনি বিয়ে ভেঙে দেন। শুক্রবার আমার মেয়ের বিয়ে ঠিক হয়েছে। এরমধ্যে গত বুধবার রাতে আব্দুর রশিদ ফোন দিয়ে বলেন আজকে বাসায় আসবেন। ঘটনার সময় বাসায় ছিলাম না। বিয়ের প্রস্তাব নিয়ে আসার পর পরিবারের সদস্যদের সাথে ধস্তাধস্তি হলে ঘরের কোথাও আঘাত লেগে আবু রায়হান আহত হতে পারেন। কাউকে হামলা কিংবা মারধর করা হয়নি।’
 
বিষয়টি নিয়ে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা আঞ্জুমান আরা বলেন, ঘটনা জানার পরপরই বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।
গৌরীপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) ইমরান আল হোসাইন বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এ ঘটনায় কেউ অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।












সর্বশেষ সংবাদ
কুমিল্লার কোটবাড়ি বিশ্বরোডে ৫ ঘন্টার রণক্ষেত্র, অন্তত ১শ জন হাসপাতালে ভর্তি
কুমিল্লার কোটবাড়ির রণক্ষেত্র দফায় দফায় সংঘর্ষে আহত অর্ধশতাধিক
তারা যখনই বসবে আমরা রাজি আছি : আইনমন্ত্রী
চলমান পরিস্থিতি নিয়ে কিছুক্ষণের মধ্যে কথা বলবেন আইনমন্ত্রী
উত্তরায় গুলিতে নর্দান বিশ্ববিদ্যালয়ের ২ শিক্ষার্থী নিহত
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
সব স্কুল–কলেজ অনির্দিষ্টকাল বন্ধ
নিজের লাশ কী করতে হবে, আগেই জানিয়েছিলেন আবু সাঈদ!
এইচএসসির বৃহস্পতিবারের পরীক্ষা স্থগিত
এইচএসসির বৃহস্পতিবারের পরীক্ষা স্থগিত
কুমিল্লার কোটবাড়ির রণক্ষেত্র দফায় দফায় সংঘর্ষে আহত অর্ধশতাধিক
Follow Us
সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আবুল কাশেম হৃদয় (আবুল কাশেম হৃদয়)
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ১২২ অধ্যক্ষ আবদুর রউফ ভবন, কুমিল্লা টাউন হল গেইটের বিপরিতে, কান্দিরপাড়, কুমিল্লা ৩৫০০। বাংলাদেশ।
ফোন +৮৮ ০৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২ ৪৪৩, +৮৮ ০১৭১১ ৯৯৭৯৬৯, +৮৮ ০১৯৭৯ ১৫২৪৪৩, ই মেইল: [email protected]
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত, কুমিল্লার কাগজ ২০০৪ - ২০২২ | Developed By: i2soft