মঙ্গলবার ৫ মার্চ ২০২৪
২২ ফাল্গুন ১৪৩০
নিয়ন্ত্রণহীন সবজির বাজার
প্রকাশ: শনিবার, ৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ১২:১৬ এএম |

  নিয়ন্ত্রণহীন সবজির বাজার

বর্তমান বাজারে সব ধরনের পণ্যের দামই রয়েছে ঊর্ধ্বমুখী। কম দামে পণ্য পাওয়া যায় হাতে গোনা কয়েকটি। এমন চলতে থাকা বাজারে সবজির দামও নিয়ন্ত্রণহীন। কখনও বাড়ছে আবার কখনও কমছে। একদিকে দাম বাড়াতে ছুতো খুঁজে বেড়ান ব্যবসায়ীরা, অন্যদিকে চাপে পড়ছেন সাধারণ মানুষ। ক্রেতাদের অভিযোগ, কেবল দাম বাড়ানোর ধান্দায় থাকেন ব্যবসায়ীরা। অপরদিকে ব্যবসায়ীদের যুক্তি হলো, কাঁচা সবজির দাম অনেক কিছুর ওপর নির্ভর করে, তাই এটা ওঠানামা করবেই।
শুক্রবার (২ ফেব্রুয়ারি) কাঁচা বাজারে সরেজমিন এমন পরিস্থিতি লক্ষ করা যায়।
এদিন দেখা গেছে, বাজারে শিম ৬০ থেকে ৮০, শালগম ৫০, টমেটো ৭০, পেঁয়াজকলি ৪০, মটরশুঁটি ১০০, সাদা মুলা ৪০, লাল মুলা ৫০, দেশি গাজর ৫০, লম্বা বেগুন ১০০, সাদা গোল বেগুন ৯০, কালো গোল বেগুন ৯০, শসা ৯০, ক্ষিরাই ৭০, উচ্ছে ১০০, পেঁপে ৫০, মিষ্টিকুমড়া ৪০, ঢ্যাঁড়স ১০০, চিচিঙ্গা ৮০, ধুন্দল ৭০, বরবটি ১০০, কচুর লতি ৮০, কচুরমুখী ১০০, কাঁচা মরিচ ৮০ থেকে ১০০ ও ধনেপাতা ৬০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।
এদিকে প্রতিটি লাউ ১০০ টাকা, ফুলকপি ৫০, বাঁধাকপি ৫০ ও ব্রকলি ৬০ করে বিক্রি হচ্ছে। বেশ কিছু সবজির দাম বেড়েছে ১০ টাকা থেকে ৩০ টাকা পর্যন্ত। এর মধ্যে পেঁপের দাম বেড়েছে ১০ টাকা ও উচ্ছের দাম বেড়েছে ৩০ টাকা।
দাম কমাতে ভুলে যান ব্যবসায়ীরা:
বাজারে দ্রব্যমূল্য প্রতিনিয়তই ওঠানামা করতে থাকে। তবে কোনও পণ্যের যে পরিমাণ দাম বাড়ে, কমানোর ক্ষেত্রে ব্যবসায়ীদের থাকে নানা যুক্তি। এতে পণ্যের দাম ধীরে ধীরে বাড়তেই থাকে।
বাজার করতে আসা ক্রেতারা বলছেন, কোনও একটা কিছু দাম হুট করে ২০ থেকে ৩০ বাড়িয়ে তারপর হয়তো সেটা পাঁচ টাকা কমানো হয়। এতে কি আসলে দাম কমে? দাম বাড়ানোর সময় ব্যবসায়ীরা তৎপর, কিন্তু কমানোর বেলায় ভুলে যান। এভাবেই চলছে আমাদের বাজার পরিস্থিতি।
বাজার করতে আসা বেসরকারি চাকরিজীবী হারুনুর রশিদ বলেন, সবজির দাম তো কমছে না। ৩০ টাকা বাড়িয়ে ৫ টাকা কমানোকে তো দাম কম বলা যায় না। গত সপ্তাহে উচ্ছে কিনেছি ৭০ টাকায়, আজ সেটা ১০০ টাকা। পেঁপে কিনেছি ৪০ টাকায়, আজ ৫০ টাকা। কাঁচাবাজারে এই দামদরের কোনও নিয়ন্ত্রণই নেই।
বৃষ্টির অজুহাত বিক্রেতাদের:
সবজি বিক্রেতা আবু হানিফ বলেন, কাঁচামালের দাম কখনও এক জায়গায় স্থির থাকে না। এটা ওঠানামা করবেই নানা কারণে। আরেক বিক্রেতা বলেন, গত দুই দিনের বৃষ্টির কারণে সবজির দাম বেড়ে গেছে। এখানে আমাদের কোনও হাত নেই।
ক্রেতারা বলছেন উছিলা:
বৃষ্টিতে সবজির দাম বেড়েছে, এ প্রসঙ্গে বাজার করতে আসা রফিকুল ইসলাম বলেন, ব্যবসায়ীরা আসলে দাম বাড়ানোর উছিলা খোঁজে। কতক্ষণ বৃষ্টি হয়েছে গত দুই দিনে যে সবজির দাম বেড়ে গেলো? সব এলাকায় তো বৃষ্টিই হয়নি!
এ ছাড়া মানভেদে পেঁয়াজ ৯০ থেকে ১০০ টাকা, লাল ও সাদা আলু ৪০ টাকা, দেশি রসুন ২৬০-২৮০ টাকা, চায়না রসুন ২২০ টাকা, ভারতীয় আদা ২২০, চায়না আদা ২২০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।
আলু-পেঁয়াজ বিক্রেতা মো. হালিম বলেন, পেঁয়াজের দাম হয়তো আরও বেড়ে যাবে। তবে আলুর দাম কমার সম্ভাবনা হয়েছে।
আলু কিনতে এসে এক ব্যক্তি বলেন, সিজনে আলুর দাম থাকার কথা ১৫ টাকা কেজি, সেটা কিনতে হচ্ছে ৪০ টাকায়।
এ ছাড়া আজকের বাজারে ইলিশ ওজন অনুযায়ী ১২০০ থেকে ২০০০ টাকা, রুই ৪০০ থেকে ৭০০, কাতল ৪৫০ থেকে ৫০০, কালিবাউশ ৪০০ থেকে ১২০০, চিংড়ি ৭০০ থেকে ১২০০, কাঁচকি ৪৫০, কৈ ২৫০ থেকে ১৫০০, পাবদা ৪০০ থেকে ৭০০, শিং ৪০০ থেকে ১২০০, বেলে ৬০০ থেকে ১২০০, টেংরা ৬০০ থেকে ৮০০, মেনি ৫০০ থেকে ৮০০, কাজলি ১১০০ থেকে ১২০০, বোয়াল ৬০০ থেকে ১২০০, রূপচাঁদা ১০০০ থেকে ১২৫০ ও শোল ৯০০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।
ব্রয়লার মুরগি ১৯০ থেকে ২০০ টাকা, কক ২৬৫ থেকে ২৮০, লেয়ার ২৮০ টাকা, দেশি মুরগি ৫০০ ও গরুর মাংস ৭৫০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। মুরগির লাল ডিম ১৩৫ টাকা এবং সাদা ডিম ১৩০ টাকা প্রতি ডজন বিক্রি হচ্ছে।
সবচেয়ে প্রয়োজনী মুদি পণ্য কিছুটা নিয়ন্ত্রণে আছেসবচেয়ে প্রয়োজনী মুদি পণ্য কিছুটা নিয়ন্ত্রণে আছে
স্বাভাবিক মুদিপণ্যের দাম:
আজ মুদি দোকানে সব পণ্যের দাম রয়েছে অপরিবর্তিত। ছোট মসুর ডাল ১৩৫, মোটা মসুর ডাল ১১০, মুগডাল ১৭৫, খেসারি ডাল ১১০, বুটের ডাল ১০০, ছোলা ১১০, প্রতি লিটার বোতলজাত সয়াবিন তেল ১৭৩, প্যাকেটজাত চিনি ১৪৫, খোলা চিনি ১৪০, দুই কেজি প্যাকেট ময়দা ১৫০, আটা দুই কেজির প্যাকেট ১৩০ এবং খোলা সরিষার তেল প্রতি লিটার ১৯০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।













সর্বশেষ সংবাদ
অগ্নিঝরা মার্চ
সাক্কুর গণজোয়ার ঠেকাতে মরিয়া চেষ্টা
সাক্কুর উঠান বৈঠকে ককটেল বিস্ফোরণ, হোটেলে হামলা ও ভাংচুরের অভিযোগ; আহত ৪
ফের হাব সভাপতি নির্বাচিত হলেন শাহাদাত হোসাইন তসলিম
রোজায় এক কোটি পরিবার পাবে টিসিবির পণ্য, তদারকির নির্দেশনা ডিসিদের
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
কুমিল্লায় সাক্কুর উঠান বৈঠকে ককটেল বিস্ফোরণের অভিযোগ, হোটেলে হামলা-ভাংচুর
চলছে ভোটের সমীকরণ
আচরণ বিধি লঙ্ঘন রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে সাক্কু-তানিমের অভিযোগ
মেয়র প্রার্থী কায়সারের ইশতেহার ঘোষণা
সাক্কুর গণজোয়ার ঠেকাতে মরিয়া চেষ্টা
Follow Us
সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আবুল কাশেম হৃদয় (আবুল কাশেম হৃদয়)
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ১২২ অধ্যক্ষ আবদুর রউফ ভবন, কুমিল্লা টাউন হল গেইটের বিপরিতে, কান্দিরপাড়, কুমিল্লা ৩৫০০। বাংলাদেশ।
ফোন +৮৮ ০৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২ ৪৪৩, +৮৮ ০১৭১১ ৯৯৭৯৬৯, +৮৮ ০১৯৭৯ ১৫২৪৪৩, ই মেইল: [email protected]
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত, কুমিল্লার কাগজ ২০০৪ - ২০২২ | Developed By: i2soft