রোববার ৪ ডিসেম্বর ২০২২
২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
বিদেশে চাকরি দেওয়ার নামে ৩ কোটি টাকা আত্মসাৎ
প্রকাশ: শনিবার, ৮ অক্টোবর, ২০২২, ১২:০০ এএম |

ইউরোপ ও মধ্যপ্রাচ্যসহ বিভিন্ন দেশে উচ্চ বেতনে চাকরি দেওয়ার মিথ্যা প্রলোভন দেখিয়ে পাঁচ শতাধিক লোকের কাছ থেকে প্রায় তিন কোটি টাকা আত্মসাৎ করেছে একটি চক্র। বিদেশে পাঠানোর নামে এই প্রতারণার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে দুই জনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব।
বৃহস্পতিবার (৬ অক্টোবর) রাতে শান্তিনগর এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়। র‌্যাব বলছে, গ্রেফতার দুই জনের মধ্যে মাহবুব উল হাসান (৫০) মানবপাচার ও প্রতারক চক্রের মূলহোতা। অপরজন তার সহযোগী মাহমুদ করিম (৩৬)।
শুক্রবার (৭ অক্টোবর) রাজধানীর কাওরান বাজারে র‌্যাবের মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান র‌্যাব-৩ এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আরিফ মহিউদ্দিন।
তিনি জানান, গ্রেফতার দুই জনের কাছ থেকে ৫২১টি পাসপোর্ট উদ্ধার করা হয়েছে। এছাড়াও বিদেশে চাকরির জন্য তৈরি করা বিভিন্ন কোর্সের ৬৫টি ভুয়া সনদ, ভুয়া মেডিক্যাল সার্টিফিকেট ৩০০টি, ভুয়া কোভিড ভ্যাক্সিনেশন সার্টিফিকেট ২২৫টি, সৌদি, ইরাক, কুয়েত, দুবাই, রোমানিয়া, কানাডা এবং কম্বোডিয়ায় চাকরির ভুয়া চুক্তিপত্র, ভুয়া মেডিক্যাল সার্টিফিকেট, টাকা গ্রহণ রেজিস্টার তিনটি, পুলিশ ক্লিয়ারেন্স ১৫টি, রোমানিয়ান জাল ভিসা সাতটি, জাল কাগজ তৈরির কাজে ব্যবহৃত কম্পিউটার, স্ক্যানার এবং প্রিন্টারও জব্দ করা হয়েছে।
চক্রটি বিভিন্ন অসহায় দরিদ্র লোকের কাছ থেকে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে উল্লেখ করে র‌্যাবের এই কর্মকর্তা বলেন, ‘চক্রের মূলহোতা মাহবুব উল হাসান এবং তার প্রধান সহযোগী মাহমুদ করিম। তারা বাংলাদেশে বিভিন্ন অঞ্চলে দালালের মাধ্যমে ইউরোপ ও মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশে গমনে ইচ্ছুক লোকজনের পাসপোর্ট সংগ্রহ করে। এভাবে তারা গত দুই বছরে ৫২১টি পাসপোর্ট সংগ্রহ করেছে। এর মধ্যে যারা মধ্যেপ্রাচ্যে যেতে ইচ্ছুক তাদের নিকট হতে সে ২ থেকে ৩ লাখ টাকা করে এবং যারা ইউরোপে যেতে ইচ্ছুক তাদের কাছ থেকে ৬ থেকে ৭ লাখ টাকা করে জমা নেয়।
বিদেশে বিভিন্ন কোম্পানির চাকরির ভুয়া নিয়োগপত্র, ভুয়া মেডিক্যাল সার্টিফিকেটসহ নিজস্ব কম্পিউটারে তৈরি বিভিন্ন ভুয়া কাগজপত্র দেখিয়ে তাদের বিদেশে পাঠানোর বিষয়ে চক্রটি নিশ্চয়তা দিতো বলেও জানান এই র‌্যাব কর্মকর্তা। তিনি বলেন, ‘পরে বিদেশে যেতে না পারলে কিংবা তাদের কার্যক্রমে অগ্রগতি না দেখে টাকা ফেরত দিতে তাগাদা দেন ভুক্তভোগীরা। কিন্তু তারা এখন পর্যন্ত কাউকেই টাকা ফেরত দেয়নি। গত দুই বছরে পাসপোর্ট এবং অর্থ জমাদানকারী কোনও ভিকটিমকে তারা বিদেশে পাঠাতে পারেনি।’
সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, প্রথমেই বিদেশে যেতে ইচ্ছুক ব্যক্তি এবং তাদের অভিভাবকদের বিদেশ থেকে তাদের বিভিন্ন দালালের সঙ্গে কথা বলিয়ে দেওয়া হয়। কথিত সেই প্রবাসীরাও আশ্বস্ত করে বলেন, তারা এই আসামিদের মাধ্যমেই বিদেশে গেছেন। তারা এখন খুব ভালো আছেন এবং অনেক অর্থ উপার্জন করে ভাগ্যবদল করতে সক্ষম হয়েছেন। বিদেশ থেকে ফোনে কথা বলার পর ভিকটিম এবং তাদের অভিভাবকরা আরও আগ্রহী হয়ে ওঠেন। এই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে আসামিরা ধাপে ধাপে ভিকটিমদের কাছ থেকে টাকা আত্মসাৎ করতে থাকে।
অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আরিফ মহিউদ্দিন আহমেদ বলেন, চক্রটির ট্রাভেল এজেন্সি বা রিক্রুটিং এজেন্সি পরিচালনার কোনও লাইসেন্স নাই। স্বল্প সময়ে, বিনাশ্রমে অধিক লাভ বা অর্থ উপার্জনই তাদের একমাত্র লক্ষ্য।












সর্বশেষ সংবাদ
অনেকে শুনলে হয়তো পাগল বলবে, বিশ্বাস করেছি জিতবো : মিরাজ
ভারতের বিপক্ষে জয়ে প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন
টাইগারদের অকল্পনীয় জয় শেষে যা বললেন মাশরাফী
শান্তিরক্ষা মিশনের সদস্যরাও পাবেন রেমিট্যান্সের নগদ প্রণোদনা
সারাদেশে পুলিশের বিশেষ অভিযান, গ্রেপ্তার ১৩৫৬
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
ওমরা পালনে বাংলাদেশসহ পাঁচ দেশের জন্য নতুন নিয়ম
আতঙ্কে ব্যাংক থেকে ৫০ হাজার কোটি টাকা তুলে নিয়েছেন গ্রাহকরা
আয়াতের মতোই প্রাণ দিতে হলো শিশু মাহিকে
সাবেক এমপি এবিএম গোলাম মোস্তফা আর নেই
কুমিল্লায় কলেজ শিক্ষার্থীকে হত্যার ঘটনায় চারজন গ্রেপ্তার
Follow Us
সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আবুল কাশেম হৃদয় (আবুল কাশেম হৃদয়)
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ১২২ অধ্যক্ষ আবদুর রউফ ভবন, কুমিল্লা টাউন হল গেইটের বিপরিতে, কান্দিরপাড়, কুমিল্লা ৩৫০০। বাংলাদেশ।
ফোন +৮৮ ০৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২ ৪৪৩, +৮৮ ০১৭১১ ৯৯৭৯৬৯, +৮৮ ০১৯৭৯ ১৫২৪৪৩, ই মেইল: [email protected]
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত, কুমিল্লার কাগজ ২০০৪ - ২০২২ | Developed By: i2soft