.
 
Publish Date: 30 Nov -0001 00:00:00

নানা অনুষ্ঠানে বর্ষবরণ
Share
কুমিল্লার কাগজ রিপোর্ট।। জীর্ণ পুরনো পেছনে ফেলে চির নতুনের আহ্বানে আবার এসেছে বৈশাখ, শুরু হয়েছে বাংলা নতুন বছর। বর্ণময় আয়োজনে নতুন বছরকে বরণ করেছে কুমিল্লাবাসী। শনিবার সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গেই শুরু হয় ১৪১৯ সালকে বরণের পালা। নানা আয়োজনে, নানা আঙ্গিকে কুমিল্লাজুড়ে এই উৎসবে শামিল হন সবাই। জেলা প্রশাসন কুমিল্লা জেলা প্রশাসনের আয়োজনে নববর্ষ উদযাপন, উপলক্ষে জেলা শিল্পকলা একাডেমীতে এক কর্মসূচি পালিত হয়। কর্মসূচির মধ্যে ছিল আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন কুমিল্লা সদর আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য হাজী আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার। কুমিল্লার জেলা প্রশাসক মো: রেজাউল আহসানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন পুলিশ সুপার মো: মোখলেছুর রহমান ও আদর্শ সদর উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ মো: আবদুর রউপ। অনুুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় সংসদ সদস্য হাজী আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহারের স্ত্রী মেহেরুন্নেছা বাহার, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মো: তাজুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাশস (শিক্ষা ও উন্নয়ন) সঞ্জয় কুমার ভৌমিক, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) সাঈদ মাহবুব খান, ম্যাজিস্ট্রেট মো: ইকবাল হোসেন, আদর্শ সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আয়েশা আক্তারসহ জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাবৃন্দ। আলোচনা পর্ব শেষে জেলা কালচারাল অফিসার বশীর উল আনোয়ারের উপস্থাপনায় শিল্পকলা একাডেমীর শিল্পীদের পরিবেশনায় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট নতুন দিনের নতুন প্রত্যাশায় জাতি গঠনের প্রত্যয় ও যুদ্ধাপরাধীদের দ্রুত বিচার দাবি জানানোর মধ্যে দিয়ে সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট কুমিল্লা শাখা ২ দিনব্যাপি বর্ণাঢ্য কর্মসূচি পালনের মধ্য দিয়ে নববর্ষ ১৪১৯ উদযাপন করেছে। কর্মসূচির মধ্য ছিল আনন্দ শোভাযাত্রা, সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা, আলোচনা সভা, পুরস্কার বিতরণ, হা-ডু-ডু, মোরগ লড়াই, সাপ নাচ, বানর নাচ ইত্যাদি। পয়লা বৈশাখ এ জোটের উদ্যোগে সকাল ৯টায় নগর পার্কের জামতলা থেকে আনন্দ শোভাযাত্রা বের করা হয়। আনন্দ শোভাযাত্রার উদ্বোধন করেন কুমিল্লা সদর আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য হাজী আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার। বেলুন ও ফেস্টুন উড়িয়ে তিনি এ আনন্দ শোভাযাত্রার উদ্বোধন করেন। এর আগে জামতলায় সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট মঞ্চে উদ্বোধনী বক্তব্য রাখেন জাতীয় সংসদ সদস্য হাজী আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার। উদ্বোধনী পর্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক মো: রেজাউল আহসান ও পুলিশ সুপার মো: মোখলেছুর রহমান। আনন্দ শোভাযাত্রার প্রথম সারিতে ছিলেন জাতীয় সংসদ সদস্য হাজী আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার, তার স্ত্রী মেহেরুন্নেছা বাহার, জেলা প্রশাসক মো: রেজাউল আহসান, পুলিশ সুপার মো: মোখলেছুর রহমান, আদর্শ সদর উপজেলা চেয়ারম্যান ও নববর্ষ উদযাপন পর্ষদের চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ মো: আবদুর রউফ, নজরুল পরিসদের সহ সভাপতি এডভোকেট রুস্তম আলী, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট চট্টগ্রাম বিভাগীয় সমন্বয়ক নাজমুল হাসান পাখী, নববর্ষ উদযাপন পর্ষদের আহবায়ক পাপড়ী বসু, সদস্য সচিব শেখ জহিরুল ইসলাম, জোটের সভাপতি নৃপেন্দ্র কুমার চক্রবর্তী, সহ সভাপতি মোতাহার হোসেন মাহবুব, সাধারণ সম্পাদক মেজবাউল আজম চৌধুরী পাবেলসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটভুক্ত কুমিল্লায় বিভিন্ন সাংস্কৃতিক সংগঠন, সামাজিক সংগঠন ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এ র‌্যালিতে অংশগ্রহণ করে। এর মধ্যে ছিল শৈলানী দেবী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, কুমিল্লা জিলা স্কুল, নবাব ফয়জুন্নেছা সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, মাহিব একাডেমী, ফরিদা বিদ্যায়তন, কুমিল্লা সাংস্কৃতিক সংগঠন ও প্রতিশ্রতি। বিকেলে একই স্থানে অনুষ্ঠিত হয় আলোচনা সভা, পুরস্কার বিতরণ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন জাতীয় সংসদ সদস্য হাজী আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার। আদর্শ সদর উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ মো: আবদুর রউফের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সিভিল সার্জন আবুল কালাম সিদ্দিক, জোটের চট্টগ্রাম বিভাগীয় সমন্বয়ক নাজমুল হাসান পাখী ও নজরুল পরিষদের সহ সভাপতি এডভোকেট রুস্তম আলী। বক্তব্য রাখেন মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কুমিল্লা জেলা কমান্ডের গবেষণা সম্পাদক এডভোকেট গোলাম ফারুক, এডভোকেট একেএম তহিদুল ইসলাম, বর্ষবরণ উদযাপন পর্ষদের আহবায়ক পাপড়ী বসু, জোটের সভাপতি নৃপেন্দ্র চক্রবর্তী, সহ সভাপতি সাংবাদিক মোতাহার হোসেন মাহবুব, উদযাপন পর্ষদের সদস্য সচিব শেখ জহিরুল ইসলাম, জোটের সাবেক সাধারণ সম্পাদক অচিন্ত্য দাশ টিটু, শৈলরানী দেবী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কোহিনুর বেগম, প্রতিশ্রতির সভাপতি গোলাস সারওয়ার কাউসার প্রমুখ। জাতীয় রবীন্দ্রসঙ্গীত সম্মিলন পরিষদ জাতীয় রবীন্দ্রসঙ্গীত সম্মিলন পরিষদ কুমিল্লা জেলা শাখার আয়োজনে বাংলা বর্ষবরণ উপলক্ষে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। পয়লা বৈশাখ বিকেলে মহেশাঙ্গনে অনুষ্ঠিত এ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে রবীন্দ্রসঙ্গীত, নজরুল সঙ্গঢত, উচ্চাঙ্গ সঙ্গীত, দেশাত্মবোধক গান, লোকজ সঙ্গীত, আব্বাস উদ্দিনের গান, আধুনিক গান, লালনগীতি, আবৃত্তি ও নৃত্য পরিবেশন করা হয়। রীবন্দ্র ও নজরুল সঙ্গীতপ রিবেশন করেন শিপ্রা সরকার, মনীষা রাণী লোধ, নীলিমা দত্ত, ডোনা মিশ্র, প্রাপ্তি দে, ফারজাহা ইয়াসমীন, শতাব্দী বিশ্বাস, রামিসা ফারিহা, মেহের আফসানা, সাদিয়া সুলতানা পুষ্প, মো: আশরাফুল ইসলাম, ধ্রব সেনগুপ্ত, প্রেমা ভট্টাচার্য, পূজা ভট্টাচার্য, নিপা রানী সরকার, কাজী নাজনীন, সুলতানা অরণ্য, মারিয়া সুলতানা, জেরিন, দীপা রাণী দে, সুমাইয়া আক্তার শ্রাবণী, হাসানাত বিনতে হাফেজ, সুস্মিতা সাহা, দিয়াড়ী সায়ন্তন পূর্বিতা, শস্য, প্রণিতা সিংহ, দেবলীনা রায় দৃপ্তা, তৃণা কর, নুসরাত জাহান মিতা। উচ্চাঙ্গ সঙ্গীত পরিবেশন করেন গুরুদাস ভট্টাচার্য ও এবিএম খুরশীদ আলম। অতুল প্রসাদের গান পরিবেশন করেন সানি বড়ুয়া। দেশাত্মবোধক গান পরিবেশন করেন শাহরিয়ার হাসান রাতুল। লোকজন সঙ্গীত পরিবেশন করেন জারিন তাসনিন, প্রজ্ঞা প্রদীপ্তি সূত্রধর ও ফাইরুজ তাবাস্সুম। সমবেত সঙ্গীত পরিবেশন করেন সামিনা আক্তার, জয়শ্রী নাথ, মৈত্রী দাশগুপ্ত, ঐশ্বরী মজুমদার, সিথি সেন, অথিয়া পোদ্দার, শরমিতা চন্দ, দোলন দত্ত, অপরাজিতা হালদার, সুলোপা শৈলী পাল, প্রজ্ঞা প্রদীপ্তি সূত্রধর, জারিন তাসনিম, শুভেচ্ছা রায়, সুধা রায়, অথৈ চৌধুরী। লালনগীতি পরিবেশন করেন রীপা দত্ত। আবৃত্তি করেন ডা. তৃপ্তীশ চন্দ্র ঘোষ ও ডা. মল্লিকা বিশ্বাস। আধুনিক গান পরিবেশন করেন হুমায়ুন কবির ও মিতা পাল, মল্লিকা বিশ্বাস, রুমা নাথ, সৃজনী সাহা ঐশী, নেহা ঘোষ। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন জাতীয় রবীন্দ্রসঙ্গীত সম্মিলিন পরিষদের সভাপতি এবিএম খুরশীদ ইসলাম। সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মুস্তাফিজুর রহমান পাটোয়ারী। কুমিল্লা সাংস্কৃতিক জোট এসো হে বৈশাখ, এসো এসো এ সূচনা সঙ্গীতের মধ্য দিয়ে বর্ণাঢ্য আয়োজন ও বর্ণিল উৎসবে কুমিল্লা সাংস্কৃতিক জোট বরণ করে নিল শাশ্বত বাংলা আর বাঙালির অসাম্প্রদায়িক প্রাণের উৎসব পয়লা বৈশাখ ১৪১৯কে। কুমিল্লা নগরের ধর্মসাগর দক্ষিণ পাড়ের কুমিল্লা মহিলা মহাবিদ্যালয় মাঠ প্রাঙ্গণে ২ দিনব্যাপি বর্ণাঢ্য কর্মসূচির পালনের মধ্য দিয়ে প্রতিবছর মত এ বছরও কুমিল্লা সাংস্কৃতিক জোট এ বর্ষবরণ উদযাপন করে। সকালে বেলুন উড়িয়ে ২ দিনব্যাপী কর্মসূচির উদ্বোধন করেন কুমিল্লা জেলা পরিষদের প্রশাসক আলহাজ্ব মো: ওমর ফারুক। এর আগে তিনি বৈশাখী মঞ্চে প্রধান অতিথি হিসেবে উদ্বোধনী বক্তব্য দেন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন কুমিল্লা সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি ও প্রবীণ নাট্য ব্যক্তিত্ব মো: হাসিম আপ্পু, বাংলা নববর্ষ উদযাপন পর্ষদের আহবায়ক অধ্যক্ষ শফিকুর রহমান, জোটের সাবেক সভাপতি জহিরুল হক দুলাল, সাবেক সভাপতি দিলনাশি মোহসেন, কুমিল্লা নাগরিক ফোরামের সভাপতি কামরুল আহসান বাবুল, বিএমএ কুমিল্লার সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব ডা. মোহাম্মদ আজিজুর রহমান সিদ্দিকী, অধুনা থিয়েটারের সভাপতি এডভোকেট শহীদুল হক স্বপন, তপন সেন গুপ্ত, ডা. আবু আয়ুব হামিদ, চৌদ্দগ্রাম উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান রাশেদা আখতার, জোটের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মাসুদ মজুমদার, বাংলা নববর্ষ উদযাপন পর্ষদের সদস্য সচিব রেজবাউল হক রানা, কুমিল্লার কথার প্রকাশক দেলোয়ার হোসেন জাকির প্রমুখ। পরে মঙ্গল শোভাযাত্রা বের হয়। কুমিল্লার মহিলা মহাবিদ্যালয় থেকে বের হয়ে নগরীর প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। রিমিক্স গ্রপ, ভৈরবী সঙ্গীতাঙ্গণ, ভিক্টোরিয়া কলেজ থিয়েটার, অধুনা থিয়েটার, খেলাঘর, প্রজন্ম বিতর্ক সংগঠন, ভিক্টোরিয়া কলেজ বিতর্ক পরিষদ, সমকাল সুহৃদ সমাবেশ গোমতি পাড়ের সংস্কৃতি, কুমিল্লা নাগরিক ফোরাম, ফ্রেন্ডস থিয়েটার, রোটার‌্যাক্ট ক্লাব অব কুমিল্লা, কুমিল্লা মিডটাউন, ময়নামতি, ময়নামতি সেন্ট্রাল, সানরাইজ, লালমাই, গোমতী, কুমিল্লা সাউথ শোভাযাত্রায় অংশগ্রহণ করে। সন্ধ্যায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সংসদ সদস্য হাজী আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার। বক্তব্য রাখেন জেলা পরিষদের প্রশাসক আলহাজ্ব মো: ওমর ফারুক। কন্ঠশিল্প বাংলা, ভৈরবী সঙ্গীতাঙ্গন, রিমিক্স গ্রপের শিল্পীবৃন্দ সাংস্কৃতিক পরিবেশনায় অংশ নেয়। দ্বিতীয় দিনের অনুষ্ঠানমালায় সকালে বিষয় ভিত্তিক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। সমন্বয় করেন প্রতিযোগিতা উপ পর্ষদের আহবায়ক শরীফ আহমেদ অলী। বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের শিশু-কিশোররা এতে অংশগ্রহণ করে। বিকেলে প্রজন্ম বিতর্ক সংগঠনের রম্য বিতর্ক অনুষ্টিত হয়। বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন প্রধান অতিথি জেলা পরিষদের প্রশাসক আলহাজ্ব মো: ওমর ফারুক। অতিথি ছিলেন কুমিল্লা প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি আবুল হাসানাত বাবুল, জোটের সাবেক সভাপতি সুজিত গুহ চাঁন, জোট সভাপতি হাসিম আপ্পু, সাবেক সভাপতি অধ্যক্ষ শফিকুর রহমান, দিলনাশি মোহাসেন, এড. শহিদুল হক স্বপন, দৈনিক সমকাল কুমিল্লার স্টাফ রিপোর্টার মাসুক আলতাফ চৌধুরী, জোটের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মাসুদ মজুমদার, সমতল হোল্ডিংয়ের মামুনুর রশীদ ও ইঞ্জিনিয়ার আমিনুর রসুল। আপনজন সম্মাননা প্রদান করা হয় প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে কুমিল্লা বীরচন্দ্র গণ পাঠাগার ও নগর মিলনায়তন পক্ষে ক্রেস্ট গ্রহণ করেন সাধারণ সম্পাদক আবিদুর রহমান জাহাঙ্গীর, নাট্যশিল্পী ক্ষেত্রে প্রবীন মঞ্জুর চক্রবর্তী, সাংবাদিকতার ক্ষেত্রে আমোদ পত্রিকার সম্পাদক বেগম শামসুন্নাহার রাব্বী, জোটের বিদায়ী সভাপতি হাসিম আপ্পু ও সাধারণ সম্পাদক মাসুদ মজুমদার। পরে বাউল গান পরিবেশন করেন মোস্তফা বাউল। সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট বর্ষবরণ অনুষ্ঠানে- হুইপ মুজিব নববর্ষের প্রত্যয় হোক সুখ, শান্তি ও সমৃদ্ধশালী দেশ গড়ার স্টাফ রিপোর্টার।। জাতীয় সংসদের হুইপ মুজিবুল হক মুজিব এমপি বলেছেন, নববর্ষের প্রত্যয় হোক সুখ, শান্তি ও সমৃদ্ধশালী দেশ গড়ার। নিরন্ন নয় অন্ন, অশিক্ষিত নয় শিক্ষিত, সাম্প্রদায়িক নয় অসাম্প্রদায়িক দেশ গড়তে হবে। সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট কুমিল্লা শাখা আয়োজিত ২দিন ব্যাপি বর্ষবরণ অনুষ্ঠানের সমাপনী দিনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। আদর্শ সদর উপজেলা চেয়ারম্যান বর্ষবরণ উদযাপন পর্ষদের চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ মো: আবদুর রউফের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম আহবায়ক সফিকুল ইসলাম শিকদার। বক্তব্য রাখেন মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কুমিল্লা জেলা কমান্ডের গবেষণা সম্পাদক এডভোকেট গোলাম ফারুক, জোটের সভাপতি নৃপেন্দ্র কুমার চক্রবর্তী ও নববর্ষ উদযাপন পর্ষদের আহবায়ক পাপড়ী বসু। স্বাগত বক্তব্য রাখেন সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট চট্টগ্রাম বিভাগীয় সমন্বয়ক নাজমুল হাসান পাখী। আলোচনা পর্ব শেষে ভারতের কলকাতা থেকে আগত সাংস্কৃতিক দল- কলাভারতী ব্যালেট মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশন করে।
 
The Sire Design Mantain & Developed by RiverSoftBD