পত্রিকা আপডেট-১২:৩০ ।। সর্বশেষ খবর আপডেট ২৪ ঘন্টা
 
Publish Date: 30 Nov -0001 00:00:00

মুরাদনগরের মোচাগড়া হাইস্কুলে অভিভাবক প্রতিনিধি নির্বাচন
Share
ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে মুরাদনগর উপজেলার মোচাগড়া আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির অভিভাবক প্রতিনিধি নির্বাচন সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ন ভাবে সম্পন্ন হয়েছে। শনিবার সকাল ১০টা থেকে বিরতিহীন ভাবে বিকাল ৪টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে মোচাগড়া, ছিলমপুর, ভবানীপুর, শোলাপুকুরিয়া ও বাখরনগর গ্রামে ছিল উৎসবের আমেজ। সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত মোচাগড়া বাজারের বিভিন্ন দোকান পাটে প্রার্থীদের জয়-পরাজয় নিয়ে চলছিল নানা জল্পনা-কল্পনা। তবে সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ ভাবে নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে বলে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীরা জানিয়েছেন। উক্ত নির্বাচনে কোম্পানীগঞ্জ ও মোচাগড়া বাজারের ৭জন ব্যবসায়ী প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিল। মোট ৫৫২ জন ভোটারের মধ্যে ৪৭৮ জন ভোটার তাদের কাঙ্খিত প্রার্থীদের ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেন। নবনির্বাচিত অভিভাবক প্রতিনিধিরা হলেন, সাবেক সদস্য হাজী ছাদেক হোসেন (১ম, ব্যালট নং ০৩, প্রাপ্ত ভোট ৩৪৯), সিরাজুল ইসলাম ( ২য়, ব্যালট নং ০৬, প্রাপ্ত ভোট ৩০৩) বর্তমান সদস্য মির্জা আবুল হাশেম (৩য়, ব্যালট নং ০৪, প্রাপ্ত ভোট ২৯৫), আবুল বাশার (৪র্থ, ব্যালট নং ০১, প্রাপ্ত ভোট ২৭২), পরাজিত প্রার্থীরা হলেন, সাইফুজ্জামান খন্দকার স্বপন (৫ম, ব্যালট নং ০৫, প্রাপ্ত ভোট ১৯৯), ওয়াদুধ মিয়া (৬ষ্ঠ, ব্যালট নং ০২, প্রাপ্ত ভোট ৭৭), ও শাহজাহান মিয়া (৭ম, ব্যালট নং ০৭, প্রাপ্ত ভোট ৭৬)। নির্বাচন চলাকালে এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গসহ বিভিন্ন পেশাজীবী লোকজন উপস্থিত ছিলেন। দলমত নির্বিশেষে সকলেই নির্বাচন সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ হয়েছে বলে জানান। নির্বাচনের প্রিজাইডিং অফিসার ও উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সফিউল আলম তালুকদার নির্বাচন সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ ভাবে সম্পন্ন করতে সহযোগিতা করায় প্রার্থী ও ভোটারসহ সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, প্রার্থী ও ভোটাররা যদি সুষ্ঠু নির্বাচন আশা করে, তাহরে কেউ অনিয়ম করতে সাহস পায় না। তবে তিনি সকল প্রকার দ্বন্দ্ব ভূলে এলাকাবাসীসহ সকল প্রার্থীদের ঐক্যবদ্ধ ভাবে বিদ্যালয়ের উন্নয়নে এগিয়ে আসতে হবে। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শাহআলম মিয়া জানান, প্রতিষ্ঠাতা ও দাতা সদস্যগণ উদার মন নিয়ে ও নিঃস্বার্থ হিসাবে বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠিত করেছেন। বর্তমান ও বিগত ম্যানেজিং কমিটি আন্তরিক ও নিষ্ঠার সহিত কাজ করেছে। আমি আশা করব নতুন কমিটির সদস্যগণ বিদ্যালয়ের সার্বিক উন্নয়নে অগ্রণী ভূমিকা পালন করবে। নির্বাচিত প্রতিনিধিরা যদি বিদ্যালয়ের সার্বিক কল্যাণে কাজ করেন তাহলে অবশ্যই বিদ্যালয়ের বহুমুখী উন্নয়ন ঘটানো সম্ভব হবে। ১০নং যাত্রাপুর ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ সকল প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের প্রানঢালা অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানিয়ে বলেন, জয় পরাজয় বড় কথা নয়, আজ থেকে সকল মতবেদ ভূলে বিদ্যালয়ের উন্নয়নে ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করে যেতে হবে। একমাত্র ম্যানেজিং কমিটিই পারে একটি বিদ্যালয়ের পরিবেশ উন্নতি করতে। আমি আশাবাদী ভবিষ্যতে নতুন কমিটি শিক্ষার্থীদের লেখা-পড়ার মান এমন ভাবে উন্নতি করবে, যাতে আশপাশের কয়েকটি বিদ্যালয়ে তাঁর সুনাম ছড়িয়ে পড়ে।
 
Total Reader : Hit Counter by Digits || The Site Design Mantain & Developed by RiverSoftBD