ই-পেপার ভিডিও ছবি বিজ্ঞাপন কুমিল্লার ইতিহাস ও ঐতিহ্য যোগাযোগ কুমিল্লার কাগজ পরিবার
চান্দিনায় নসিমন চালক হত্যা মামলা জুতায় সনাক্ত হলো ঘাতক
Published : Thursday, 21 November, 2019 at 12:00 AM, Count : 471
রণবীর ঘোষ কিংকর ||
গত শনিবার (১৬ নভেম্বর) সকালে কুমিল্লার চান্দিনা উপজেলার শ্রীমন্তপুর এলাকায় হাত-পা বাঁধা অবস্থায় জাকির হোসেন (৪৮) নামে এক নসিমন চালকের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।
শুক্রবার রাতের অন্ধকারে কে বা কাহারা তাকে হত্যার পর একটি ডোবার পাশে মরদেহ ফেলে যায় হত্যাকারীরা।
শনিবার নিহতের মেয়ে নাঈমা আক্তার বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা আসামিদের বিরুদ্ধে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করে।
শান্ত স্বভাব সুলভ আচরণের নিরীহ জাকির হোসেনকে কেন হত্যা করবে বা কারা হত্যা করতে পারে এ নিয়ে এলাকায় শুরু হয় নানা আলোচনা-সমালোচনা। হত্যা কান্ডের রহস্য উদঘাটন সহ হত্যকারীদের সনাক্ত করতে মাঠে নামে চান্দিনা থানা পুলিশ।
নসিমন চালক জাকির হত্যা কান্ডের কোন স্বাক্ষী না থাকলেও হত্যাকারীদের সনাক্ত করতে স্বাক্ষী হলো জুতা! ঘটনা¯'লের কাছাকাছি ¯'ানে একপাটি রাবারের জুতা পাওয়ার পর ওই জুতাটি ঘিড়ে শুরু হয় পুলিশের তদন্ত।
¯'ানীয়দের তথ্যমতে বের হয়ে আসে ওই জুতার মালিক কে। পুলিশ অভিযান চালিয়ে ওই জুতার মালিক শ্রীমন্তপুর গ্রামের আব্বাস আলীর ছেলে সিএনজি চালক ছানাউল্লাহ (২৬)কে আটক করে। ছানাউল্লাহর দেওয়া তথ্যমতে একই গ্রামের আব্দুল এরশাদ এর ছেলে আব্দুল মালেক (২৮)কেও আটক করার পর হত্যাকান্ডের রহস্যের জট খুলতে থাকে।
তাদের দেওয়া তথ্য মতে জানা যায়- শুক্রবার (১৫ নভেম্বর) রাতে ছানাউল্লাহ ও আব্দুল মালেক এক পতিতা নারীর সঙ্গ পেতে ঘর থেকে বের হয়। অজ্ঞাতকারণে ওই নারীর সাথে তাদের সাক্ষাৎ না হওয়ায় ফিরে আসেন শ্রীমন্তপুর ছ’মিল সংলগ্ন চা দোকানে। ওই চা দোকানে বসা ছিলেন জাকির হোসেন।
এদিকে, সম্প্রতি জাকির হোসেন এর সাথে সিএনজি কেনা-বেচা নিয়ে ছানাউল্লাহর কথা কাটাকাটি হয়। ওই কথা কাটাকাটির ক্ষোভ পুষে রাখে ছানাউল্লাহ। রাত প্রায় ১টার সময় জমির আইল দিয়ে জাকির হোসেন বাড়ি ফেরার সময় মনের ক্ষোভ মিটাতে আক্রমন করেন ছানাউল্লাহ ও তার সহযোগি মালেক। তার মুখ চেপে ধরে কিল ঘুষির এক পর্যায়ে হঠাৎ অচেতন হয়ে পরে জাকির হোসেন।
কিছুক্ষণ পর তারা বুঝতে পারেন জাকির হোসেন মারা গেছেন। আর হত্যাকান্ডটি ভিন্ন দিকে প্রভাবিত করতে মরদেহ বাড়ির পাশের ডোবায় ফেলার চেষ্টা করে তারা। মরদেহ ডোবার পাড়ে নিয়ে যেতেই দূর থেকে অজ্ঞাত ব্যক্তির টর্চের আলো পড়ে তাদের উপর। আর মুহুর্তের মধ্যে মরদেহ ফেলে পালিয়ে আসে হত্যাকারী মালেক ও ছানাউল্লাহ। এসময় তারাহুড়া করে ঘটনা¯'ল থেকে সটকে পরার সময় পথিমধ্যে পরে যায় ছানাউল্লাহর বাম পায়ের একটি জুতা।
এমন লোমহর্ষক ঘটনার বর্ণনা দিয়ে মঙ্গলবার (১৯ নভেম্বর) কুমিল্লার ৭নং আমলী আদালতের ম্যাজিষ্ট্রেট গোলাম মাহবুব খানের আদালতে স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দি দেয় আব্দুল মালেক। তার একদিন পর বুধবার (২০ নভেম্বর) একই আদালতে স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দি দেয় ঘটনার মূল হোতা ছানাউল্লাহ।
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে মামলা তদন্ত কর্মকর্তা চান্দিনা থানার উপ-পরিদর্শক (এস.আই) গিয়াস উদ্দিন জানান, হত্যাকারীদের তথ্যমতে তারা জাকির হোসেনকে মারধর করতেই আক্রমন শুরু করে। কিš' তাদের এলোপাথারী কিল-ঘুষিতে মৃত্যু ঘটে জাকির হোসেনের। আগামীদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় তদন্ত অব্যাহত রয়েছে।





« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
কুমিল্লার কাগজ ২০০৪ - ২০১৮
সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আবুল কাশেম হৃদয় (আবুল কাশেম হৃদয়)
নির্বাহী সম্পাদক: হুমায়ূন কবীর জীবন
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ১২২ অধ্যক্ষ আবদুর রউফ ভবন, কুমিল্লা টাউন হল গেইটের বিপরিতে, কান্দিরপাড়, কুমিল্লা ৩৫০০। বাংলাদেশ।
ফোন +৮৮ ০৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২ ৪৪৩
ই মেইল: [email protected], [email protected],  Developed by i2soft
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ আবুল কাশেম হৃদয়
নির্বাহী সম্পাদক: হুমায়ূন কবীর জীবন
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ১২২ অধ্যক্ষ আবদুর রউফ ভবন
কুমিল্লা টাউন হল গেইটের বিপরিতে, কান্দিরপাড়, কুমিল্লা ৩৫০০। বাংলাদেশ। বাংলাদেশ। ফোন +৮৮ ০৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২ ৪৪৩
ইমেইল : [email protected] Developed by i2soft