ই-পেপার ভিডিও ছবি বিজ্ঞাপন অ্যাপস কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স কুমিল্লার ইতিহাস ও ঐতিহ্য লাইভ টিভি লাইভ রেডিও সকল পত্রিকা যোগাযোগ কুমিল্লার কাগজ পরিবার
কুমিল্লা উন্নয়ন মেলায় ভিড় কয়েকটি স্টলে হতাশাজনক অবস্থা
Published : Saturday, 13 January, 2018 at 12:00 AM, Update: 13.01.2018 1:49:16 AM, Count : 381
কুমিল্লা উন্নয়ন মেলায় ভিড় কয়েকটি স্টলে হতাশাজনক অবস্থাস্টাফ রিপোর্টার।। শুক্রবার ছুটির দিনে কুমিল্লা উন্নয়ন মেলায় ছিল উপচে পরা ভীড়। কুমিল্লা টাউন হল মাঠে বৃহস্পতিবার থেকে থেকে শুরু হয় ৩ দিনব্যাপি এ উন্নয়ন মেলা। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারের গৃহিত উন্নয়ন কার্যক্রম, ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা ও এমডিজি অর্জনে সাফল্য প্রান্তিক জনগোষ্ঠির মাঝে তুলে ধরতে এ মেলার আয়োজন করে কুমিল্লা জেলা প্রশাসন। মেলায় ঘুরে দেখা যায়, সরকারি বিভিন্ন অধিদপ্তর, বিভাগের তথ্য জানান দেওয়ার জন্য ও জনগণের সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে স্টলগুলোতে পোস্টার, লিফলেট, আপগ্রেড প্রতিবেদন ও সেবাসমূহের খাত চি‎িহ্নতকরণ সমেত বাজেট ও আনুষাঙ্গিক কাগজপত্র ও ফেস্টুন লাগানো হয়েছে। মাল্টিমিডিয়া প্রজেক্টরের মাধ্যমে ভিডিও স্ক্রিপ্টও প্রদর্শন করা হচ্ছে। কয়েকটি স্টলে বিনামূল্যে স্বাস্থ্য সেবা ও ওষুধ বিতরণ করা হচ্ছে। কিন্তু সরকারের উন্নয়ন কাজগুলো সাধারণ মানুষের কাছে সহজভাবে তুলে ধরার বিষয়ে বেশ কয়েকটি সরকারি অধিদপ্তর ও বিভাগ সম্পূর্ণভাবে ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে। সবচেয়ে হতাশাজনক পরিস্থিতি সরকারের সবচেয়ে বড় উদ্যোগের প্রচারণার স্টলে। ডিজিটাল বাংলাদেশ শ্লোগানে নির্বাচনী ইস্তেহার দিয়ে বাংলাদেশকে ডিজিটাল করার সরকারি উদ্যোগের কোন কিছুই চোখে পড়ে নি তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তরের স্টলে। কুমিল্লার কোন প্রতœতত্ত্বের ছবি বা লিফলেটও নেই প্রতœতত্ত্ব অধিদপ্তরের স্টলে। অথচ গত অর্থ বছরে বিপুল অর্থ ব্যয় করে ময়নামতি রাণীর প্রসাদ পুণখনন ও শালবন বিহারের উন্নয়ন করা হয়। সরকারের এ সব উন্নয়নের কোন তথ্য সেই সে স্টলে। নেই কুমিল্লার পুরাকীর্তি নিয়ে প্রকাশিত অধিদপ্তরের পুস্তিকাসমূহও। জানতে চাইলে অধিদপ্তরের কর্মচারী শামসুল আলম জানান, প্রজেক্টরে শালবনের ভিডিও আছে।
তথ্য নেই সময়বায় অধিদপ্তরের স্টলেও। কিছু মৃৎ শিল্প সামগ্রী রেখে স্টল সাজানো হয়েছে। অথচ এ স্টলে সমবায়ীদের জন্য সরকারের গৃহীত প্রদক্ষেপ সমূহ তুলে ধরা যেতো। কুমিল্লার কোন তথ্য নেই পরিবেশ অধিদপ্তরের স্টলেও। স্টলে বসা একজনকে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি জানান, ওয়েব সাইটে সব তথ্য দেয়া আছে।
কুমিল্লার ত্রাণ ও পুর্ণবাসন অধিদপ্তরের স্টলে গিয়ে জানতে চাওয়া হয় কুমিল্লায় সরকার এ পর্যন্ত কত টাকার ত্রাণ দিয়েছেন ? জবাবে স্টলে বসা জেলা ত্রাণ ও পুর্ণবাসন কর্মকর্তা দুইটি ফেস্টুন দেখিয়ে বলেন এই খানে লেখা আছে।
তবে এ সব হতাশাজনক অবস্থার মধ্যে কুমিল্লা টাউন হল মাঠের পশ্চিম পাশে প্রথম সুসজ্জিত ও সুশৃঙ্খলিত স্টলটি সেনাবাহিনীর স্টল,  তফসিলি ব্যাংক সমূহের বড় আকারের একটি স্টল। এর উল্টোদিকে মাঠের পূর্ব পাশে রয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা বিভাগের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর, ইমিগ্রেশন ও পাসপোর্ট অধিদপ্তর, কারা অধিদপ্তর, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স সমন্বয়ে একটি বড় সাইজের স্টল, ফলমূল শাকসবজি দিয়ে সাজানো কৃষি বিভাগের স্টলে ভিড় লেগেই আছে। গণপূর্ত বিভাগের স্টলটিও বেশ নান্দনিক। এসব স্টলে তথ্য উপস্থাপনে ঘাটতি নেই। জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন ও জেলা পরিষদের স্টলেও তথ্য প্রদানের ক্ষেত্রে ঘাটতি নেই। জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের স্টল ও কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন স্টলে বিনামূল্যে স্বাস্থ্য সেবা প্রদানের আয়োজন করা হয়েছে। ব্লাড গ্রুপ নির্ণয়, প্রেসার মাপা, ডায়াবেটিস পরীক্ষা করা হচ্ছে ও বিনামূল্যে ওষুধ দেয়া হচ্ছে।
তথ্য কেন্দ্র স্টলে সরঞ্জমাদি থাকলেও লোকবলের অভাব কিংবা অনুপস্থিতি তথ্য সংগ্রহ করতে এসে অনেকে বিব্রতকর অবস্থায় পড়েছেন। তবে জেলা তথ্য অফিস মেলার শুরু থেকে ভালো সার্ভিস দিচ্ছে বলে দর্শক-শ্রোতরা জানিয়েছেন। বেশ কয়েকটি স্টলে পিঠাপুলির আয়োজন থাকলেও তেমন জমে উঠেনি। এনজিওগুলোর সবগুলো স্টল বেশ জমজমাট।
জনস্বাস্থ্য ও প্রকৌশল অধিদপ্তর কার্যালয়ের স্টল ও জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কার্যালয়ে তথ্য-উপাত্ত প্রদানের ব্যবস্থা সন্তোষজনক। জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর জেলা কার্যালয়ের স্টলে তথ্য প্রদানের ঘাটতি নেই। শিশু পরিবার, আঞ্চলিক শ্রম অধিদপ্তরসহ মেলার ১১৩ নম্বর স্টল থেকে ১২৫ নম্বর স্টল খালি অবস্থায় রয়েছে। এসব স্টল বরাদ্দের তালিকাও পাওয়া যায়নি। দুর্নীতি দমন অফিসের স্টলে সাইনবোর্ড থাকলেও লোকজন নেই। ওষুধ প্রশাসন স্টলে তথ্যের ঘাটতি রয়েছে, আপগ্রেড প্রতিবেদনও পাওয়া যায়নি। জেলা কর্মসংস্থান ও জনশক্তি অফিসে লিফলেট বিতরণের পাশাপাশি মাইকিং করে প্রচার-প্রচারণা চালাতে দেখা যায়। দর্শক-শ্রোতাদের কয়েকজন বলেছেন, মেলায় এসে সরকারের উন্নয়ন কর্মকা- সম্পর্কে অনেক কিছু জানতে পেরেছেন। নতুন কিছু অভিজ্ঞতাও অর্জন করেছেন।
প্রথম দিন অর্থাৎ উদ্বোধনের দিন মেলায় লোক সমাগম আশাব্যঞ্জক হলেও গতকাল ছুটির দিন থাকায় প্রচুর দর্শক-শ্রোতার সমাগম ঘটে। দর্শক-শ্রোতা কী ধরনের প্রশ্ন করে বা মেলায় এসে তারা কি জানতে চায়- এমন প্রশ্নের উত্তরে সরকারি বিভিন্ন বিভাগের কয়েকজন উর্ধ্বতন কর্মকর্তা বলেছেন, সরকারি বিভিন্ন দপ্তরের উন্নয়নমূলক কার্যক্রম জানার আগে আগে তারা কি ধরনের সেবা পেতে পারেন ? সেবা পেতে কত খরচ পড়বে ? কখন, কীভাবে সেবা পেতে পারেন ? এসব প্রশ্নের উত্তর জানতে চায়।






« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
কুমিল্লার কাগজ ২০০৪ - ২০১৬
সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আবুল কাশেম হৃদয় (আবুল কাশেম হৃদয়)
নির্বাহী সম্পাদক: হুমায়ূন কবীর জীবন
কার্যালয়: কাজী অহিদুজ্জামান ম্যানশন, তৃতীয় তলা, কান্দিরপাড়,কুমিল্লা-৩৫০০, বাংলাদেশ
ফোন: +৮৮০ ৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২৪৪৩, +৮৮০ ১৭১৮০৮৯৩০২
ই মেইল: hridoycomilla@yahoo.com, newscomillarkagoj@gmail.com,  Developed by i2soft
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ আবুল কাশেম হৃদয়
নির্বাহী সম্পাদক: হুমায়ূন কবীর জীবন
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ১২২ অধ্যক্ষ আবদুর রউফ ভবন
কুমিল্লা টাউন হল গেইটের বিপরিতে, কান্দিরপাড়, কুমিল্লা ৩৫০০। বাংলাদেশ। ফোন +৮৮ ০৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২ ৪৪৩
ইমেইল : hridoycomilla@yahoo.com Developed by i2soft