ই-পেপার ভিডিও ছবি বিজ্ঞাপন কুমিল্লার ইতিহাস ও ঐতিহ্য যোগাযোগ কুমিল্লার কাগজ পরিবার
Count
2261
রাতে চুরি, ভোরে জবাই সকালে মাংস বিক্রি!
কুমিল্লায় খামার থেকে ১৬ গরু লুট চক্রের হোতাসহ গ্রেপ্তার ৩
Published : Friday, 30 October, 2020 at 12:00 AM, Update: 30.10.2020 2:01:53 AM
রাতে চুরি, ভোরে জবাই সকালে মাংস বিক্রি!মাসুদ আলম।। রাতে চুরি, ভোরে জবাই আর সকালে মাংস বিক্রিÑ এই তিন ঘটনাচক্রের সূত্র ধরে কুমিল্লায় গরু চুরি-ডাকাতির এক বড় চক্রের সন্ধান পেয়েছে পুলিশ। বুধবার এই চক্রের তিন সদস্যকে গ্রেপ্তারও করা হয়েছে। চক্রের আরো ১৫-২০ জনের সন্ধান মিলেছে।
 কুমিল্লা সদর উপজেলার ঘিলাতলী গ্রামের মনিরুল ইসলাম চৌধুরী নামে এক ব্যক্তির খামারে হানা দিয়ে ১৬টি গরু নিয়ে যাওয়ার অভিযোগের তদন্ত করতে গিয়ে গরু চোর ও ডাকাত চক্রের সন্ধান উঠে আসে। এই চক্রের অন্যতম হোতা মোহাম্মদ আলী। তার বিরুদ্ধে কুমিল্লার সদর দক্ষিণ, চৌদ্দগ্রাম ও দেবিদ্বারে ডাকাতির প্রস্তুতি, অস্ত্র ও চুরিসহ ৬টি মামলা রয়েছে। গত বুধবার মোহাম্মদ আলী (৪০) এবং গরু চুরির পর জবাই করে মাংস বিক্রির সাথে জড়িত কসাই দুই সহোদরকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে মোহাম্মদ আলী কুমিল্লার দেবিদ্বার উপজেলার চুলাশ গ্রামের হানিফ মিয়ার ছেলে। কুমিল্লার রাজগঞ্জ বাজারের মাংস বিক্রেতা দুই সহোদর সাহিদ মিয়া (৩৫) ও মাসুম মিয়া (৩৮) কুমিল্লা নগরীর দক্ষিণ চর্থা এলাকার রুপ মিয়া।  
গতকাল বৃহস্পতিবার কুমিল্লার পুলিশ সুপার কার্যালয়ে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে কুমিল্লার পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম সাংবাদিকদের এসব তথ্য জানান।
ব্রিফিংয়ে তিনি বলেন, চুরি ও ডাকাতি চক্রের মূলহোতা আলীর নেতৃত্বে কুমিল্লাসহ এর আশপাশের জেলার বিভিন্ন স্থান থেকে চুরি ও ডাকাতি করে নিয়ে আসা গরুগুলো জবাই করে মাংস বিক্রি ছাড়াও ক্ষেত্রবিশেষ অন্যত্রও বিক্রি করে আসছে বলে গ্রেফতারকৃতরা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের স্বীকার করেন। বিভিন্ন সময় অভিনব কৌশল অবলম্বন করে ডাকাতি ও চুরি করে গুরুগুলো কাভার্ডভ্যান কিংবা পিকআপের মাধ্যমে পরিবহর করে। এই চুরির ঘটনায় গরু পরিবহনে ২/১টির বেশি ঘটনার পর আর কোন চালককে এই সম্পৃক্ত করতেন না। এই চুরি ও ডাকাতির সিন্ডিকেটের সাথে অন্তত ১৫-২০ জন ব্যক্তি জড়িত রয়েছেন। পুরো চক্রকে গ্রেফতারে জেলা পুলিশ কাজ করছে।
তিনি আরও জানান, এক দুই মাসের মধ্যে জড়িত ব্যক্তিদের আইনের আওতায় এনে গরু চুরি বন্ধ করা হবে কুমিল্লায়।
আসামীদের গ্রেফতারে ছিলেন, কুমিল্লার কোতয়ালী মডেল থানার ওসি আনোয়ারুল হক, তদন্ত পরিদর্শক বিল্লাল হোসেন ও এস আই এবিএম গোলাম কিবরিয়া।








© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
কুমিল্লার কাগজ ২০০৪ - ২০১৮
সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আবুল কাশেম হৃদয় (আবুল কাশেম হৃদয়)
নির্বাহী সম্পাদক: হুমায়ূন কবীর জীবন
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ১২২ অধ্যক্ষ আবদুর রউফ ভবন, কুমিল্লা টাউন হল গেইটের বিপরিতে, কান্দিরপাড়, কুমিল্লা ৩৫০০। বাংলাদেশ।
ফোন +৮৮ ০৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২ ৪৪৩
ই মেইল: [email protected], [email protected],  Developed by i2soft
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ আবুল কাশেম হৃদয়
নির্বাহী সম্পাদক: হুমায়ূন কবীর জীবন
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ১২২ অধ্যক্ষ আবদুর রউফ ভবন
কুমিল্লা টাউন হল গেইটের বিপরিতে, কান্দিরপাড়, কুমিল্লা ৩৫০০। বাংলাদেশ। বাংলাদেশ। ফোন +৮৮ ০৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২ ৪৪৩
ইমেইল : [email protected] Developed by i2soft
document.write(unescape("%3Cscript src=%27http://s10.histats.com/js15.js%27 type=%27text/javascript%27%3E%3C/script%3E")); try {Histats.start(1,3445398,4,306,118,60,"00010101"); Histats.track_hits();} catch(err){};