ই-পেপার ভিডিও ছবি বিজ্ঞাপন কুমিল্লার ইতিহাস ও ঐতিহ্য যোগাযোগ কুমিল্লার কাগজ পরিবার
Count
200
দাউদকান্দি ও আদ্রা নির্বাচন জামানত হারিয়েছেন বিএনপির সব প্রার্থী
Published : Thursday, 22 October, 2020 at 12:00 AM
মাসুদ আলম ||
কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলা পরিষদ নির্বাচন ও বরুড়ার আদ্রা ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে উপ-নির্বাচনে বিএনপির সব প্রার্থীর জামানত বাজেয়াপ্ত হয়েছে। সেই সাথে আদ্রায় আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীসহ দুই স্বতন্ত্র প্রার্থীও আওয়ামী লীগের মনোনিত প্রার্থীর সাথে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে গিয়ে জামানত হারিয়েছেন। নির্বাচন কমিশনের আইন অনুযায়ী প্রদত্ত ভোটের ৮ ভাগের ১ ভাগ ভোট না পাওয়ায় তাদের জামানত বাজেয়াপ্ত হয়েছে। তবে জামানত হারানো প্রার্থীদের প্রশ্ন, ভোটারবিহীন ফাঁকা কেন্দ্রে তাদের প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা কিভাবে লাখের উপর ভোট পায়?  তাদেও দাবি, শুধু কেন্দ্রে আসা ভোটারদের ভোট হিসাব করলে জয়ী হওয়া প্রার্থীও জামানত হারাবেন।   
গত মঙ্গলবার দাউদকান্দি উপজেলা পরিষদ নির্বাচন এবং বরুড়ার আদ্রা ইউনিয়নে চেয়ারম্যানসহ কুমিল্লার আরো ৭ উপজেলার ১০টি ইউনিয়নে সদস্য পদে উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। 
জেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা যায়, দাউদকান্দি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রদত্ত ১ লাখ ৫৯ হাজার ৮৪৩ ভোটের মধ্যে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মোহাম্মদ আলী সুমন ১ লাখ ৫২ হাজার ২৩০ ভোট পেয়ে জয়লাভ করেন। আর তার প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি মনোনীত ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী সাইফুল আলম ৪ হাজার ২৪১ ভোট পেয়েছেন। ভাইস চেয়ারম্যান পদে ১ লাখ ৫৯ হাজার ৮৬২ প্রদত্ত ভোটের চার প্রতিদ্বন্দ্বীর মধ্যে সবচেয়ে কম বিএনপি মনোনিত ধানের শীষের প্রার্থী রুহুল আমিন ৫ হাজার ২৮৮ ভোট পেয়েছেন। নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদে ১ লাখ ৫৯ হাজার ৩৯০ প্রদত্ত ভোটের মধ্যে বিএনপি মনোনীত ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী ফরিদা ইয়াছমিন ১০ হাজার ২৭৮ ভোট পেয়েছেন। প্রদত্ত ভোটের ৮ ভাগের ১ ভাগ ভোটও না পাওয়ায় চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান এবং নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদের তিন ক্যাটাগরিতেই জামানত বাজেয়াপ্ত হয়েছে বিএনপির প্রার্থীদের।
এদিকে কুমিল্লার বরুড়া উপজেলার আদ্রা ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে অনুষ্ঠিত উপ-নির্বাচনেও আওয়ামী লীগের প্রার্থী ছাড়া বিএনপিসহ অন্য তিন প্রার্থীরই জামানত বাজেয়াপ্ত হয়েছে। এই উপ-নির্বাচনে প্রদত্ত ১৩ হাজার ২২৭ ভোটের মধ্যে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মো. আ. করিম ১১ হাজার ৬৩৩ ভোট পেয়েছেন। তার প্রতিদ্বন্দ্বীদের মধ্যে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী (স্বতন্ত্র) আনারস প্রতীকের প্রার্থী এ. কিউ. এম. মাহফুজুর রহমান পেয়েছেন ৮৭৮ ভোট, বিএনপির ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী মো. পারভেজ হোসেন পেয়েছেন ৬৬৭ ভোট এবং স্বতন্ত্র  মোটর সাইকেল প্রতীকের প্রার্থী মোজাম্মেল হক পেয়েছেন মাত্র ৪৯ ভোট। নির্বাচন কমিশনের নিয়ম অনুযায়ী তারাও আওয়ামী লীগের প্রতিদ্বন্দ্বীদের সবাই জামানত হারিয়েছেন।
এ বিষয়ে কুমিল্লার সিনিয়র জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর হোসেনের কাছে জানতে চাইলে কুমিল্লার কাগজকে তিনি বলেন, বরুড়ার আদ্রা ইউনিয়নে বিচ্ছিন্ন কিছু ঘটনা ছাড়া দাউদকান্দি উপজেলা পরিষদ নির্বাচন এবং অন্য ৭ উপজেলার ১০ ইউনিয়নের উপ-নির্বাচনে সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোটগ্রহণ হয়েছে। তারপরও কেন প্রার্থীরা জামানত হারিয়েছেন, সেটা প্রার্থীরাই ভালো বলতে পারবেন।
তিনি বলেন, নির্বাচন সুষ্ঠু করতে স্থানীয় প্রশাসনসহ নির্বাচন কমিশন কঠোর অবস্থানে ছিল। যেমন, দাউদকান্দিতে ব্যালট পেপার ছিনতাই ও জোর করে সিল মারার অভিযোগে মালিগাঁও ও বাজারখোলা কেন্দ্রের ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়েছে।







© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
কুমিল্লার কাগজ ২০০৪ - ২০১৮
সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আবুল কাশেম হৃদয় (আবুল কাশেম হৃদয়)
নির্বাহী সম্পাদক: হুমায়ূন কবীর জীবন
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ১২২ অধ্যক্ষ আবদুর রউফ ভবন, কুমিল্লা টাউন হল গেইটের বিপরিতে, কান্দিরপাড়, কুমিল্লা ৩৫০০। বাংলাদেশ।
ফোন +৮৮ ০৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২ ৪৪৩
ই মেইল: [email protected], [email protected],  Developed by i2soft
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ আবুল কাশেম হৃদয়
নির্বাহী সম্পাদক: হুমায়ূন কবীর জীবন
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ১২২ অধ্যক্ষ আবদুর রউফ ভবন
কুমিল্লা টাউন হল গেইটের বিপরিতে, কান্দিরপাড়, কুমিল্লা ৩৫০০। বাংলাদেশ। বাংলাদেশ। ফোন +৮৮ ০৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২ ৪৪৩
ইমেইল : [email protected] Developed by i2soft
document.write(unescape("%3Cscript src=%27http://s10.histats.com/js15.js%27 type=%27text/javascript%27%3E%3C/script%3E")); try {Histats.start(1,3445398,4,306,118,60,"00010101"); Histats.track_hits();} catch(err){};