ই-পেপার ভিডিও ছবি বিজ্ঞাপন কুমিল্লার ইতিহাস ও ঐতিহ্য যোগাযোগ কুমিল্লার কাগজ পরিবার
Count
3942
মৃত্যুর পর জানা যাচ্ছে তারা করোনা আক্রান্ত ছিলেন
কুমিল্লায় নীরবে ছড়িয়ে পড়ছে সংক্রমণ
Published : Thursday, 23 April, 2020 at 11:37 PM
মৃত্যুর পর জানা যাচ্ছে তারা করোনা আক্রান্ত ছিলেন
জহির শান্ত: কুমিল্লায় নীরবে ছড়িয়ে পড়ছে করোনার সংক্রমণ। মহামারী এ ভাইরাসে আক্রান্ত হচ্ছে জেলার নানা প্রান্তের মানুষ। এরই মধ্যে প্রাণ হারিয়েছেন অনেকে। কিন্তু শঙ্কার বিষয় হলো- বেঁচে থাকতে অনেকেরই করোনা আক্রান্তের বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যায়নি। মৃত্যু ও দাফনের পর জানা যাচ্ছে কোভিড-১৯ এর ভয়াল থাবায় প্রাণ গেছে তাদের; শঙ্কায় ফেলে গেছেন পরিবার-পরিজনসহ চিকিৎসা-সেবা-জানাজা ও দাফনে অংশ নেয়া সংশ্লিষ্ট সকলকে। আর এতে করে কমিউনিটিতে নীরবেই ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস।

সর্বশেষ প্রাপ্ত তথ্যে জানা গেছে, করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া দেবীদ্বারের বাগুর গ্রামের ইউপি সদস্য শাহজালাল করোনা আক্রান্ত ছিলেন। মঙ্গলবার মারা যান তিনি। তার নমুনা পরীক্ষার ফল আসে গতকাল বৃহস্পতিবার। এছাড়া একই উপজেলার ভাণী ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল হান্নানের (৫৫) মৃত্যু ও জানাজা-দাফনের পর রিপোর্ট আসে তিনি কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত ছিলেন। 

এর আগে করোনা সংক্রমণের বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার আগেই মারা গেছেন কুমিল্লার মেঘনার লুটেরচরের মো: মকবুল ও দেবীদ্বারের নবীয়াবাদের জীবন কৃষ্ণ সাহা। পরে নমুনা পরীক্ষার ফলাফলে নিশ্চিত হওয়া যায় তারা দু’জনই করোনায় আক্রান্ত ছিলেন। এরমধ্যে মেঘনার লুটেরচরের মো: মকবুল স্থানীয়ভাবে করোনায় আক্রান্ত ছিলেন বলে জানা যায়।

মৃত্যুর পর জানা যাচ্ছে তারা করোনা আক্রান্ত ছিলেন
এদিকে দেবীদ্বারের বাগুর ( চান্দিনা বাজার সংলগ্ন) গ্রামের ইউপি সদস্য শাহজালালের মৃত্যুর পর জানাজা-দাফন ও আনুষঙ্গিক আনুষ্ঠানিকতায় অংশ নেয়াদের কারোরই সুরক্ষা সরঞ্জাম ছিলো না। তাঁর মরদেহ গোছলের কাজ করেছেন বাগুর গ্রামের ভাগিনা সোলেমান, চান্দিনা মাঠের দক্ষিণপাশের বাড়ি হাফেজ হক। জানাজা পড়িয়েছেন টাওয়ার মসজিদের ইমাম। পুরো জানাজাটি তদারকি করেছেন স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা লিটন সরকার  তিনি অবশ্য সুরক্ষা সরঞ্জাম পড়েছিলেন)। জানাজায় মৃতের ছেলেরা কোন সুরক্ষা ছাড়াই অংশ নিয়েছে। তাদের কোন মাস্কও ছিল না। দাফনের সময় যারা ছিলেন তারাও সন্দেহমুক্ত নন। প্রশাসনের লোকজনের উপস্থিতিতে জানাজা হয়েছে। সরকার নির্ধারিত নিয়ম থাকলেও সেখানে তা পুরোপুরি মানা হয়নি।

ইউপি সদস্য শাহজালা কিভাবে আক্রান্ত হলেন তা জানা যায়নি। তাঁর দুই ছেলে ও মেয়ের করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা নেওয়া হয়েছে। তবে স্থানীয়ভাবে ব্যাপক পরিচিত এই জনপ্রতিনিধি করোনা পরিস্থিতিতে ত্রাণ কার্যক্রমে ছিলেননা বলে জানা গেছে। ওই ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জানান, তাঁকে দিয়ে ত্রাণ দেওয়া হয়নি। অন্য লোকেরা ফোনের মাধ্যমে তথ্য জেনে ত্রাণ দিয়েছে। 
জানা গেছে, অসুস্থ হওয়ার পর শাহ জালাল মেম্বার চান্দিনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যান। সেখানে বহি:বিভাগ থেকে তার লক্ষণ দেখে বলা হয় দেবীদ্বার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যেতে। সেখানে ২০ এপ্রিল তার নমুনা সংগ্রহ করা হয়। ২১ এপ্রিল তিনি মারা যান। এদিন বিকালেই তাঁকে দাফন করা হয়। এ সব তথ্য জানা গেছে, মৃতের ছেলে মামুন, জানাজায় অংশ নেওয়া লিটন সরকারের কাছ থেকে। শাহ জালাল মেম্বার যে করোনা পজেটিভ ছিলেন সেটি নিশ্চিত করেন ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. শাহাদাত হোসেন ও সংক্রমণ প্রতিরোধে জেলা সমন্বয়ক ডা. নিগর্স মেরাজ চৌধুরী। 

দেবীদ্বার উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. আহম্মদ কবির জানান, সরকার নির্ধারিত নিয়মে মৃত ব্যক্তির গোছল, জানাজা, দাফন হয়েছে। দুই জন পিপিই পড়ে গোছল করান। সরকার নির্ধারিত নিয়মে জানাজা হয়। তাদের বাড়ি লকডাউন করা আছে।
মৃতের ছেলে মামুন জানান, লকডাউনের পর তাদের কেউ খোঁজ নেয় নি। খাবার সঙ্কটের কথা কেউ জিজ্ঞাসা করেনি।
অপরদিকে একই উপজেলার ১২নং ভানী ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল হান্নান(৫৫) করোনায় আক্রান্ত হয়ে মঙ্গলবার বিকেল ৫টায় তার ঢাকাস্থ নিজ বাসায় ইন্তেকাল করেছেন। মঙ্গলবার রাত ১১টায় দেবীদ্বার উপজেলার সাইতলা নিজ গ্রামে দাফন সম্পন্ন করা হয়।

তার ঘনিষ্ঠ স্বজন উপজেলার কটকসার গ্রামের অধিবাসী এবং কটকসার মাদ্রাসা পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি ও বিআইডব্লিউটিএ’র অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুল খালেক জানান, আব্দুল হান্নান দির্ঘদিন যাবত এজমা, লিবার, ডায়েবেটিস সমস্যায় ভোগছিলেন। তিনি গত কয়েকদিন যাবত জ¦র, সর্দি, কাসী,গলা ব্যাথা ও শ^াস কষ্টে ভোগছিলেন, করোনা উপস্বর্গ সন্দেহে ৩ মেয়ে ও ১ছেলেকে অন্যত্র সরিয়ে রাখেন। বাসায় তার স্ত্রীকে নিয়ে থাকতেন। গত রোববার স্বামী- স্ত্রী দু’জনেরই করোনা পরীক্ষার জন্য বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নমুনা প্রেরন করেন। মৃত্যুর পর ঢাকা থেকে এ্যাম্বুঈলেন্স যোগে তার মরদেহ দেবীদ্বারে আনার সময় করোনা রিপোর্ট তাদের হাতে আসে। এতে হান্নান চেয়ারম্যানের করোনা পজেটিভ হলেও তার স্ত্রীর করোনা নেগেটিভ আসে। পরে তার স্বজনেরা কঠোর নিরাপত্তায় সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে রাত ১১টায় দাফন দাফন সম্পন্ন করেন।






© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
কুমিল্লার কাগজ ২০০৪ - ২০১৮
সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আবুল কাশেম হৃদয় (আবুল কাশেম হৃদয়)
নির্বাহী সম্পাদক: হুমায়ূন কবীর জীবন
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ১২২ অধ্যক্ষ আবদুর রউফ ভবন, কুমিল্লা টাউন হল গেইটের বিপরিতে, কান্দিরপাড়, কুমিল্লা ৩৫০০। বাংলাদেশ।
ফোন +৮৮ ০৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২ ৪৪৩
ই মেইল: [email protected], [email protected],  Developed by i2soft
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ আবুল কাশেম হৃদয়
নির্বাহী সম্পাদক: হুমায়ূন কবীর জীবন
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ১২২ অধ্যক্ষ আবদুর রউফ ভবন
কুমিল্লা টাউন হল গেইটের বিপরিতে, কান্দিরপাড়, কুমিল্লা ৩৫০০। বাংলাদেশ। বাংলাদেশ। ফোন +৮৮ ০৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২ ৪৪৩
ইমেইল : [email protected] Developed by i2soft
document.write(unescape("%3Cscript src=%27http://s10.histats.com/js15.js%27 type=%27text/javascript%27%3E%3C/script%3E")); try {Histats.start(1,3445398,4,306,118,60,"00010101"); Histats.track_hits();} catch(err){};