ই-পেপার ভিডিও ছবি বিজ্ঞাপন কুমিল্লার ইতিহাস ও ঐতিহ্য যোগাযোগ কুমিল্লার কাগজ পরিবার
Count
322
দেবিদ্বারে আউয়াল হত্যাকাণ্ডে পিতাপুত্র গ্রেফতার
আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি-------
Published : Tuesday, 24 March, 2020 at 12:00 AM, Update: 24.03.2020 3:39:11 AM

দেবিদ্বারে আউয়াল হত্যাকাণ্ডে পিতাপুত্র গ্রেফতার শাহীন  আলম, দেবিদ্বার ||
কুমিল্লার দেবিদ্বারে স্কুলছাত্রীকে উত্যক্তের প্রতিবাদে ডাকা সালিশ বৈঠকে কাঁচামাল ব্যবসায়ী আবদুল আউয়াল হত্যাকা-ে জড়িত আরও পিতা-পুত্রকে গ্রেফতার করেছে দেবিদ্বার থানা পুলিশ। গত রবিবার দিবাগত রাতে  দেবিদ্বার থানার উপ-পরিদর্শক মো. আবদুস সালামের নেতৃত্ব একদল পুলিশ ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলা ও কুমিল্লার তিতাস উপজেলায় পৃথক দুটি অভিযানে তাদের আটক করা হয়। আটকৃতরা হলো, পিতা জাফরগঞ্জ ইউনিয়নের রুঘুরামপুর গ্রামের মৃত সৈয়দ আলীর ছেলে মো. জাকির খাঁন (৩৮) এবং তার ছেলে মো. শাকিল খাঁন (২২)। তারা উভয়ই আবদুল আউয়াল হত্যাকা-ে জড়িত বলে প্রথমে পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে দোষ স্বীকার ও পরে কুমিল্লা বিজ্ঞ আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্ধী দেন। এর আগে আউয়াল হত্যাকা-ে জড়িত থাকার দায়ে (১৩মার্চ) শুক্রবার বিকালে মো.সিদ্দিকুর রহমান ও আজিজুর রহমান আকিজ নামে দুইজনকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে কুমিল্লা জেল হাজতে প্রেরণ করেন দেবিদ্বার থানা পুলিশ। এ নিয়ে আউয়াল হত্যাকা-ে জড়িত চার আসামীকে গ্রেফতার করল থানা পুলিশ। মামলা ও থানা সূত্রে জানা যায়, নিহত আবদুল আউয়াল হত্যাকা-ে জড়িত মো. জাকির খাঁন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলার  বনমোড়া গ্রামে তার এক পীর ভাইয়ের ওখানে আত্মগোপন করেন। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে দেবিদ্বার থানার উপ-পরিদর্শক মো. আবদুস সালাম সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে অভিযান চালিয়ে জাকিরকে আটক করেন। পরে তার দেওয়া তথ্যেমতে তার ছেলে শাকিলকে তিতাস উপজেলার গোপালপুর গ্রামের তার শ^শুড় বাড়ি থেকে আটক করা হয়। দেবিদ্বার থানার ওসি মো. জহিরুল আনোয়ার বলেন, আউয়াল হত্যাকা-ে জড়িত আরও দুই আসামী মো. জাকির খান ও মো. শাকিল খান নামে পিতাপুত্রকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তারা বিজ্ঞ আদালতে ১৬৪ ধারা জবানবন্ধী দিয়েছে। তাদের উভয়কে বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে কুমিল্লা জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।
প্রসঙ্গত, গত  (১২ মার্চ) বৃহস্পতিবার রাতে এক স্কুলছাত্রীকে উত্যক্তের প্রতিবাদে সালিশ বৈঠকে কুপিয়ে হত্যা সবজি বিক্রতা আবদুল আউয়ালকে। নিহত আবদুল আউয়াল জাফরগঞ্জ ইউনিয়নের রঘুরামপুর গ্রামের ধুনু মিয়ার ছেলে এবং ওই স্কুলছাত্রীর জেঠাতো ভাই। সে পেশায় সবজি বিক্রিতা ছিলেন। এ ঘটনায় আরও চারজন গুরুতর আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় দেবিদ্বার থানায় উত্যক্তকারী আসলামসহ ১২ জনের নাম উল্লেখ করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন নিহত আবদুল আউয়ালের চাচা মো. আবদুস সাত্তার।










© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
কুমিল্লার কাগজ ২০০৪ - ২০১৮
সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আবুল কাশেম হৃদয় (আবুল কাশেম হৃদয়)
নির্বাহী সম্পাদক: হুমায়ূন কবীর জীবন
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ১২২ অধ্যক্ষ আবদুর রউফ ভবন, কুমিল্লা টাউন হল গেইটের বিপরিতে, কান্দিরপাড়, কুমিল্লা ৩৫০০। বাংলাদেশ।
ফোন +৮৮ ০৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২ ৪৪৩
ই মেইল: [email protected], [email protected],  Developed by i2soft
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ আবুল কাশেম হৃদয়
নির্বাহী সম্পাদক: হুমায়ূন কবীর জীবন
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ১২২ অধ্যক্ষ আবদুর রউফ ভবন
কুমিল্লা টাউন হল গেইটের বিপরিতে, কান্দিরপাড়, কুমিল্লা ৩৫০০। বাংলাদেশ। বাংলাদেশ। ফোন +৮৮ ০৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২ ৪৪৩
ইমেইল : [email protected] Developed by i2soft
document.write(unescape("%3Cscript src=%27http://s10.histats.com/js15.js%27 type=%27text/javascript%27%3E%3C/script%3E")); try {Histats.start(1,3445398,4,306,118,60,"00010101"); Histats.track_hits();} catch(err){};