ই-পেপার ভিডিও ছবি বিজ্ঞাপন কুমিল্লার ইতিহাস ও ঐতিহ্য যোগাযোগ কুমিল্লার কাগজ পরিবার
Count
815
বাংলাদেশে স্বাধীনতাবিরোধী কোন দল থাকতে পারবে না---শেখ সেলিম
Published : Tuesday, 10 December, 2019 at 12:00 AM, Update: 10.12.2019 2:19:57 AM
বাংলাদেশে স্বাধীনতাবিরোধী কোন দল থাকতে পারবে না---শেখ সেলিমরণবীর ঘোষ কিংকর: বাংলাদেশে কোন স্বাধীনতা বিরোধী দল থাকতে পারবে না বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ প্রেসিডিয়াম সদস্য বঙ্গবন্ধুর ভাগ্নে শেখ ফজলুল করিম সেলিম এমপি।
তিনি আরও বলেন- বাংলার মাটিতে জিয়াউর রহমান ও খুনি মোস্তাকেরা বঙ্গবন্ধুকে মেরে স্বাধীনতার স্বপক্ষে ও বিপক্ষের শক্তি বানিয়েছে। এই বাংলার মাটিতে স্বাধীনতার বিপক্ষের কোন শক্তি থাকতে পারবে না। বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতাবার্ষিকী থেকে শুরু করে স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীর মধ্যে স্বাধীনতার বিপক্ষ শক্তি যাতে থাকতে না পারে সেই ব্যবস্থা আপনাদের নিশ্চিত করতে হবে।
সোমবার (৯ ডিসেম্বর) দুপুরে কুমিল্লার চান্দিনা মহিলা বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ মাঠে কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।
শেখ সেলিম বলেন- ‘বঙ্গবন্ধুর হত্যায় সরাসরি জড়িত ছিলেন জিয়া। আজ যদি তিনি বেঁচে থাকতেন তাহলে অন্যান্য খুনিদের মতো তারও ফাঁসি হতো। মৃত মানুষের বিচার হয় না। এজন্য জিয়া-মোস্তাকদেরও বিচার হয়নি। তবে যদি বেঁচে থাকতেন অবশ্যই বিচার হতো, ফাঁসি হতো।
জিয়া বাংলাদেশের নাগরিক ছিলেন নাÑ উল্লেখ করে শেখ সেলিম বলেন, ‘জিয়ার জন্ম পাকিস্তানে। তার বাবা-মা’র কবরও পাকিস্তানে। তিনি পাকিস্তানের ঠিকানাতেই সেনাবাহিনীতে যোগ দিয়েছেন। আর যুদ্ধ করেছেন পাকিস্তানের ‘স্পাই’ হয়ে।’
শেখ সেমিল আরও বলেন- ‘৭১ সালের ৫ মে মেজর আসলাম বেগ চিঠি দিয়ে জিয়াকে লিখেন- “তোমার স্ত্রী ও সন্তানদের কোন চিন্তা করো না, তোমার কর্মকান্ডে আমরা খুশি। তোমাকে নতুন কাজ দেওয়া হবে। তুমি মেজর জলিল থেকে সাবধান থেকো’। ওই চিঠির মানে কি দাঁড়ায়? তিনি স্পাইং করতেছিলেন, মুক্তিযোদ্ধাদের খবরাখবর তিনি পাকিস্তানে পাঠাচ্ছিলেন।’
বঙ্গবন্ধুর স্মৃতিচারণ করে বলেন- জাতির জনক বঙ্গবন্ধু দেশের মাটি ও মানুষকে ভালবেসেই বেঁচে থাকতে চেয়েছিলেন। কারাবাস করাকালে অন্যান্য কারা কয়েদিদের সাথে তিনিও সুতা তৈরির কাজ করেছিলেন। হাজার বছরের পরাধীন দেশকে স্বাধীন করে বাঙ্গালী জাতিকে লাল সবুজের পতাকা এনে দিয়েছিলেন।
সম্মেলনে বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সাবেক আইন মন্ত্রী এড. আব্দুল মতিন খসরু বলেন- ‘খুনি জিয়া, মোস্তফা ও রশিদরা ভেবেছিল বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করলে আওয়ামীলীগ শেষ হয়ে যাবে। কিন্তু আওয়ামীলীগ শেষ হয় নাই। তিন মাস পর দেখা গেছে আওয়ামীলীগ আরও শক্তিশালী হচ্ছে। তখন আমাদের জাতীয় চার নেতাকে জেলে খুন করলেন। কিন্তু বঙ্গবন্ধুর সংগঠন আওয়ামীলীগ প্রমাণ করেছে যে, জীবিত শেখ মুজিব থেকে মৃত শেখ মুজিব আরও বেশি শক্তিশালী। বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ শেষ হওয়ার নয়। দিনে দিনে আওয়ামীলীগ আরও বেশি শক্তিশালী হচ্ছে।
বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম হানিফ এমপি বলেন, স্বাধীনতার বিপক্ষের শক্তি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যা করতে ১৯ বার চেষ্টা করেছে। একের পর এক খুন করে খুনির দল হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছে বিএনপি। বাংলাদেশের মানুষ শান্তি চায়। দেশে অশান্তি ও অস্থিতিশীল রাষ্ট্রে পরিণত করতে দেওয়া হবে না।
এর আগে বেলা সাড়ে ১১টায় জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে সম্মেলনের উদ্বোধন করেন প্রধান অতিথি শেখ সেলিম এমপি।
কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আব্দুল আউয়াল সরকারের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ চট্টগ্রাম বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও পানি সম্পদ উপ-মন্ত্রী একেএম এনামূল হক শামীম এমপি, ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক ইঞ্জি. আবদুস সবুর।
অন্যান্যদের মধ্যে বক্তৃতা করেন সাবেক ডেপুটি স্পিকার অধ্যাপক মো. আলী আশরাফ এমপি, মেজর জেনারেল (অব.) সুবিদ আলী ভূইয়া এমপি, ইউসুফ আব্দুল্লাহ হারুন এমপি, সেলিমা আহমাদ মেরী এমপি, রাজি মোহাম্মদ ফখরুল মুন্সি এমপি প্রমুখ।
সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির সদস্য সচিব অধ্যক্ষ এম. হুমায়ূম মাহমুদ এর সঞ্চালনায় শোক প্রস্তাব পাঠ করেন কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামীলীগ সহ-সভাপতি এড. নিজামুল হক, সাংগঠনিক প্রতিবেদন পাঠ করেন  কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম সরকার।
সম্মেলনে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামীলীগ সহ-সভাপতি ও সংরক্ষিত মহিলা সংসদ সদস্য সেলিনা ইসলাম সিআইপি, কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামীলীগ সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহবায়ক ম. রুহুল আমিন, জেলা আওয়ামীলীগ যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রোশন আলী মাস্টার, মুনতাকিম আশরাফ টিটু, সাংগঠনিক সম্পাদক বাদল রায়, চান্দিনা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা তপন বক্সী, চান্দিনা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট মহিউদ্দিন আহমেদ আলম, কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামীলীগ স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক পৌর মেয়র মফিজুল ইসলাম, জেলা আওয়ামীলীগ সদস্য আবুল কালাম আজাদ, কুমিল্লা উত্তর জেলা যুবলীগ আহবায়ক বাহার উদ্দিন বাহার, কুমিল্লা উত্তর জেলা মহিলা আওয়ামীলীগ সভানেত্রী শিরীন সুলতানা, কুমিল্লা উত্তর জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ যুগ্ম আহবায়ক মামুনুর রশিদ সরকার, সদস্য সচিব ড. আহসানুল আলম কিশোর, কুমিল্লা  উত্তর জেল ছাত্রলীগ সভাপতি আবু কাউসার অনিক সহ চান্দিনা, দেবীদ্বার, দাউদকান্দি, মেঘান, হোমনা, তিতাস ও মুরাদনগর উপজেলা আওয়ামীলীগ ও সহযোগি সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।
সম্মেলনে সকল উপজেলার কাউন্সিলরদের নাম না থাকায় কমিটি ঘোষণা ছাড়াই সম্মেলন স্থল ত্যাগ করেন অতিথিবৃন্দ।





© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
কুমিল্লার কাগজ ২০০৪ - ২০১৮
সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আবুল কাশেম হৃদয় (আবুল কাশেম হৃদয়)
নির্বাহী সম্পাদক: হুমায়ূন কবীর জীবন
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ১২২ অধ্যক্ষ আবদুর রউফ ভবন, কুমিল্লা টাউন হল গেইটের বিপরিতে, কান্দিরপাড়, কুমিল্লা ৩৫০০। বাংলাদেশ।
ফোন +৮৮ ০৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২ ৪৪৩
ই মেইল: [email protected], [email protected],  Developed by i2soft
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ আবুল কাশেম হৃদয়
নির্বাহী সম্পাদক: হুমায়ূন কবীর জীবন
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ১২২ অধ্যক্ষ আবদুর রউফ ভবন
কুমিল্লা টাউন হল গেইটের বিপরিতে, কান্দিরপাড়, কুমিল্লা ৩৫০০। বাংলাদেশ। বাংলাদেশ। ফোন +৮৮ ০৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২ ৪৪৩
ইমেইল : [email protected] Developed by i2soft
document.write(unescape("%3Cscript src=%27http://s10.histats.com/js15.js%27 type=%27text/javascript%27%3E%3C/script%3E")); try {Histats.start(1,3445398,4,306,118,60,"00010101"); Histats.track_hits();} catch(err){};