ই-পেপার ভিডিও ছবি বিজ্ঞাপন কুমিল্লার ইতিহাস ও ঐতিহ্য যোগাযোগ কুমিল্লার কাগজ পরিবার
Count
237
দূষণ: দিল্লিতে টাইগারদের আরেক প্রতিপক্ষ
Published : Saturday, 2 November, 2019 at 12:00 AM, Update: 02.11.2019 1:43:25 AM

দূষণ: দিল্লিতে টাইগারদের আরেক প্রতিপক্ষবিডিনিউজ: শীত নামছে। তার আগমনী বার্তা সুস্পষ্ট। প্রকৃতির এই রূপবদল বিপদ ডেকে এনেছে ভারতের রাজধানীবাসীর জন্য। আশেপাশের দুই রাজ্যে নাড়া পোড়ানোয় যেন গ্যাস চেম্বারে পরিণত হয়েছে দিল্লি। শক্তিশালী ভারতের বিপক্ষে খেলতে এসে এখন আরেক প্রতিপক্ষের সঙ্গে লড়তে হচ্ছে বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের। অরুণ জেটলি স্টেডিয়ামে রোববার স্থানীয় সময় সন্ধ্যা সাতটায় শুরু হবে ভারত ও বাংলাদেশের প্রথম টি-টোয়েন্টি।
দিল্লির আকাশে মেঘ নেই। তবুও দেখা যাচ্ছে না আকাশ। বাতাস একদম স্থির। ভারী বাতাসে শ্বাস নেওয়াই কঠিন। শোনা যাচ্ছে এলার্ট জারির খবর। শীতের সময় দূষণের তীব্রতা বাড়ে দিল্লিতে। স্থায়ী বাসিন্দাদেরও অসহনীয় ঠেকে এই সময়ে। সেখানে সফরকারী একটি দলের কী হাল হতে পারে, সহজেই অনুমেয়। বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের অনুশীলন দেখে কিছুটা আভাস পাওয়া গেল।
বৃহস্পতিবার অনুশীলনের সময় কেবল লিটন দাস মাস্ক পরেছিলেন। শুক্রবার আরও কয়েকজন খেলোয়াড় ক্যাচিং অনুশীলন করলেন মাস্ক পরে। প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গো, স্পিন বোলিং কোচ ড্যানিয়েল ভেটোরি, ফিল্ডিং কোচ রায়ান কুক ও ব্যাটিং কোচ নিল ম্যাকেঞ্জি সারাক্ষণ মাস্ক পরে ছিলেন।
মুখে মাস্ক পরে অনুশীলনের সঙ্গে বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা একেবারেই পরিচিত নন। তাদের ও ভারতের ক্রিকেটারদের জন্য শঙ্কা জানিয়ে টুইট করেছেন সাবেক স্পিনার বিষেণ সিং বেদি।
গৌতম গম্ভীর অবশ্য এই খেলায় কি প্রভাব পড়বে না পড়বে, এই ম্যাচ হবে না হবে তা নিয়ে ভাবছেন না। ভারতের সাবেক এই ওপেনার ও বর্তমানে সংসদ সদস্য দিল্লির এই সমস্যার স্থায়ী সমাধান চান।
২০১৭ সালের ডিসেম্বরে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট চলার সময় বায়ু দূষণের ব্যাপারটি ক্রিকেট বিশ্বকে নাড়া দেয়। এক পর্যায়ে বোলিং করত পারছিলেন না সফরকারী দলের পেসাররা। কিছুক্ষণ খেলা বন্ধও থাকে। তারপর থেকে বায়ু দুষণ বাড়ার সময়টায় ম্যাচ আয়োজন না করার সিদ্ধান্ত হয়।
এক বছর পরেই সেই সিদ্ধান্ত থেকে সরে গেল ভারত। বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টি আয়োজন হতে যাচ্ছে ফিরোজ শাহ কোটলায়।
নভেম্বরের শুরুতে ধীরে ধীরে বাড়ছে শীত। কুয়াশা পড়তে শুরু করায় পরিস্থিতি হয়ে গেছে সঙ্গীন। এর সঙ্গে লড়াই করার জন্য খুব বেশি অস্ত্র নেই। মুখে মাস্ক পড়ে পরিস্থিতির সঙ্গে মানিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছেন ক্রিকেটাররা। দৃষ্টি সীমা অনেক কমে গেলেও স্থানীয় সময় সন্ধ্যা সাতটায় ম্যাচ শুরু হওয়ায় কৃত্রিম আলোয় অতোটা হয়তো নেতিবাচক প্রভাব পড়বে না।
আবহাওয়া দপ্তর থেকে নেই কোনো সুখবর। আগামী কয়েক দিনে পরিস্থিতির উন্নতির কোনো আভাস নেই। বাংলাদেশ চেষ্টা করছে যতটা সম্ভব মানিয়ে নিয়ে ভালো একটা শুরু পেতে।

স্থানীয় সাংবাদিকদের বিস্ময়:
'টাইমস অব ইন্ডিয়া' এর সাংবাদিক বিস্মিত দিওয়ালির এক সপ্তাহ পরে দিল্লিতে ম্যাচ আয়োজনের অনুমতি পাওয়ায়।
“২০১৭ সালে ভারত-শ্রীলঙ্কার দিল্লি টেস্টের দ্বিতীয় এবং তৃতীয় দিন সমস্যা বাড়ে। বিরাট কোহলি দুশো বা আড়াইশতে ব্যাট করছিল। হঠাৎ করে দেখা যায় শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটাররা বমি করতে শুরু করে। দর্শকরা তখন ভেবেছিল শ্রীলঙ্কা বিলম্ব করার জন্য ওসব করছিল।”
“বোলিং করতে যে অসুবিধা নেই দেখানোর জন্য ইনিংস ঘোষণা করে দেয় বিরাট কোহলি। মোহাম্মদ শামি দুই-তিন ওভার করার পর বমি করে। সময়টা ভীষণ খারাপ ছিল।”
“যখন ম্যাচ দেওয়া হয়েছিল তখন সব বিভাগ থেকে ছাড়পত্র নেওয়া হয়েছিল। দিওয়ালির এক সপ্তাহ পর খেলা সম্ভব বলে অনুমতি দিয়েছিল। প্র্যাকটিক্যালি ভাবা উচিৎ ছিল।"
প্রেস ট্রাস্ট অব ইন্ডিয়ার কুশান সরকার মনে করেন, এই সময়ে দিল্লিতে খেলা দেওয়া একদমই উচিত হয়নি।
“একশবার এ ম্যাচটা অন্যখানে দেওয়া উচিত ছিল। যারা এই সূচি তৈরি করেছিলেন তাদের বোঝা উচিত ছিল দিওয়ালির পর দিল্লির আবহাওয়া কেমন থাকে। এমন তো নয়, নতুন সমস্যা এটা। জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারি ছাড়া দিল্লিতে ম্যাচ দেওয়া উচিত নয়। নিশ্চয় এটা বাংলাদেশ ভারত সব খেলোয়াড়দের জন্য ক্ষতিকারক।”
ক্রিকেট বিষয়ক ওয়েবসাইট ইএসপিএন ক্রিকইনফোর সিদ্ধার্থ মঙ্গাও বিস্মিত দূষণ বাড়ার সময়ে দিল্লিতে খেলা দেওয়ায়।
“এখানে যে মাত্রায় দুষণ দেখতে পাচ্ছি তাতে করে খেলায় প্রভাব পড়বেই। আমরা খুবই বিস্মিত যে তারা জানে এই সময়ে বায়ু দূষণের মতো সমস্যা দিল্লিতে হয়। এরপরও কেন ম্যাচটা দিল বুঝতে পারছি না। সমস্যা হলো টিকেট বিক্রি হয়ে যাওয়ার পর এই পরিরবর্তন করা সম্ভব না।”
বৃহস্পতিবার অনুশীলনে বেগ পেতে হয়েছে ক্রিকেটারদের। পরিস্থিতির সঙ্গে কিছুটা মানিয়ে নিয়েছেন তারা।







© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
কুমিল্লার কাগজ ২০০৪ - ২০১৮
সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আবুল কাশেম হৃদয় (আবুল কাশেম হৃদয়)
নির্বাহী সম্পাদক: হুমায়ূন কবীর জীবন
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ১২২ অধ্যক্ষ আবদুর রউফ ভবন, কুমিল্লা টাউন হল গেইটের বিপরিতে, কান্দিরপাড়, কুমিল্লা ৩৫০০। বাংলাদেশ।
ফোন +৮৮ ০৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২ ৪৪৩
ই মেইল: [email protected], [email protected],  Developed by i2soft
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ আবুল কাশেম হৃদয়
নির্বাহী সম্পাদক: হুমায়ূন কবীর জীবন
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ১২২ অধ্যক্ষ আবদুর রউফ ভবন
কুমিল্লা টাউন হল গেইটের বিপরিতে, কান্দিরপাড়, কুমিল্লা ৩৫০০। বাংলাদেশ। বাংলাদেশ। ফোন +৮৮ ০৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২ ৪৪৩
ইমেইল : [email protected] Developed by i2soft
document.write(unescape("%3Cscript src=%27http://s10.histats.com/js15.js%27 type=%27text/javascript%27%3E%3C/script%3E")); try {Histats.start(1,3445398,4,306,118,60,"00010101"); Histats.track_hits();} catch(err){};