ই-পেপার ভিডিও ছবি বিজ্ঞাপন কুমিল্লার ইতিহাস ও ঐতিহ্য যোগাযোগ কুমিল্লার কাগজ পরিবার
Count
264
মহাসড়কে যানজট সৃষ্টির অন্যতম কারণ অবৈধ পার্কিং
Published : Wednesday, 29 May, 2019 at 12:00 AM
রণবীর ঘোষ কিংকর।
এবার দীর্ঘ নয় দিনের ছুটি নিয়ে পরিবারের সাথে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করতে নাড়ির টানে বাড়ি ফিরতে কর্মস্থল ছাড়বে মানুষ। মূলত ঈদের ছুটি জুন মাসের ৪ তারিখ থেকে শুরু হলেও ক্যালেন্ডারের পাতায় ৩১ মে শুক্রবার ও ১ জুন শনিবার সাপ্তাহিক ছুটি এবং রবিবার সবে-ই কদরের ছুটি যুক্ত হওয়ায় পুরো সপ্তাহ কাটবে ছুটিতে। যারফলে ৩০ মে বৃহস্পতিবার দুপুরের পর থেকে ঘর মুখো যাত্রীদের ভীড় বাড়তে পারে।

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে দুর্ভোগের নাম যানজট। দীর্ঘ বছরের পর বছর এমন দুর্ভোগই অতিক্রম করে আসছে এ মহাসড়কে চলাচলরত যাত্রীরা। আর ঈদ মৌসুম আসলে তো আর কথাই নেই। বিশেষ করে মহাসড়কের দাউকান্দি টোল প্লাজা থেকে শুরু করে কাঁচপুর পর্যন্ত অসহ্য যানজট।
ব্যস্ততম ওই ফোর লেন মহাসড়কের সাথে যুক্ত হওয়া মেঘনা-গোমতি সেতু দুইটির কাজ ইতিমধ্যে শেষ হওয়ায় যানজট নিরসনের লক্ষ্যে ২৫ মে খুলে দেওয়া হয় গুরুত্বপূর্ণ ওই সেতুগুলো। সড়ক বিভাগ, গাড়ি চালক ও যাত্রীসহ সংশ্লিষ্টদের মতে ওই সেতু দুইটি চালু হওয়ার পর এবার যানজট ছাড়াই অনায়াসে যাতায়াত করবে যাত্রীরা। এমনটাই প্রত্যাশা সকলের।

কিন্তু মহাসড়কের স্টেশন এলাকাগুলোতে লেগুনা-মারুতির অবৈধ স্টেশন, যত্রতত্র গাড়ির টিকেট কাউন্টার এবং নির্ধারিত স্থানে গাড়ি পার্কিং না করে সড়কের উপর যাত্রী উঠানামা করার কারণে সৃষ্টি হতে পারে বড় ধরণের যানজট। আর ওই যানজটে যাত্রীদের চরম দুর্ভোগের শঙ্কাও বিরাজ করছে।

পুলিশের উদাসিনতায় এবং গাড়ি চালক ও সংশ্লিষ্টদের কান্ডজ্ঞান হীনতায় কুমিল্লার চান্দিনা ও মাধাইয়া বাজার স্টেশন এলাকা সহ বুড়িচং উপজেলার নিমসারের কাঁচাবাজার এলাকায় যানজট যেন নিত্য সঙ্গী।

মহাসড়কের দুই পাশে ‘বাস বে’ লেখা সম্বলিত এবং উচু ডিভাইডারে গাড়ি পার্কিং এর নির্ধারিত স্থান থাকলেও সেই পার্কিং স্থানটি দখল করে আছে লেগুনা-মারুতি এবং অটোরিক্সা। অপরদিকে পুলিশের তৎপরতা না থাকায় গাড়ি চালকরাও মহাসড়কের উপরে গাড়ি থামিয়ে যাত্রী উঠা-নামা করতে দেখা যাচ্ছে।  যে কোন একটি গাড়ি মহাসড়কের উপর থামিয়ে যাত্রী উঠানামা করলেই পিছনে দীর্ঘ হতে শুরু করে অন্যান্য যানবাহনের জট।

একাধিক বাস চালকের সাথে কথা বলে জানা যায়, পার্কিং এর নির্ধারিত স্থান দখল করে আছে ব্যাটারী চালিত অটোরিক্সা, লেগুনা ও মারুতির স্টেশন। যারফলে পার্কিং এর নির্ধারিত স্থানের ধারে কাছেও আমাদের গাড়ি নিয়ে যেতে পারি না। অপর দিকে টিকেট কাউন্টার গুলোও রয়েছে এলোমেলো। যারফলে যেখানে সুযোগ পাই সেখানেই গাড়ি থামাই।

এ ব্যাপারে হাইওয়ে পুলিশ কুমিল্লা অঞ্চলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রহমত উল্লাহ জানান, বাস স্টেশন এলাকাগুলো যখনই পুলিশের উপস্থিতি দেখে তখনই ফাঁকা হয়। পুলিশ চলে গেলে আবারও একই অবস্থা সৃষ্টি হচ্ছে। ঈদে স্টেশন এলাকাগুলোকে যানজট মুক্ত রাখতে ‘বাস বে’ গুলোতে অবৈধ স্ট্যান্ড উচ্ছেদ করা হবে এবং নির্ধারিত স্থানে গাড়ি থামিয়ে যাত্রী উঠা-নামা করার জন্য প্রতিটি স্টেশন এলাকায় পুলিশের পক্ষ থেকে সার্বক্ষনিক মাইকিং করা হবে।



 







© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
কুমিল্লার কাগজ ২০০৪ - ২০১৮
সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আবুল কাশেম হৃদয় (আবুল কাশেম হৃদয়)
নির্বাহী সম্পাদক: হুমায়ূন কবীর জীবন
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ১২২ অধ্যক্ষ আবদুর রউফ ভবন, কুমিল্লা টাউন হল গেইটের বিপরিতে, কান্দিরপাড়, কুমিল্লা ৩৫০০। বাংলাদেশ।
ফোন +৮৮ ০৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২ ৪৪৩
ই মেইল: [email protected], [email protected],  Developed by i2soft
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ আবুল কাশেম হৃদয়
নির্বাহী সম্পাদক: হুমায়ূন কবীর জীবন
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ১২২ অধ্যক্ষ আবদুর রউফ ভবন
কুমিল্লা টাউন হল গেইটের বিপরিতে, কান্দিরপাড়, কুমিল্লা ৩৫০০। বাংলাদেশ। বাংলাদেশ। ফোন +৮৮ ০৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২ ৪৪৩
ইমেইল : [email protected] Developed by i2soft
document.write(unescape("%3Cscript src=%27http://s10.histats.com/js15.js%27 type=%27text/javascript%27%3E%3C/script%3E")); try {Histats.start(1,3445398,4,306,118,60,"00010101"); Histats.track_hits();} catch(err){};