ই-পেপার ভিডিও ছবি বিজ্ঞাপন কুমিল্লার ইতিহাস ও ঐতিহ্য যোগাযোগ কুমিল্লার কাগজ পরিবার
Count
1335
খসরুকে বিজয়ী করতে একাট্টা আওয়ামী লীগ
কুমিল্লা-৫ (বুড়িচং-ব্রাহ্মণপাড়া)
Published : Monday, 24 December, 2018 at 11:37 PM
খসরুকে বিজয়ী করতে একাট্টা আওয়ামী লীগজহির শান্ত: একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কুমিল্লা-৫ (বুড়িচং-ব্রাহ্মণপাড়া) আসনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ও দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য এড. আবদুল মতিন খসরুকে বিজয়ী করতে একাট্টা হয়ে মাঠে নেমেছে আওয়ামী লীগ। চলছে বিরামহীন প্রচারণা। ভোটারদের দ্বারে-দ্বারে ছুটছেন দলের নেতাকর্মী ও সমর্থকরা। দু’টি উপজেলার আওয়ামী লীগ নেতাদের একটাই চাওয়া- সাবেক আইনমন্ত্রীর হ্যাট্টিক বিজয়।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে কুমিল্লা-৫ আসনে আওয়ামী লীগের একাধিক মনোনয়ন প্রত্যাশী থাকলেও আবদুল মতিন খসরু দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার পর থেকে সকলেই ঐক্যবদ্ধ হয়ে পড়েন। আনুষ্ঠানিকভাবে প্রচারণা শুরুর পর থেকেই বুড়িচং ও ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ তাঁকে বিজয়ী করতে একাট্টা হয়ে মাঠে নামেন। বিরামহীনভাবে প্রচারণা ও গণসংযোগ চালাতে থাকেন তারা। ছুটছেন সংসদীয় আসনটির এ প্রান্ত থেকে ও প্রান্ত। 

তবে এ আসনে বিএনপির প্রার্থী ও সাবেক এমপি অধ্যাপক ইউনুসের তেমন কোনো তৎপরতা চোখে পড়েনি। এছাড়া তার প্রার্থীতা নিয়েও দলে তৈরি হয়েছে বিভক্তি। বিএনপির কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান শওকত মাহমুদ দীর্ঘ ৯ বছর যাবৎ আসনটির সাংগঠনিক সমন্বয়কের দায়িত্বে থাকলেও নির্বাচন ঘিরে হঠাৎ মাঠে তৎপর হওয়া ইউনুসকেই দেয়া হয় দলীয় মনোনয়ন। এতে করে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ান শওকত সমর্থক নেতাকর্মীরা। ফলে দ্বন্দ্ব-কোন্দল সামলে মাঠে নিজেদের অবস্থান জানান দিতে পারেনি বিএনপি।

খসরুকে বিজয়ী করতে একাট্টা আওয়ামী লীগঅপরদিকে ঐক্যবদ্ধ আওয়ামী লীগ নেতা-কর্মীদের সাথে নিয়ে আবদুল মতিন খসরু ছুটে বেড়াচ্ছেন দ্বিগুণ উচ্ছ্বাসে। গণসংযোগের পাশাপাশি অংশ নিচ্ছেন বিভিন্ন এলাকায় আয়োজিত উঠান বৈঠক ও নির্বাচনী সভায়। দিচ্ছেন নানা প্রতিশ্রুতি। অসমাপ্ত কাজ সমাপ্ত করতে এবং উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষায় ভোট চাইছেন নৌকা প্রতীকে।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে বুড়িচং উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান সাজ্জাদ হোসেন বলেন, আবদুল মতিন খসরু একজন বর্ষীয়ান নেতা। বুড়িচং-ব্রাহ্মণপাড়ায় তিনি ব্যাপক উন্নয়ন করেছেন। দল তাঁকে চূড়ান্ত মনোনয়ন দেয়ার পর থেকেই আমরা সবাই তার সাথে কাজ করার জন্য এক হয়েছি। এখন আমাদের চূড়ান্ত বিজয়ের অপেক্ষা। ৩০ ডিসেম্বর তাকে বিজয়ী করার মাধ্যমেই নেত্রীর সিদ্ধান্তের প্রতি চূড়ান্ত শ্রদ্ধা জানানো হবে।

একই কথা বললেন ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর খান চৌধুরী। তিনি বলেন, বুড়িচং-ব্রাহ্মণপাড়ার উন্নয়নে খসরু ভাইয়ের বিকল্প নেই। দুটি উপজেলার পরতে পরতে আবদুল মতিন খসরুর অবদান ছড়িয়ে আছে। টানা তৃতীয়বার সব মিলিয়ে পঞ্চমবারের মতো তাকে বিজয়ী করে আমরা তার অবদানের প্রতিদান দেবো। 

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে সাবেক আইনমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য আবদুল মতিন খসরু বলেন, বুড়িচং-ব্রাহ্মণপাড়ার মানুষ আমাকে ভালোবাসে। এর আগে তারা আমাকে ৪ বার নির্বাচিত করে সংসদে পাঠিয়েছে। বিশেষ করে ১৯৯১ সালের নির্বাচনে পুরো জেলায় আওয়ামী লীগের অন্য প্রার্থীরা ফেল করলেও কুমিল্লা-৫ আসনের মানুষ আমাকে বিজয়ী করেছিলো। পরবর্তীতে আমি চেষ্টা করেছি তাদের সে ঋণ শোধ করতে। উন্নয়নকেন্দ্রীক তাদের সকল চাওয়া আমি পূরণ করেছি।

তিনি বলেন, এবারও সিদ্ধান্ত তাদের হাতে। উন্নয়ন অব্যাহত রাখতে হলে আওয়ামী লীগের বিকল্প নেই। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসলে দেশের প্রতিটি গ্রাম শহরে রূপান্তরিত হবে। মানুষের জীবনমান আরো উন্নত হবে।






© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
কুমিল্লার কাগজ ২০০৪ - ২০১৮
সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আবুল কাশেম হৃদয় (আবুল কাশেম হৃদয়)
নির্বাহী সম্পাদক: হুমায়ূন কবীর জীবন
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ১২২ অধ্যক্ষ আবদুর রউফ ভবন, কুমিল্লা টাউন হল গেইটের বিপরিতে, কান্দিরপাড়, কুমিল্লা ৩৫০০। বাংলাদেশ।
ফোন +৮৮ ০৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২ ৪৪৩
ই মেইল: [email protected], [email protected],  Developed by i2soft
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ আবুল কাশেম হৃদয়
নির্বাহী সম্পাদক: হুমায়ূন কবীর জীবন
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ১২২ অধ্যক্ষ আবদুর রউফ ভবন
কুমিল্লা টাউন হল গেইটের বিপরিতে, কান্দিরপাড়, কুমিল্লা ৩৫০০। বাংলাদেশ। বাংলাদেশ। ফোন +৮৮ ০৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২ ৪৪৩
ইমেইল : [email protected] Developed by i2soft
document.write(unescape("%3Cscript src=%27http://s10.histats.com/js15.js%27 type=%27text/javascript%27%3E%3C/script%3E")); try {Histats.start(1,3445398,4,306,118,60,"00010101"); Histats.track_hits();} catch(err){};