ই-পেপার ভিডিও ছবি বিজ্ঞাপন অ্যাপস কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স কুমিল্লার ইতিহাস ও ঐতিহ্য লাইভ টিভি লাইভ রেডিও সকল পত্রিকা যোগাযোগ কুমিল্লার কাগজ পরিবার
Count
596
অর্থ আত্মসাৎ করতেই প্রবাসী ভগ্নিপতিকে হত্যা করেন যুবলীগ নেতা
Published : Wednesday, 26 September, 2018 at 12:00 AM, Update: 26.09.2018 1:59:25 AM
অর্থ আত্মসাৎ করতেই প্রবাসী ভগ্নিপতিকে হত্যা করেন যুবলীগ নেতানিজস্ব প্রতিবেদক: কুমিল্লার মনোহরগঞ্জে প্রবাসী ইয়াকুব আলী হত্যাকা-ের দীর্ঘ দেড় বছর পর তার শ্যালক ও যুবলীগ নেতা জানে আলমকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। সোমবার বিকেলে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) কুমিল্লার সদস্যরা তাকে আটকের পর মঙ্গলবার বিকেলে ওই মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে প্রেরণ করে।
জানে আলম উপজেলা সদরের দিশাবন্দ গ্রামের মৃত জয়নাল আবেদীনের ছেলে এবং উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম-আহবায়ক। এছাড়াও মনোহরগঞ্জ বাজারে রড-সিমেন্টের ব্যবসা রয়েছে তার।
মঙ্গলবার বিকেলে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) কুমিল্লার, পুলিশ পরিদর্শক মো. ইফতিয়ার উদ্দিন এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
মামলা সূত্রে জানা গেছে, ২০১৭ সালের ২ মার্চ উপজেলা সদরের মনোহরগঞ্জ বাজারের উত্তর পাশে ডাকাতিয়া নদী থেকে ওমান ফেরত প্রবাসী ইয়াকুব আলীর (৫০) অর্ধগলিত বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। ইয়াকুব আলী উপজেলার উত্তর হাওলা গ্রামের মিজি বাড়ির মৃত. আবদুর রশিদের ছেলে। এ ঘটনায় ওইদিন রাতেই নিহতের ছেলে মো. সোহাগ অজ্ঞাতনামা আসামিদের বিরুদ্ধে মনোহরগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। কুমিল্লার আদালত মামলাটি পিবিআই কুমিল্লাকে তদন্তের নিদের্শ প্রদান করেন।
পিবিআই সূত্র জানায়, আদালতের নির্দেশে মামলাটি পিবিআইতে আসার পর থেকে বাদী পক্ষের লোকদের কাছ থেকে তেমন কোনো সহযোগীতা পাওয়া যাচ্ছিল না। তারা মামলাটি নিয়ে তেমন আন্তরিক ছিলেন না, বলতে গেলে এই হত্যার বিচার হোক এমন প্রত্যাশাও করতেন না। পরে কুমিল্লা জেলা পিবিআই প্রধান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. ওসমান গণির নির্দেশে পুলিশ পরিদর্শক মো. ইফতিয়ার উদ্দিন গোপনীয়তার সঙ্গে ব্যাপকভাবে তদন্ত শুরু করেন। এতে হত্যার পেছনে বিভিন্ন কারন জানতে পারেন তিনি।
সর্বশেষ গত সোমবার বিকেলে মনোহরগঞ্জ বাজার এলাকা থেকে ইয়াকুব আলীর শ্যালক জানে আলমকে আটক পিবিআইয়ের সদস্যরা। মঙ্গলবার দুপুরে ওই মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে জানে আলমকে কুমিল্লার আদালতে প্রেরণ করা হয়।
মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পিবিআই কুমিল্লার, পরিদর্শক মো. ইফতিয়ার উদ্দিন বলেন, আমরা তদন্তের মাধ্যমে জানতে পারি প্রবাসী ইয়াকুব আলীর উপার্জিত অর্থ জানে আলমের কাছে ছিল। অর্থের পরিমাণও অনেক। জানে আলম তার টাকা আত্মসাৎ করতে চেয়েছিল। এনিয়ে শালা-দুলা ভাইয়ের মধ্যে বিরোধ সৃষ্টি হয়। আমাদের ধারণা, ওই টাকার জন্যই জানে আলম প্রবাসী ইয়াকুবকে হত্যার পর লাশ গুমের জন্য বস্তাবন্দি করে নদীতে ফেলে দেয়।
তিনি জানান, এই হত্যার ব্যাপার আরো বিস্তারিত জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আদালতে জানে আলমের রিমান্ড চাওয়া হয়েছে। আশা করছি এতে হত্যার প্রকৃত রহস্য উন্মোচিত হবে। এ ছাড়া এই হত্যার আর কেউ জড়িত আছে কিনা সেই ব্যাপারেও তদন্ত করছি আমরা।




 


Loading...

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
কুমিল্লার কাগজ ২০০৪ - ২০১৮
সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আবুল কাশেম হৃদয় (আবুল কাশেম হৃদয়)
নির্বাহী সম্পাদক: হুমায়ূন কবীর জীবন
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ১২২ অধ্যক্ষ আবদুর রউফ ভবন, কুমিল্লা টাউন হল গেইটের বিপরিতে, কান্দিরপাড়, কুমিল্লা ৩৫০০। বাংলাদেশ।
ফোন +৮৮ ০৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২ ৪৪৩
ই মেইল: [email protected], [email protected],  Developed by i2soft
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ আবুল কাশেম হৃদয়
নির্বাহী সম্পাদক: হুমায়ূন কবীর জীবন
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ১২২ অধ্যক্ষ আবদুর রউফ ভবন
কুমিল্লা টাউন হল গেইটের বিপরিতে, কান্দিরপাড়, কুমিল্লা ৩৫০০। বাংলাদেশ। বাংলাদেশ। ফোন +৮৮ ০৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২ ৪৪৩
ইমেইল : [email protected] Developed by i2soft
document.write(unescape("%3Cscript src=%27http://s10.histats.com/js15.js%27 type=%27text/javascript%27%3E%3C/script%3E")); try {Histats.start(1,3445398,4,306,118,60,"00010101"); Histats.track_hits();} catch(err){};