ই-পেপার ভিডিও ছবি বিজ্ঞাপন অ্যাপস কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স কুমিল্লার ইতিহাস ও ঐতিহ্য লাইভ টিভি লাইভ রেডিও সকল পত্রিকা যোগাযোগ কুমিল্লার কাগজ পরিবার
স্ত্রীকে খুন করে ওমান পালিয়ে গেছে স্বামী
Published : Wednesday, 21 February, 2018 at 12:00 AM, Update: 21.02.2018 2:11:59 AM
স্ত্রীকে খুন করে ওমান পালিয়ে গেছে স্বামীজহিরুল ইসলাম জহির ||
পরকিয়ার অভিযোগে ওমান থেকে ফিরে বন্ধুর সহযোগিতায় স্ত্রী কে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে হত্যা শেষে ফের ওমান পালিয়ে গেছে কুমিল্লার নাঙ্গলকোট উপজেলার হিয়াজোয়া গ্রামের সাদ্দাম হোসেন। প্রযুক্তির সহায়তায় কুমিল্লা সদর দক্ষিণ মডেল থানা পুলিশের বিশেষ অভিযানে সাদ্দামের বন্ধু সোহেলকে গ্রেফতার করে জিজ্ঞাসাবাদের পর হত্যাকান্ডের গোপন তথ্য বেরিয়ে এসেছে।
মামলার বিবরন, ভিকটিমের পরিবার ও পুলিশের সাথে কথা বলে জানা যায়, আনুমানিক ৩ বছর পূর্বে কুমিল্লা জেলার নাঙ্গলকোট উপজেলার হিয়াজোড়া গ্রামের মির হোসেনের ছেলে সাদ্দাম হোসেনের সাথে প্রেম সম্পর্ক গড়ে উঠে গাইবান্ধা জেলার সাগাটা উপজেলার কুন্দাপাড়া গ্রামের হারুনুর রশিদের মেয়ে হালিমা আক্তারের। তাদেরকে এ সম্পর্কে সহয়তা করত হালিমার নিকট সম্পর্কের দুলাভাই সাদ্দামের বন্ধু হিয়াজোয়া গ্রামের হারুনুর রশিদের ছেলে সোহেল। এরপর থেকে তাদের মধ্যে মোবাইলে যোগাযোগ ছাড়াও একাধিকবার সাক্ষাত হয়েছিল। বিষয়টি টের পেয়ে হালিমার পরিবার তড়িগড়ি করে স্থানীয় মাসুদ নামের একজনের সাথে হালিমাকে বিয়ে দিয়ে দেয়। এ খবর পেয়ে সাদ্দাম ক্ষুব্ধ হয়ে হালিমার পরিবারকে হুমকি ধমকি দেওয়া শুরু করে। বিয়ের কিছুদিন পর পিতার বাড়ীতে বেড়াতে আসলে হালিমাকে সাদ্দাম জোরপূর্বক তুলে নিয়ে চট্টগ্রামে ভাড়া বাসায় আটক করে রাখে। একপর্যায়ে হালিমাকে দিয়ে তার ১ম স্বামী মাসুদ কে ডিভোর্স করিয়ে সাদ্দাম তাকে বিয়ে করে। এর কিছুদিন পর সাদ্দাম কর্মের তাগিদে ওমান চলে যায়। যোগাযোগ কম থাকা ও টাকা না দেওয়ার অজুহাতে হালিমা চট্টগ্রামের ভাড়া বাসা ছেড়ে গাজীপুরে মেসে থেকে ফ্যাক্টরীতে কাজ শুরু করে। কিন্তু স্বামী সাদ্দামের সন্দেহ হালিমা পরকিয়ায় জড়িয়ে গেছে। সে কারনে সাদ্দাম গত ২৬ জানুয়ারী ওমান থেকে দেশে ফিরে আসে। মোবাইলে যোগাযোগ করে ৩১ জানুয়ারী বিকালে সাদ্দাম গাজীপুরে হালিমার বাসায় যায়। ওই দিনই সাদ্দাম হালিমাকে নিয়ে কুমিল্লার উদ্দেশ্যে রওনা করে। রাত অনুমান ৪টায় তারা পদুয়ার বাজার বিশ্বরোডে বাস থেকে নামে। এর আগে থেকে সাদ্দামের অনুরোধে সোহেল সিএনজি নিয়ে পদুয়ার বাজার বিশ্বরোড অপেক্ষা করছিল। এরপর তারা সোহেলের সিএনজিতে উঠে কুমিল্লা-নোয়াখালী সড়কে নাঙ্গলকোটের উদ্দেশ্যে রওনা করে। কিন্তু বিজয়পুর-লালমাই এলাকায় পৌছতেই সিএনজির ভিতরে সোহেলের সহায়তায়  সাদ্দাম ওড়না পেছিয়ে হালিমাকে হত্যা করে। ভোর অনুমান সাড়ে ৪ টায় সোহেল ও সাদ্দাম দায় এড়াতে হালিমার লাশ কুমিল্লা-নোয়াখালী সড়কের দত্তপুর ব্রীজের পাশে ফেলে দেয়। পরে গত ৬ ফেব্রুয়ারী সাদ্দাম ওমান পালিয়ে যায় এবং সোহেলকে এবিষয়ে মুখ বন্ধ রাখতে অনুরোধ করে।
এদিকে গত ১লা ফেব্রুয়ারী সকাল ১০টায় কুমিল্লা সদর দক্ষিণ মডেল থানার উপ-পরিদর্শক অঞ্জন কুমার নাহা সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে কুমিল্লা-নোয়াখালী সড়কের দত্তপুর ব্রীজের পাশ থেকে একজন অজ্ঞাত তরুনীর লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করে। ময়নাতদন্ত শেষে ওয়ারিশ না থাকায় মর্গ থেকে লাশ গ্রহণ করে টিক্কারচরে দাফন করে আঞ্জুমান মুফিদুল ইসলাম। এঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামাদের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা রুজু ( নং ০১, তাং ১/২/১৮ইং) করে। প্রিন্ট ও সোস্যাল মিডিয়ার সুবাধে ৬ ফেব্রয়ারী হালিমার পিতা হারুনুর রশিদ উদ্ধারকৃত লাশের ছবি দেখে তার মেয়ে বলে সনাক্ত করে। এরপর থেকে হালিমার পিতা হারুনুর রশিদের দেওয়া কিছু তথ্যের ভিত্তিতে কুমিল্লা সদর দক্ষিণ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ নজরুল ইসলাম পিপিএম’র তত্বাবধানে উপ-পরিদর্শক খাদেমুল বাহার প্রযুক্তিগত তদন্ত শেষে ১৯ ফেব্রুয়ারী সকালে হত্যাকান্ডে জড়িত সোহেলকে নাঙ্গলকোট থানা পুলিশের সহযোগিতায় গ্রেফতার করে। গ্রেফতারের পর সোহেল পুলিশের নিকট হত্যাকান্ডের কথা স্বীকার করে। ২০ ফেব্রুয়ারী দুপুরে সোহেল কুমিল্লার বিজ্ঞ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্র্যাট শাহনেওয়াজ মনিরের আদালতে  ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয়।




Loading...

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
কুমিল্লার কাগজ ২০০৪ - ২০১৬
সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আবুল কাশেম হৃদয় (আবুল কাশেম হৃদয়)
নির্বাহী সম্পাদক: হুমায়ূন কবীর জীবন
কার্যালয়: কাজী অহিদুজ্জামান ম্যানশন, তৃতীয় তলা, কান্দিরপাড়,কুমিল্লা-৩৫০০, বাংলাদেশ
ফোন: +৮৮০ ৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২৪৪৩, +৮৮০ ১৭১৮০৮৯৩০২
ই মেইল: [email protected], newscomillarkago[email protected],  Developed by i2soft
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ আবুল কাশেম হৃদয়
নির্বাহী সম্পাদক: হুমায়ূন কবীর জীবন
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ১২২ অধ্যক্ষ আবদুর রউফ ভবন
কুমিল্লা টাউন হল গেইটের বিপরিতে, কান্দিরপাড়, কুমিল্লা ৩৫০০। বাংলাদেশ। ফোন +৮৮ ০৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২ ৪৪৩
ইমেইল : [email protected] Developed by i2soft
document.write(unescape("%3Cscript src=%27http://s10.histats.com/js15.js%27 type=%27text/javascript%27%3E%3C/script%3E")); try {Histats.start(1,3445398,4,306,118,60,"00010101"); Histats.track_hits();} catch(err){};