ই-পেপার ভিডিও ছবি বিজ্ঞাপন অ্যাপস কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স কুমিল্লার ইতিহাস ও ঐতিহ্য লাইভ টিভি লাইভ রেডিও সকল পত্রিকা যোগাযোগ কুমিল্লার কাগজ পরিবার
Count
2055
ছেলেকে প্রধান বিচারপতি হিসাবে শপথ নিতে দেখার বিরল ঘটনা !
Published : Sunday, 4 February, 2018 at 4:54 PM, Update: 05.02.2018 12:24:40 AM
ছেলেকে প্রধান বিচারপতি হিসাবে শপথ নিতে দেখার বিরল ঘটনা !এ এক দূর্লভ ঘটনা; পৃথিবীর সবচেয়ে সুখী পিতামাতা। ছেলেকে প্রধান বিচারপতি হিসাবে শপথ নিতে দেখা এ এক বিরল ও অত্যাশ্চর্য ঘটনা।
ছবিটা তুলতার সময় বর্তমান মাননীয় বিচারপতিগণ এক প্রকার অনুরোধ করেই পিছনে দাঁড়িয়ে এই ছবির অংশ হতে চাইলেন।
হুইল চেয়ারে বসা দুইজনই নবনিযুক্ত মাননীয় প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের পিতা-মাতা।
 তার পিতা সৈয়দ মোস্তফা আলীও একজন আইনজীবী। কুমিল্লা জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি এবং সাবেক সরকারি কৌশলী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। আর মা বেগম কাওসার হাসান গৃহিণী।

সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের শিক্ষা জীবনের কেটেছে কুমিল্লা শহরে। কুমিল্লা জেলা স্কুল থেকে ১৯৭২ সালে সেকেন্ডারি স্কুল সার্টিফিকেট, কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজ থেকে ১৯৭৪ সালে এইচএসসি পরীক্ষা এবং একই কলেজ থেকে ১৯৭৬ সালে বিএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন। পরে ১৯৮০ সনে কুমিল্লা আইন কলেজ থেকে এলএলবি ডিগ্রি অর্জন করেন এবং ১৯৮১ সালে আইনজীবী হিসেবে জেলা বারের সনদ প্রাপ্ত হন। পরবর্তীতে ১৯৮৩ সালে হাইকোর্ট বিভাগে আইনজীবী হিসাবে তালিকাভুক্ত হন।

প্রধান বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ পাওয়ায় বাবা-মায়ের অবদান শ্রদ্ধার সঙ্গে স্বরণ করেন প্রধান বিচারপতি। তিনি বলেন, ‘এ মুহূর্তে বাংলাদেশের প্রধান বিচারপতির দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে আমার পিতা-মাতার অমূল্য অবদান স্বরণ করছি। তাদের স্নেহ, ভালোবাসা, অনুপ্রেরণা এবং দোয়া আজ আমাকে সাফল্যের এ পর্যায়ে নিয়ে এসেছে। তারা আজও আমার সব কাজের অনুপ্রেরণা। আমার পিতার কাছে আমার আইন পেশার হাতেখড়ি।’
শনিবার (৩ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যা ৭টা ১১ মিনিটে বঙ্গভবনের দরবার হলে দেশের ২২তম প্রধান বিচারপতি হিসেবে সৈয়দ মাহমুদ হোসেনকে শপথ বাক্য পাঠ করান রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ। শপথ অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত, বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন, মন্ত্রিসভার জ্যেষ্ঠ সদস্য, সাবেক প্রধান বিচারপতি, উচ্চ আদালতের জ্যেষ্ঠ আইনজীবীসহ সরকারের পদস্থ বেসামরিক-সামরিক কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। এর আগে শুক্রবার (০২ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে সৈয়দ মাহমুদ হোসেনকে প্রধান বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ দেন রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ। এরপর সন্ধ্যায় পদত্যাগ করেন আপিল বিভাগের জ্যেষ্ঠ বিচারপতি আবদুল ওয়াহহাব মিয়া, যিনি এতদিন ভারপ্রাপ্ত রাষ্ট্রপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আইন বিভাগে পাস করা সৈয়দ মাহমুদ হোসেন জীবনের শুরুতে আইন পেশায় নিয়োজিত ছিলেন। ১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় এলে তিনি ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল হন। ২০০১ সালের ২২ ফেব্রুয়ারি আওয়ামী লীগের শেষ বছরে হাইকোর্ট বিভাগের অতিরিক্ত বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ পান মাহমুদ হোসেন । ২০০৯ সালে আওয়ামী লীগ সরকারে আসার দুই বছর পর ২০১১ সালের ২৩ ফেব্রুয়ারি মাহমুদ হোসেন আপিল বিভাগের বিচারক হিসেবে নিয়োগ পান। ২০২১ সালের ৩০ ডিসেম্বর তার অবসরে যাওয়ার সময় নির্ধারিত আছে। মাহমুদ হোসেন এর আগেও আলোচনায় এসেছিলেন। বর্তমান নির্বাচন কমিশন গঠনে ২০১৭ সালের ২৫ জানুয়ারি সে সার্চ কমিটি গঠন করা হয় তার প্রধান ছিলেন তিনি। ২০১২ সালেও কাজী রকিবউদ্দিন আহমেদকে প্রধান করে গঠন করা নির্বাচন কমিশন বাছাইয়ের জন্য গঠন করা সার্চ কমিটিরও প্রধান ছিলেন তিনি।



Loading...

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
কুমিল্লার কাগজ ২০০৪ - ২০১৬
সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আবুল কাশেম হৃদয় (আবুল কাশেম হৃদয়)
নির্বাহী সম্পাদক: হুমায়ূন কবীর জীবন
কার্যালয়: কাজী অহিদুজ্জামান ম্যানশন, তৃতীয় তলা, কান্দিরপাড়,কুমিল্লা-৩৫০০, বাংলাদেশ
ফোন: +৮৮০ ৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২৪৪৩, +৮৮০ ১৭১৮০৮৯৩০২
ই মেইল: [email protected], [email protected],  Developed by i2soft
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ আবুল কাশেম হৃদয়
নির্বাহী সম্পাদক: হুমায়ূন কবীর জীবন
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ ১২২ অধ্যক্ষ আবদুর রউফ ভবন
কুমিল্লা টাউন হল গেইটের বিপরিতে, কান্দিরপাড়, কুমিল্লা ৩৫০০। বাংলাদেশ। ফোন +৮৮ ০৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২ ৪৪৩
ইমেইল : [email protected] Developed by i2soft
document.write(unescape("%3Cscript src=%27http://s10.histats.com/js15.js%27 type=%27text/javascript%27%3E%3C/script%3E")); try {Histats.start(1,3445398,4,306,118,60,"00010101"); Histats.track_hits();} catch(err){};