ই-পেপার ভিডিও ছবি বিজ্ঞাপন অ্যাপস কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স কুমিল্লার ইতিহাস ও ঐতিহ্য লাইভ টিভি লাইভ রেডিও সকল পত্রিকা যোগাযোগ কুমিল্লার কাগজ পরিবার
Count
71
কোরবানির পশুর হাট
Published : Friday, 11 August, 2017 at 12:00 AM
কোরবানির পশুর হাটঈদুল আজহা আসন্ন। এ উপলক্ষে সারা দেশে কোরবানির পশুর হাট বসবে। মফস্বলে বা গ্রামে সাধারণত ঈদের দিন দুয়েক আগে হাট বসে। রাজধানীতে বসে সপ্তাহখানেক আগে। রাজধানীতে পশুর হাট বসানো নিয়ে বিগত সময়ে বিধি লঘনের প্রচুর ঘটনা ঘটেছে। যেখানে-সেখানে গরু-ছাগলের হাট বসানো হতো। এ প্রবণতা বন্ধ হয়েছে। এবার ২২টি হাট বসবে। ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনে (ডিএনসিসি) ৯টি আর ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনে (ডিএসসিসি) ১৩টি। কয়েক বছর ধরে নির্ধারিতসংখ্যক হাট বসছে। তবে জায়গা নিয়ে ঝামেলা রয়েই গেছে। খেলার মাঠে, স্কুল-কলেজের মাঠে, পার্কে বা সড়ক ও রেললাইনের পাশে হাট বসে। যে কদিন হাট চলে সে কদিন নাগরিকদের বেশ সমস্যায় পড়তে হয়।
এবার স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, খেলার মাঠ, পার্ক, সড়ক ও রেললাইনের পাশে পশুর হাট না বসাতে বলেছে। সিটি করপোরেশন, জেলা, উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ে চিঠি দিয়ে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে; কিন্তু তা আমলে নিচ্ছে না ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন। যেসব জায়গায় হাট না বসাতে বলা হয়েছে ডিএসসিসি সে রকম ১০টি জায়গায় এবং ডিএনসিসি তিনটি জায়গায় হাট বসাতে যাচ্ছে। জেলা, উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়েও একই অবস্থা। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের মাঠে পশুর হাট বসালে ছাত্র-ছাত্রীদের লেখাপড়া বিঘিœত হয়, পরিবেশ দূষিত হয়। খেলার মাঠে বা সড়ক-মহাসড়কে বা রেললাইনের পাশে হাট বসালে পরিবেশ বিনষ্ট হওয়ার পাশাপাশি জনদুর্ভোগ বাড়ে। এসব অস্থায়ী হাট দুর্ঘটনারও কারণ। ডিএসসিসির বক্তব্য হলো, রাজধানীতে তেমন খালি জায়গা নেই। তাই এভাবে হাটের আয়োজন করতে হয়। তবে হাটের কারণে বাড়তি ভোগান্তি যাতে না হয়, সেদিকে তারা নজর রাখবে। হাট শেষ হলেই জায়গা পরিষ্কার করা হবে। ডিএনসিসির বক্তব্য প্রায় একই। তারা নাগরিক দুর্ভোগের কথা ভেবে এবার কমসংখ্যক হাট বসাচ্ছে। এসবের কয়েকটি সড়কসংলগ্ন। খেলার মাঠ, পার্ক বা রেললাইনের পাশে হাট বসাবে না তারা। রাজধানীতে কোরবানির পশুর হাটের জায়গা পাওয়া আসলেই বড় সমস্যা। ১০-১৫ বছর আগেও অনেক ফাঁকা জায়গা ছিল। এখন নেই। ফলে স্কুল-কলেজের মাঠে, খেলার মাঠে বা সড়ক-রেললাইনের পাশে হাট বসাতে হয়। কোরবানির পশুর হাট জরুরিও বটে; না বসিয়ে পারা যায় না। তবে সংশ্লিষ্ট স্থানীয় সরকারের লোকদের উচিত হবে নির্দেশনা আমলে নিয়ে উল্লিখিত জায়গায় হাট না বসানো। বিকল্প জায়গা তাদেরই খুঁজে নিতে হবে।  জেলা, উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ে বিকল্প জায়গা পাওয়া কঠিন নয়। রাজধানীর মতো স্থান সংকট সেখানে নেই, সেখানকার স্থানীয় সরকারের লোকদের উচিত নির্দেশনা পুরোপুরি মান্য করা। নাগরিকদের কথা ভেবে প্রশাসনকেও মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনার কার্যকারিতা নিশ্চিত করতে হবে।






© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
কুমিল্লার কাগজ ২০০৪ - ২০১৬
সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আবুল কাশেম হৃদয় (আবুল কাশেম হৃদয়)
নির্বাহী সম্পাদক: হুমায়ূন কবীর জীবন
কার্যালয়: কাজী অহিদুজ্জামান ম্যানশন, তৃতীয় তলা, কান্দিরপাড়,কুমিল্লা-৩৫০০, বাংলাদেশ
ফোন: +৮৮০ ৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২৪৪৩, +৮৮০ ১৭১৮০৮৯৩০২
ই মেইল: hridoycomilla@yahoo.com, newscomillarkagoj@gmail.com,  Developed by i2soft
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ আবুল কাশেম হৃদয়
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ কাজী অহিদুজ্জামান ম্যানশান।
তৃতীয় তলা, কান্দিরপাড়, কুমিল্লা ৩৫০০। বাংলাদেশ। ফোন +৮৮ ০৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২ ৪৪৩
ইমেইল : hridoycomilla@yahoo.com Developed by i2soft
document.write(unescape("%3Cscript src=%27http://s10.histats.com/js15.js%27 type=%27text/javascript%27%3E%3C/script%3E")); try {Histats.start(1,3445398,4,306,118,60,"00010101"); Histats.track_hits();} catch(err){};