ই-পেপার ভিডিও ছবি বিজ্ঞাপন অ্যাপস কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স কুমিল্লার ইতিহাস ও ঐতিহ্য লাইভ টিভি লাইভ রেডিও সকল পত্রিকা যোগাযোগ কুমিল্লার কাগজ পরিবার
Count
14174
প্রত্যেক জেলা-সিটিতে কমপক্ষে একটি আসন, আইনের খসড়া প্রস্তুত বদলে যাবে --------
পরিবর্তন আসছে কুমিল্লার সংসদীয় আসন সীমানায়
Published : Saturday, 29 July, 2017 at 12:00 AM, Update: 29.07.2017 11:36:06 PM
পরিবর্তন আসছে কুমিল্লার সংসদীয় আসন সীমানায়বাংলা ট্রিবিউন: দেশের প্রতিটি জেলা ও সিটি করপোরেশন এলাকায় ন্যূনতম একটি সংসদীয় আসনের বিধান রেখে নির্বাচনি এলাকার সীমানা নির্ধারণ আইনের খসড়া প্রস্তুত করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিবালয়। প্রস্তাবিত বিধি অনুযায়ী প্রাধান্য দেওয়া হবে প্রশাসনিক ইউনিটের অখ-তাকে। এই হিসাবে আসন বিন্যাসে বিদ্যমান জনসংখ্যার পাশাপাশি বিবেচনায় নেওয়া হবে ভোটার সংখ্যা ও আয়তনকে। নতুন করে সীমানা নির্ধারনের এই খসড়া আইনে পরিণত হলে অনেক সংসদীয় আসনের চিত্র পাল্টে যাবে। এতে বাড়তে পারে বড় জেলার আসন সংখ্যা, কমে যেতে পারে ছোট জেলাগুলোর আসন। এই আইনের পাশাপাশি ইসি সচিবালয় বিধিমালার খসড়াও প্রণয়ন করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার নির্বাচন কমিশনের আইন ও বিধিমালা সংক্রান্ত কমিটিতে এ খসড়া উপস্থাপন করা হয়েছে। নির্বাচন কমিশনার কবিতা খানম সভাপতিত্বে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।  নির্বাচন কমিশনার কবিতা খানম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, সিটি করপোরেশন এলাকায় কমপক্ষে  একটি আসন করা হলে সিলেট, কুমিল্লা, গাজীপুরসহ বেশ কয়েকটি জেলার সংসদীয় আসনের সীমানায় পরিবর্তন আসবে।
কুমিল্লা সিটি করপোরেশন কুমিল্লা ৬ ও ১০ আসনের আংশিক এলাকা নিয়ে গঠিত। নতুন নিয়ম অনুযায়ী, এ সিটিতে একটি সংসদীয় আসন হবে। অন্যদিকে সিলেট-১ আসনের অংশবিশেষ এলাকা নিয়ে সিলেট সিটি করপোরেশন। এছাড়া সিলেট সদরের কিছু এলাকা সিটি করপোরেশনের বাইরে রয়েছে। নতুন বিধান কার্যকর হলে সদর এলাকা অন্য আসনের সঙ্গে যুক্ত হবে। একইভাবে বরিশাল-৫ আসনে সিটি করপোরেশন ও ১০টি ইউনিয়ন পরিষদ রয়েছে। নতুন বিধান অনুযায়ী ওই দশটি ইউপি অন্য আসনে যুক্ত হবে। নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন এলাকায় দু’টি সংসদীয় আসনের আংশিক এলাকা রয়েছে। ওই এলাকাতেও পরিবর্তন আসতে পারে। একইভাবে গাজীপুর ও রংপুরসহ অন্য সিটি করপোরেশন এলাকায় পরিবর্তন আসবে।
ইসির কর্মকর্তারা জানান, খসড়া আইন ও বিধি বাস্তবায়িত হলে সংসদীয় আসন বিন্যাসে মাঝারি আকারের রদবদল হতে পারে। প্রথমবারের মতো জনসংখ্যার পাশাপাশি ভোটার সংখ্যা গুরুত্ব দিয়ে আসন বিন্যাস করা হচ্ছে।
জানা গেছে, খসড়া আইনে প্রতিটি জেলায় কমপক্ষে একটি আসন থাকার পাশাপাশি এবারই প্রথমবারের সিটি করপোরেশনগুলোতে ন্যূনতম একটি আসন দেওয়ার বিধান যুক্ত হচ্ছে। এ বিষয়ে খসড়া আইনের অনুচ্ছেদ-৭-এ বলা হয়েছে, ‘প্রতিটি জেলায় ন্যূনতম একটি আসন নির্ধারণ করিতে হইবে। প্রতিটি সিটি করপোরেশনে ন্যূনতম একটি আসন নির্ধারণ করা যাইবে।’ এ ধারায় সিটি করপোরেশনের আসন-সংখ্যা নির্ধারণ করে দেওয়ার কথাও বলা হয়েছে।
প্রস্তাবিত খসড়া আইনে প্রতি জেলায় একটি করে নির্বাচনি আসনের কথা বলা হলেও বিদ্যমান আইনে প্রতিটি জেলায় ন্যূনতম দু’টি সংসদীয় আসন রাখার বিধান রয়েছে। তবে পার্বত্য তিন জেলায় একটি করে রাখার বিধান রয়েছে। এ খসড়ার ভিত্তিতে আসন বিন্যাসে খুব একটা হেরফের না হলেও ‘পার্বত্য জেলায় একটি করে আসন থাকবে’ আলাদা করে এমন বিধানের উল্লেখ করার প্রয়োজন হবে না। নতুন সীমানা নির্ধারণে ওই তিন জেলায় একটি করে আসন থাকবে।
জেলা পর্যায়ে আসন বণ্টন পদ্ধতির ধরন সম্পর্কে খসড়া বিধিমালার অনুচ্ছেদ ৩-এ বলা হয়েছে, সর্বশেষ আদম শুমারি প্রতিবেদনে জনসংখ্যা এবং সর্বশেষ হালনাগাদ ভোটার সংখ্যা অনুপাতে প্রতিটি জেলায় আসন বণ্টন করা হবে। একাধিক জেলায় অবস্থিত ভূখ-ের সমন্বয়ে আসন নির্ধারণ করা যাবে না।
বিধিমালায় বলা হয়েছে, জনসংখ্যা কোটা ও ভোটার কোটার গড়ের ভিত্তিতে জেলার আসন স্যংখ্যা নির্ধারণ করতে হবে। জনসংখ্যা ও ভোটারসংখ্যার গড় হিসাব করে আসন নির্ধারণের ক্ষেত্রে প্রশাসনিক ও যোগাযোগ সুবিধা বজায় রাখার ওপর গুরুত্বারোপ করে বলা হয়েছে, সীমানা নির্ধারণের ক্ষেত্রে যতটা সম্ভব উপজেলা অবিভাজিত রাখতে হবে। ইউনিয়ন/সিটি করপোরেশন/পৌরসভার ওয়ার্ড একাধিক আসনের মধ্যে বিভাজন করা যাবে না। প্রশাসনিক সুবিধা ও যোগাযোগ ব্যবস্থা অক্ষুণ্ন রাখতে হবে। নির্বাচন এলাকার আয়তন বিবেচনায় রাখতে হবে।
এ বিষয়ে নির্বাচন কমিশনার কবিতা খানম   বলেন, ‘সংসদীয় আসনের আইন ও বিধিমালার বিষয়ে প্রাথমিক খসড়া নিয়ে কাজ চলছে। সীমানা নির্ধারণে কোনও কোনও বিষয় গুরুত্ব দেওয়া দরকার তা নিয়ে আমরা আলোচনা করছি।’ সিটি করপোরেশনে ন্যূনতম একটি আসন নির্ধারণের বিষয়ে জানতে চাইলে এই কমিশনার বলেন, ‘সবই আলোচনার মধ্যে রয়েছে। কোনও কিছুই চূড়ান্ত হয়নি।  কমিশন সভায় সব কিছু চূড়ান্ত করা হবে। এর আগে সংলাপে আইন ও বিধি সংস্কার নিয়ে অংশীজনদের অভিমত নেওয়া হবে।’ জনসংখ্যা, ভোটারসংখ্যা ও প্রশাসনিক অখ-তা বিষয়ে প্রাধান্য দিয়ে সীমানা নির্ধারণের বিষয়ে কমিশন একমত হয়েছে বলেও তিনি জানান।


 



© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
কুমিল্লার কাগজ ২০০৪ - ২০১৬
সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আবুল কাশেম হৃদয় (আবুল কাশেম হৃদয়)
নির্বাহী সম্পাদক: হুমায়ূন কবীর জীবন
কার্যালয়: কাজী অহিদুজ্জামান ম্যানশন, তৃতীয় তলা, কান্দিরপাড়,কুমিল্লা-৩৫০০, বাংলাদেশ
ফোন: +৮৮০ ৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২৪৪৩, +৮৮০ ১৭১৮০৮৯৩০২
ই মেইল: hridoycomilla@yahoo.com, newscomillarkagoj@gmail.com,  Developed by i2soft
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ আবুল কাশেম হৃদয়
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ কাজী অহিদুজ্জামান ম্যানশান।
তৃতীয় তলা, কান্দিরপাড়, কুমিল্লা ৩৫০০। বাংলাদেশ। ফোন +৮৮ ০৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২ ৪৪৩
ইমেইল : hridoycomilla@yahoo.com Developed by i2soft
document.write(unescape("%3Cscript src=%27http://s10.histats.com/js15.js%27 type=%27text/javascript%27%3E%3C/script%3E")); try {Histats.start(1,3445398,4,306,118,60,"00010101"); Histats.track_hits();} catch(err){};