ই-পেপার ভিডিও ছবি বিজ্ঞাপন অ্যাপস কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স কুমিল্লার ইতিহাস ও ঐতিহ্য লাইভ টিভি লাইভ রেডিও সকল পত্রিকা যোগাযোগ কুমিল্লার কাগজ পরিবার
Count
131
রোজার পূর্ণতায় ফিতরা
Published : Tuesday, 20 June, 2017 at 12:00 AM
মুফতি মাহমুদ হাসান ||
সদকাতুল ফিতর রমজানুল মোবারকের অন্যতম ইবাদত। এটি ঈদুল ফিতরের দিন আদায় করতে হয়। আমাদের এ অঞ্চলে তা 'ফিতরা' নামে পরিচিত।
হজরত ইবনে আব্বাস (রা.) বলেন, 'রাসুলুল্লাহ (সা.) সদকাতুল ফিতরকে অপরিহার্য করেছেন- অনর্থক, অশালীন কথা ও কাজে রোজার যে ক্ষতি হয়েছে, তা পূরণের জন্য এবং নিঃস্ব লোকদের আহার জোগানোর জন্য।' (আবু দাউদ : ১/২২৭)
রাসুলুল্লাহ (সা.) বলেন, 'রমজানের রোজা সদকাতুল ফিতর আদায় করার আগ পর্যন্ত আসমান-জমিনের মধ্যে ঝুলন্ত থাকে।' (আততারগিব ওয়াততারহিব : ২/৯৬)
ফিতরার নিসাব
ফিতরার নিসাব জাকাতের নিসাবের সমপরিমাণ- অর্থাৎ কারো কাছে সাড়ে সাত ভরি সোনা বা সাড়ে বায়ান্ন ভরি রুপা অথবা তার সমমূল্যের নগদ অর্থ কিংবা ব্যবহারের অতিরিক্ত জিনিসপত্র ঈদুল ফিতরের দিন সুবহে সাদিকের সময় থাকলে তার ওপর ফিতরা ওয়াজিব হবে। তবে এতে জাকাতের মতো বর্ষ অতিক্রম হওয়া শর্ত নয়। (ফাতহুল ক্বাদির : ২/২৮১)
নাবালেগ বাচ্চাদের বাবা যদি ওই পরিমাণ সম্পদের মালিক হয়, তাহলে পিতার ওপর তাদের পক্ষ থেকেও ফিতরা আদায় করা ওয়াজিব। (বাদায়েউস্ সানায়ে : ২/৭০)
ফিতরা আদায়ের পরিমাণ
ফিতরার পরিমাণ সম্পর্কে শরিয়তে দুটি মাপকাঠি রয়েছে : তা হচ্ছে- 'সা' ও 'নিসফে সা'।
খেজুর, পনির, জব ও কিশমিশ দ্বারা আদায় করলে এক 'সা'= ৩২৭০.৬০ গ্রাম (প্রায়), অর্থাৎ ৩ কেজি ২৭০ গ্রামের কিছু বেশি।
আর গম দ্বারা আদায় করলে 'নিসফে সা'=১৬৩৫.৩১৫ গ্রাম বা ১.৬৩৫৩১৫ কেজি (প্রায়), অর্থাৎ ১ কেজি ৬৩৫ গ্রামের কিছু বেশি প্রযোজ্য হবে। (আওজানে শরইয়্যাহ, পৃ. ১৮)
আবদুল্লাহ ইবনে আমর (রা.) থেকে বর্ণিত, রাসুলুল্লাহ (সা.) একজন ঘোষক প্রেরণ করলেন যেন মক্কার পথে পথে এ ঘোষণা করে- জেনে রেখো! প্রত্যেক মুসলিম নর-নারী, গোলাম-স্বাধীন, ছোট-বড় সবার ওপর ফিতরা অপরিহার্য। দুই মুদ (আধা সা) গম কিংবা এক সা অন্য খাদ্যবস্তু। (জামে তিরমিজি : ১/৮৫)
ওপরের খাদ্যবস্তুর পরিবর্তে সেগুলোর কোনো একটিকে মাপকাঠি ধরে তার মূল্য আদায় করারও অবকাশ রয়েছে। এখানে স্মর্তব্য যে মূল্যের দিক থেকে ওই খাদ্যবস্তুগুলোর মধ্যে যেহেতু তফাত আছে, তাই সবচেয়ে কম দামের বস্তুকে মাপকাঠি ধরে কেউ যদি ফিতরা আদায় করে, তাহলেও তা আদায় হয়ে যাবে। বর্তমান বাজারদর হিসাবে যেহেতু গমের দামই সবচেয়ে কম, তাই ইসলামিক ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে প্রতিবছর আধা 'সা' গমকে মাপকাঠি ধরে ওই সময়ের বাজারদর হিসাবে তার মূল্য ফিতরার সর্বনিম্ন পরিমাণ ঘোষণা করা হয় (এ বছর তা ৬০ টাকা)। কেননা ফিতরার সর্বনিম্ন পরিমাণ সেটিই, যা সুন্নাহে উল্লিখিত খাদ্যবস্তুগুলোর মধ্যে পরিমাণ ও বাজারদরের বিচারে সর্বনিম্ন। টাকার অঙ্কে সর্বনিম্ন ফিতরা এই মানদ-ের ভিত্তিতেই হবে।
তবে উত্তম হলো, নিজ নিজ সামর্থ্য অনুযায়ী বেশি মূল্যের খাদ্যবস্তু মাপকাঠি ধরে ফিতরা আদায় করা। কেননা সদকার ক্ষেত্রে উদ্দেশ্য হলো, গরিবদের প্রয়োজন পূরণ ও তাদের স্বার্থ সংরক্ষণ। এর পাশাপাশি আদায়কারীর সামর্থ্যকেও বিবেচনায় রাখা হয়। অতএব এ দিক বিবেচনায় সামর্থ্যবান ব্যক্তিদের জন্য সামর্থ্য অনুযায়ী বেশি মূল্যের খাদ্যবস্তু যথা- এক 'সা' খেজুর, পনির ও কিশমিশ ইত্যাদি মাপকাঠি ধরে ফিতরা আদায় করাই বাঞ্ছনীয়।





© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
কুমিল্লার কাগজ ২০০৪ - ২০১৬
সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আবুল কাশেম হৃদয় (আবুল কাশেম হৃদয়)
নির্বাহী সম্পাদক: হুমায়ূন কবীর জীবন
কার্যালয়: কাজী অহিদুজ্জামান ম্যানশন, তৃতীয় তলা, কান্দিরপাড়,কুমিল্লা-৩৫০০, বাংলাদেশ
ফোন: +৮৮০ ৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২৪৪৩, +৮৮০ ১৭১৮০৮৯৩০২
ই মেইল: hridoycomilla@yahoo.com, newscomillarkagoj@gmail.com,  Developed by i2soft
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ আবুল কাশেম হৃদয়
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ কাজী অহিদুজ্জামান ম্যানশান।
তৃতীয় তলা, কান্দিরপাড়, কুমিল্লা ৩৫০০। বাংলাদেশ। ফোন +৮৮ ০৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২ ৪৪৩
ইমেইল : hridoycomilla@yahoo.com Developed by i2soft
document.write(unescape("%3Cscript src=%27http://s10.histats.com/js15.js%27 type=%27text/javascript%27%3E%3C/script%3E")); try {Histats.start(1,3445398,4,306,118,60,"00010101"); Histats.track_hits();} catch(err){};