ই-পেপার ভিডিও ছবি বিজ্ঞাপন অ্যাপস কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স কুমিল্লার ইতিহাস ও ঐতিহ্য লাইভ টিভি লাইভ রেডিও সকল পত্রিকা যোগাযোগ কুমিল্লার কাগজ পরিবার
Count
151
পূর্বাপর ভেবে সিদ্ধান্ত নিন
Published : Saturday, 13 May, 2017 at 12:00 AM
পূর্বাপর ভেবে সিদ্ধান্ত নিননতুন বেতন স্কেল পুরোপুরি কার্যকর হওয়ার এক বছর না যেতেই সরকারি কর্মচারীদের বেতন আরেক দফা বাড়ানোর চিন্তাভাবনা করছে সরকার। অজুহাত হিসেবে সামনে আনা হয়েছে জীবনযাত্রার ব্যয় বৃদ্ধি। সুপারিশমালা প্রণয়নের জন্য ৯ সদস্যের কমিটি গঠন করার প্রজ্ঞাপনও জারি করা হয়ে গেছে। এই কমিটি মূল্যস্ফীতির সঙ্গে সমন্বয়ের উপায় নির্ধারণ করে একটি সুপারিশমালা নির্ধারণ করবে।
২০১৫ সালের সেপ্টেম্বর মাসে মন্ত্রিসভায় অষ্টম বেতন কাঠামো অনুমোদিত হয়। ধাপে ধাপে কার্যকর করা শুরু হয় একই বছরের জুলাই থেকে। নতুন পে স্কেলে সরকারি কর্মচারীদের বেতন বাড়ানো হয় প্রায় দ্বিগুণ। বৈশাখী ভাতা নামে নতুন একটি ভাতাও চালু করা হয়। এতে সরকারের ব্যয় বেড়ে যায় ১৫ হাজার ৯০৪ কোটি ২৪ লাখ টাকা। গত বেতন কাঠামোতে শুধু কর্মচারীদের বেতনই বাড়েনি, পেনশন সুবিধাও বাড়ানো হয়েছে। অর্জিত ছুটি নগদায়নসহ অন্যান্য সুবিধাও বেড়েছে। অষ্টম বেতন স্কেল কার্যকর হওয়ার পর শুধু সরকারের ব্যয় বাড়েনি, বাজারেও এর প্রভাব পড়ে। জীবনযাত্রার ব্যয় বেড়েছে। সরকারি কর্মচারীদের বেতন বাড়লেও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে কর্মরতদের বেতন-ভাতা সে অনুপাতে বাড়েনি। বিভিন্ন সেক্টরে এখন পর্যন্ত পুরনো বেতন কাঠামো কার্যকর হয়নি। ফলে সরকারি কর্মচারীরা বেতন বৃদ্ধির শতভাগ সুবিধা ভোগ করলেও বেসরকারি পর্যায়ে কর্মরতরা বিপাকে পড়েছেন। এ অবস্থায় নতুন করে সরকারি কর্মচারীদের বেতন বৃদ্ধির বিষয়টি ভেবে দেখা দরকার।
বেতন বৃদ্ধির অজুহাত হিসেবে মূল্যস্ফীতিকে দেখানো হচ্ছে। কিন্তু মূল্যস্ফীতির কারণ অনুসন্ধান করলে দেখা যাবে, স্বল্পসংখ্যক সরকারি কর্মচারীর বেতন বৃদ্ধির প্রভাবেই বাজারে মূল্যস্ফীতি ঘটেছে। বেড়েছে জীবনযাত্রার ব্যয়। আবার বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে কর্মরত বেশির ভাগ চাকরিজীবীর স্বীকৃত কোনো বেতন কাঠামো না থাকায় তাঁদের রীতিমতো যুদ্ধ করে টিকে থাকতে হচ্ছে। একইভাবে স্বল্প আয়ের সাধারণ মানুষের জীবনেও দুর্ভোগ নেমে এসেছে। জীবনযাত্রার ব্যয় সংকুলান করতে গিয়ে অনেককেই অন্য খরচ থেকে কাটছাঁট করতে হচ্ছে। কাজেই বেতন বৃদ্ধির যেকোনো সুপারিশের আগে সার্বিক বিষয়ে ভেবে সিদ্ধান্ত নেওয়া উচিত। সীমিতসংখ্যক সরকারি কর্মচারীকে সুবিধা দিতে গিয়ে সংখ্যায় অধিক মানুষকে বিপদে ফেলার কোনো কারণ নেই। তা ছাড়া মূল্যস্ফীতি এখন যে পর্যায়ে আছে, তাতে বেতন বৃদ্ধি কতটা যৌক্তিক হবে সে বিষয়টিও বিবেচনায় আনতে হবে। দেশের বেশির ভাগ চাকরিজীবীকে বঞ্চিত করার আগে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ নিশ্চয়ই বিষয়টি ভেবে দেখবে।




© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
কুমিল্লার কাগজ ২০০৪ - ২০১৬
সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আবুল কাশেম হৃদয় (আবুল কাশেম হৃদয়)
নির্বাহী সম্পাদক: হুমায়ূন কবীর জীবন
কার্যালয়: কাজী অহিদুজ্জামান ম্যানশন, তৃতীয় তলা, কান্দিরপাড়,কুমিল্লা-৩৫০০, বাংলাদেশ
ফোন: +৮৮০ ৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২৪৪৩, +৮৮০ ১৭১৮০৮৯৩০২
ই মেইল: hridoycomilla@yahoo.com, newscomillarkagoj@gmail.com,  Developed by i2soft
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ আবুল কাশেম হৃদয়
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ কাজী অহিদুজ্জামান ম্যানশান।
তৃতীয় তলা, কান্দিরপাড়, কুমিল্লা ৩৫০০। বাংলাদেশ। ফোন +৮৮ ০৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২ ৪৪৩
ইমেইল : hridoycomilla@yahoo.com Developed by i2soft
document.write(unescape("%3Cscript src=%27http://s10.histats.com/js15.js%27 type=%27text/javascript%27%3E%3C/script%3E")); try {Histats.start(1,3445398,4,306,118,60,"00010101"); Histats.track_hits();} catch(err){};