ই-পেপার ভিডিও ছবি বিজ্ঞাপন অ্যাপস কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স কুমিল্লার ইতিহাস ও ঐতিহ্য লাইভ টিভি লাইভ রেডিও সকল পত্রিকা যোগাযোগ কুমিল্লার কাগজ পরিবার
Count
96
গরমকালের আগেই লোডশেডিং
Published : Tuesday, 18 April, 2017 at 12:00 AM
গরমকালের আগেই লোডশেডিংগরমের মৌসুম না আসতেই সারাদেশে ভয়াবহ লোডশেডিং দেখা দিয়েছে। জরুরি ভিত্তিতে চাহিদামতো বিদ্যুৎ উৎপাদনে জোর না দিলে সামনে রমজান মাসসহ দীর্ঘ সময় দেশবাসীর বড় ধরনের ভোগান্তিতে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে।
গত গরমের মৌসুমে সারাদেশে বিদ্যুতের চাহিদা ছিল ১০ হাজার ৫০০ মেগাওয়াট। বিপরীতে সর্বোচ্চ উৎপাদন ছিল ৯ হাজার মেগাওয়াট। এবার চাহিদা বেড়ে ১১ হাজার মেগাওয়াটে দাঁড়ালেও সর্বোচ্চ উৎপাদন এখন পর্যন্ত মাত্র ৮ হাজার ৮০০ মেগাওয়াট। বলার অপেক্ষা রাখে না, রমজান মাস সামনে রেখে এখনই সর্বোচ্চ উৎপাদনের ব্যবস্থা করা না হলে বিপর্যয় দেখা দেবে। জানা গেছে, গ্যাসস্বল্পতার কারণে বিভিন্ন উৎপাদন কেন্দ্রে ১২শ’ মেগাওয়াটের মতো বিদ্যুৎ উৎপাদন করা যাচ্ছে না। এমতাবস্থায় সার কারখানায় গ্যাস দেয়া বন্ধ করে সেটা বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্রে সরবরাহের সুপারিশ এসেছে বিদ্যুৎ বিভাগ থেকে। বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে বিবেচনার দাবি রাখে।
বর্তমানে বোরো মৌসুম প্রায় শেষের দিকে। ফলে আপাতত সার কারখানার পরিবর্তে বিদ্যুৎ কেন্দ্রে গ্যাস সরবরাহ বাড়ানোই যৌক্তিক হতে পারে। পাশাপাশি লোডশেডিংয়ের অন্য যেসব কারণ রয়েছে সেগুলোও দূর করার ব্যবস্থা নিতে হবে। যেমন দুর্বল সঞ্চালন ও বিতরণ ব্যবস্থা, জরাজীর্ণ লাইন ও ট্রান্সফরমারে ওভারলোডিংয়ের কারণে অনেক সময় লোডশেডিং হচ্ছে। এজন্য বিদ্যুৎ উৎপাদন বাড়ানোর পাশাপাশি আধুনিক বিতরণ, সঞ্চালন ও সরবরাহ লাইনের ওপর জোর দিতে হবে। বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রীর মতে, দেশে বিদ্যুৎ ঘাটতি নেই, তবে সঞ্চালন ব্যবস্থার দুর্বলতা ও গ্যাস সরবরাহ না থাকায় উৎপাদন ও বিতরণে সমস্যা হচ্ছে। বিদ্যুৎ বিতরণ কোম্পানিগুলোও বলছে, প্রায় তিন লাখ কিলোমিটার সরবরাহ লাইনের মধ্যে ৬০ শতাংশই জরাজীর্ণ। প্রশ্ন হল, যেখানে চাহিদামতো উৎপাদনের সক্ষমতা আমাদের আছে, সেখানে উন্নত বিতরণ ব্যবস্থা কেন করা যাবে না?
বিদ্যুৎ ও গ্যাস খুবই প্রয়োজনীয় জ্বালানি শক্তি। বিদ্যুৎ উৎপাদনের অনেক বিকল্প থাকলেও গ্যাস তো বানানো যায় না। বিষয়টি মাথায় রেখে গ্যাসের পরিবর্তে কয়লা, পানি ও তাপবিদ্যুৎ উৎপাদনে জোর দেয়াই হবে আমাদের মতো ছোট দেশের জন্য বুদ্ধিমানের কাজ। আশার কথা, সরকার বিদ্যুৎ উৎপাদনের ওপর জোর দিয়েছে, এ সংক্রান্ত নীতিমালা করেছে। বর্তমানে প্রতিদিনই বিদ্যুতের চাহিদা বাড়ছে। শিল্পকারখানাসহ প্রতিটি ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে দেয়ার লক্ষ্যও নির্ধারণ করা হয়েছে। তারপরও দেশের বেশির ভাগ এলাকায় ১২ থেকে ১৫ ঘণ্টা লোডশেডিং হচ্ছে। এটা আরও বাড়তে পারে। এ কারণে বিদ্যুৎ উৎপাদন নিয়ে সরকারের দাবি ও বাস্তবতার মধ্যে বিস্তর ফারাকের প্রশ্ন উঠবেই।
একটা বিষয় লক্ষণীয়, বিদ্যুতের ক্ষেত্রে শহর ও গ্রামের মধ্যে এক ধরনের বৈষম্য বিদ্যমান। অথচ দেশের বেশির ভাগ মানুষ কিন্তু গ্রামেই বাস করেন। তারা গড়ে ১৬ থেকে ১৭ ঘণ্টা বিদ্যুৎবঞ্চিত থাকেন। এ বৈষম্য দূর করতে বিশেষ উদ্যোগ নিতে হবে। অন্তত রমজান মাসে যেন লোডশেডিংয়ের কারণে মানুষ বিক্ষুব্ধ হয়ে না ওঠে, তা এখনই নিশ্চিত না করলে সমস্যা তৈরি হতে পারে। সার কারখানার গ্যাস-বিদ্যুৎ কেন্দ্রে সরবরাহ করার বিষয়টি সাময়িক সমাধান বটে। বিদ্যুৎ সমস্যার স্থায়ী সমাধানের জন্য রূপপুর, রামপালসহ বাস্তবায়নাধীন সব প্রকল্প দ্রুত শেষ করা এখন সময়ের দাবি।




© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
কুমিল্লার কাগজ ২০০৪ - ২০১৬
সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আবুল কাশেম হৃদয় (আবুল কাশেম হৃদয়)
নির্বাহী সম্পাদক: হুমায়ূন কবীর জীবন
কার্যালয়: কাজী অহিদুজ্জামান ম্যানশন, তৃতীয় তলা, কান্দিরপাড়,কুমিল্লা-৩৫০০, বাংলাদেশ
ফোন: +৮৮০ ৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২৪৪৩, +৮৮০ ১৭১৮০৮৯৩০২
ই মেইল: hridoycomilla@yahoo.com, newscomillarkagoj@gmail.com,  Developed by i2soft
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ আবুল কাশেম হৃদয়
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ কাজী অহিদুজ্জামান ম্যানশান।
তৃতীয় তলা, কান্দিরপাড়, কুমিল্লা ৩৫০০। বাংলাদেশ। ফোন +৮৮ ০৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২ ৪৪৩
ইমেইল : hridoycomilla@yahoo.com Developed by i2soft
document.write(unescape("%3Cscript src=%27http://s10.histats.com/js15.js%27 type=%27text/javascript%27%3E%3C/script%3E")); try {Histats.start(1,3445398,4,306,118,60,"00010101"); Histats.track_hits();} catch(err){};