ই-পেপার ভিডিও ছবি বিজ্ঞাপন অ্যাপস কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স কুমিল্লার ইতিহাস ও ঐতিহ্য লাইভ টিভি লাইভ রেডিও সকল পত্রিকা যোগাযোগ কুমিল্লার কাগজ পরিবার
কুমিল্লাতেই ভাগ্য নির্ধারণ নয়া ইসির
Published : Tuesday, 14 February, 2017 at 12:52 PM
কুমিল্লাতেই ভাগ্য নির্ধারণ নয়া ইসিরদায়িত্ব নেয়ার ১৫-২০ দিনের মধ্যেই চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হতে হচ্ছে কেএম নুরুল হুদা নেতৃত্বাধীন নতুন নির্বাচন কমিশনকে। আর প্রথম এ চ্যালেঞ্জটি হচ্ছে কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের ভোট আয়োজন। ইসি সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, আগামী এপ্রিলের প্রথম সপ্তাহের দিকে এ নির্বাচনের ভোটগ্রহণের দিনক্ষণ রেখে চলতি মাসের (ফেব্রুয়ারি) শেষ অথবা মার্চের শুরুতে এ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছেন তারা। সম্প্রতি এ নির্বাচন অনুষ্ঠানে আইনি জটিলতা কেটে গেছে। তাই নতুন কমিশন দায়িত্ব নেয়ার পরপরই এ সিটি নির্বাচনের মধ্যে তাদের সম্পৃক্ত হতে হবে।
নির্বাচন বিশ্লেষক ও রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা বলছেন, আসন্ন কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন নতুন নির্বাচন কমিশনের জন্য চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে। কারণ আগামী ১৫ ফেব্রুয়ারি তাদের দায়িত্ব গ্রহণের পর সাম্প্রতিক সময়ের মধ্যে যতগুলো নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে, তার মধ্যে এ সিটির নির্বাচনই বড়। সঙ্গত কারণেই সবার দৃষ্টি থাকবে এ নির্বাচনের দিকে। ক্ষমতাসীন সরকারের চাপ সামলে কতটুকু নিরপেক্ষতার স্বাক্ষর রেখে এই নির্বাচনটি সুষ্ঠু করতে পারেন, সেটার ওপরই আগামী পাঁচ বছর নতুন ইসির ভাগ্য নির্ধারিত হবে বলেও মনে করছেন তারা।
এ বিষয়ে নির্বাচন কমিশন সচিব মোহাম্মদ আবদুল্লাহ বলেন, কুমিল্লা সিটির নির্ধারিত মেয়াদ পূর্ণ হয়েছে ৮ ফেব্রুয়ারি। সীমানা জটিলতা থাকায় বিদায়ী কমিশন এই সিটি নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে যেতে পারেননি। এরই মধ্যে সব জটিলতা শেষ হয়েছে। নতুন কমিশন দায়িত্ব নেয়ার পরই এ সিটিতে ভোট আয়োজনের উদ্যোগ নেবেন। তিনি বলেন, নতুন ইসির অধীনে তফসিল ঘোষিত সংসদীয় আসনের উপনির্বাচনসহ স্থানীয় সরকারের ছোট ছোট কয়েকটি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। তবে বড় নির্বাচনগুলোর মধ্যে কুমিল্লা সিটির নির্বাচন হবে এ কমিশনের অধীনে প্রথম নির্বাচন। চলতি মাসের শেষে অথবা মার্চের শুরুতে এ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে এপ্রিলের প্রথম দিকে নির্বাচনটি সম্পন্ন করা হবে। এ নির্বাচনটির তফসিল ঘোষণাসহ আনুষঙ্গিক প্রয়োজনীয় কাজ সুচারুভাবে যাতে করা যায়, তার জন্য সব ধরনের প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে বলেও জানান তিনি।
নিয়োগ পাওয়ার পর এর আগে নির্বাচনসহ সার্বিক বিষয়ে তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় প্রধান নির্বাচন কমিশনারকে (সিইসি) কেএম নুরুল হুদা বলেছিলেন, কোনো ব্যক্তি, দল বা প্রভাবের কাছে নতুন নির্বাচন কমিশন নত হবে না। আমার কাছে কোনো বিশেষ দল, ব্যক্তি বা গোষ্ঠীর গুরুত্ব নেই। আমার বক্তব্য অত্যন্ত পরিষ্কার, নিরপেক্ষতা, আইনের প্রতি শ্রদ্ধা এবং সংবিধানের ধারাকে সমুন্নত রাখা, এর বাইরে আর কিছু নেই। তিনি বলেন, আমি রিটার্নিং কর্মকর্তা, সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা হিসেবে কাজ করেছি। জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সুপারভাইজার হিসেবে কাজ করেছি। এটা আমার জন্য অভিজ্ঞতার ভাণ্ডার। কাজে কোনো ধরনের গাফিলতি বা শৈথিলতা করা হবে না বরং দক্ষতা ও যোগ্যতা দিয়ে সঠিকভাবে দায়িত্ব পালন করব। সরকারি চাকরিতে থাকার সময় অনিয়মের সঙ্গে কোনো আপস করিনি, ইসির দায়িত্বেও তা করব না।
নির্বাচন কমিশনের কর্মকর্তারা জানান, বিদায়ী কমিশনের তফসিল ঘোষিত বেশ কয়েকটি সংসদীয় আসনের উপনির্বাচন, তিনটিসহ ১৮টি উপজেলা নির্বাচন, রংপুর সিটির একটি ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদের উপনির্বাচন এবং বেশ কয়েকটি পৌরসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে মার্চে। এসব নির্বাচন অনুষ্ঠানে গত কমিশনেরও চ্যালেঞ্জ ছিল না, নতুন কমিশনেরও থাকবে না। কারণ সব উপজেলা কিংবা পৌরসভায় একত্রে নির্বাচন অনুষ্ঠানে যে চ্যালেঞ্জ কিংবা সহিংসতা ও প্রভাব খাটানোর প্রবণতা থাকে, পরবর্তী সময়ে নানা কারণে শূন্য হওয়া উপনির্বাচনগুলোতে কোনো হুমকি-ধমকি থাকে না। কারণ সারা বছরই এ ধরনের নির্বাচন হয়, কিন্তু এসব নির্বাচনের খবর থাকে না।
তারা জানান, মার্চের ৬ তারিখে ৩টি পুরো উপজেলায় এবং ১৫টিতে শূন্য পদে উপনির্বাচন হবে। আর ২২ মার্চ গাইবান্ধা-১ সংসদীয় আসনের উপনির্বাচন। যদিও ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত সংসদ নির্বাচন-পরবর্তী সব উপনির্বাচনও বর্জন করে চলেছে বিএনপির নেতৃত্বাধীন জোট। ফলে এসব নির্বাচনে ক্ষমতাসীন সমর্থিতরাই অনায়াসেই বিজয়ী হচ্ছেন। তবে, স্থানীয় সরকারের সব নির্বাচনে প্রার্থী দিচ্ছে বিএনপিসহ নিবন্ধিত অধিকাংশই রাজনৈতিক দল। সর্বশেষ নারায়ণগঞ্জ নির্বাচনেও সব দলের অংশগ্রহণে প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ নির্বাচন হয়েছে। আসন্ন কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনেও সব দল অংশ নেবে। ফলে নতুন কমিশনের জন্য এই নির্বাচন নিরপেক্ষতা প্রমাণের প্রথম চ্যালেঞ্জ, এটা হলফ করেই বলা যায়।
স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় সংশ্লিষ্টরা জানান, সরকার ২০১১ সালের ১০ জুলাই কুমিল্লা পৌরসভা ও কুমিল্লা সদর পৌরসভা একীভূত করে ২৭টি ওয়ার্ড নিয়ে কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন প্রতিষ্ঠা করে। যার আয়তন ৫৩ দশমিক ৪ বর্গকিলোমিটার। পরবর্তী সময়ে সিটি কর্পোরেশন ও স্থানীয় সরকার প্রকৌশল বিভাগের সহায়তায় এ সিটির আয়তন দেড়শ’ বর্গকিলোমিটার করার প্রস্তাব করা হয়। যা কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের ৩৯তম সভায় গৃহীত হয়। ওই মাস্টারপ্ল্যান অনুযায়ী এ সিটির এলাকা সম্প্রসারণের জন্য ওই মৌজাগুলো অন্তর্ভুক্তির নির্দেশনা চেয়ে কাজী মাহাবুবুর রহমান প্রধান নির্বাচন কমিশনারকে ২নংসহ মোট ৬ জনকে প্রতিপক্ষ করে হাইকোর্ট বিভাগে রিট পিটিশন করলে ওই বিভাগ গত বছরের ৫ অক্টোবর রুল জারি করেন। আদেশে বলা হয়, হাইকোর্ট বিভাগ রিট পিটিশন আদেশের তারিখ থেকে তিন মাসের মধ্যে কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের মাস্টারপ্ল্যান বাস্তবায়নের প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন অনুষ্ঠান করার জন্য মামলার প্রতিপক্ষদের নির্দেশনা প্রদান করেছেন। আদালতের এ নির্দেশনা অনুযায়ী সব জটিলতা কেটে গেছে। এখন নতুন কমিশনের অধীনে দলভিত্তিক দ্বিতীয় সিটি নির্বাচন হিসেবে কুমিল্লা সিটির নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।
উল্লেখ্য, কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় ২০১২ সালের ৫ জানুয়ারি। আর এ সিটিতে প্রথম সভা হয় পরের মাসের ৯ ফেব্রুয়ারি। মেয়াদ উত্তীর্ণের আগের ১৮০ দিন সময়ের মধ্যে অর্থাৎ ২০১৬ সালের ১২ আগস্ট থেকে ২০১৭ সালের ৮ ফেব্রুয়ারির মধ্যে এ সিটিতে নির্বাচন আয়োজন আবশ্যক ছিল। কিন্তু সীমানা জটিলতায় নির্ধারিত সময়ে নির্বাচন করা সম্ভব হয়নি।



সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
কুমিল্লার কাগজ ২০০৪ - ২০১৬
সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আবুল কাশেম হৃদয় (আবুল কাশেম হৃদয়)
নির্বাহী সম্পাদক: হুমায়ূন কবীর জীবন
কার্যালয়: কাজী অহিদুজ্জামান ম্যানশন, তৃতীয় তলা, কান্দিরপাড়,কুমিল্লা-৩৫০০, বাংলাদেশ
ফোন: +৮৮০ ৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২৪৪৩, +৮৮০ ১৭১৮০৮৯৩০২
ই মেইল: [email protected], [email protected],  Developed by i2soft
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ আবুল কাশেম হৃদয়
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ কাজী অহিদুজ্জামান ম্যানশান।
তৃতীয় তলা, কান্দিরপাড়, কুমিল্লা ৩৫০০। বাংলাদেশ। ফোন +৮৮ ০৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২ ৪৪৩
ইমেইল : [email protected] Developed by i2soft
document.write(unescape("%3Cscript src=%27http://s10.histats.com/js15.js%27 type=%27text/javascript%27%3E%3C/script%3E")); try {Histats.start(1,3445398,4,306,118,60,"00010101"); Histats.track_hits();} catch(err){};