ই-পেপার ভিডিও ছবি বিজ্ঞাপন অ্যাপস কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স কুমিল্লার ইতিহাস ও ঐতিহ্য লাইভ টিভি লাইভ রেডিও সকল পত্রিকা যোগাযোগ কুমিল্লার কাগজ পরিবার
উল্টো হাওয়ায় ডুবল তরী
Published : Saturday, 7 January, 2017 at 9:51 PM


উল্টো হাওয়ায় ডুবল তরীকুমিল্লার কাগজ ডেস্ক।।
অসম্ভব কাতর-করুণ একটা দৃষ্টি। হতাশা, অসহায়তা, ক্লান্তি, অনুশোচনা_ সব মিলেমিশে গেলে যেমনটা হয় আর কি। শেষ বিকেলে তেমনই এক মাশরাফি বিন মুর্তজাকে পাওয়া গেল বে ওভালের ড্রেসিংরুমের পাশে। মাঠের যে দিকটা একটু খোলা, সেদিকাটা দেখিয়ে বলতে থাকলেন বাতাসের দিকটাই ধরতে পারেনি আমাদের বোলাররা! পাল তোলা জাহাজের ব্যর্থ এক নাবিক মনে হচ্ছিল তখন বাংলাদেশ অধিনায়ককে। 'মাঠের এই দিক থেকে জোর হাওয়া দিচ্ছিল। ওদের ব্যাটসম্যানরা ঠিক সেটাই কাজে লাগাতে পেরেছেন। মুনরো তার বেশিরভাগ বাউন্ডারিই হাঁকিয়েছেন বাতাসের গতির দিকে। আর আমরা বেশিরভাগ ক্যাচ দিয়েছি মাঠের ওই দিকে, বাতাসের গতির উল্টো দিকে ...।' ব্যাট-বলের দর্শনীয় খেলা ছাড়াও ক্রিকেট যে সূক্ষ্ম কৌশলের খেলা, মাশরাফি যেন সেটাই বোঝাতে চাইলেন।

মোসাদ্দেক হোসেন সৌকত, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ, নুরুল হাসান সোহান_ প্রত্যেকেই বাতাসের উল্টো দিকে শট খেলতে গিয়ে ক্যাচ দিয়েছেন। আর মুনরো মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের যে ওভারটিতে ২৮ রান নিয়েছেন, সেটি ওই হাওয়ার গতির দিকেই। কিন্তু সেই গতির দিকে বল হাঁকাতে গিয়ে তাকে সুইচ হিটের মতো ঝুঁকিপূর্ণ শট খেলতে হয়েছে। মাশরাফি সেটাই ব্যাখ্যা করলেন। 'আমাদের সাবি্বর আর সৌম্যও কিন্তু বাতাসের ওই গতি বুঝেই ব্যাটিং করেছে। তারা বেশিরভাগই বাউন্ডারি হাঁকিয়েছে ওই দিক দিয়ে। ওরা যদি আর কিছুক্ষণ ব্যাটিং করতে পারত, তাহলে হয়তো অন্যরকম হতে পারত।' ১৬ বছরের ওপর ক্রিকেট খেলছেন মাশরাফি। নিজের অভিজ্ঞতা থেকেই দেখেছেন সাগরপাড়ে এমন ধরনের মাঠে একসময় বাতাসের গতি একটি ফ্যাক্টর হয়ে দাঁড়ায়। দুুপুরে মাশরাফি নিজে চ্যালেঞ্জ নিয়ে বাতাসের উল্টো দিকে বোলিং করেছিলেন। পেসারদের বাঁচিয়ে রেখে সাকিবকে দিয়েছিলেন ওই দিক থেকে। কিন্তু তাতেও আটকাতে পারা যায়নি ১২ ও ১৩তম ওভারের ৪৩ রান। 'আমরা বোলাররা যদি বাতাসের ওই গতি কাজে লাগাতে পারতাম, আরও একটু শৃঙ্খলবদ্ধ হয়ে বোলিং করতে পারতাম, বেশি বেশি ইয়র্কার দিতে পারতাম, তাহলে হয়তো ওভারপ্রতি টার্গেট দশের নিচে থাকত।'

বাতাসের গতির কাজে লাগিয়ে মুস্তাফিজই পারতেন কিছু করতে। কিন্তু এ দিন তিনিও নিষ্প্রাণ ছিলেন। রুবেলও শুরুর দিকে হাফভলি বলগুলো দিয়ে কিউই ব্যাটসম্যানদের রান করার সুযোগ করে দিয়েছেন। ভালো হয়নি মোসাদ্দেক কিংবা সাকিবের বোলিংও।

ফিল্ডিংও ছিল ভুলে ভরা। সীমানায় দাঁড়ানো ফিল্ডারদের চরম অমনোযোগী মনে হয়েছে। বিশ্রী লেগেছে ফিল্ডারের ছোড়া বল সাকিব হাতে তুলে না ধরে পা উঁচিয়ে ছেড়ে দেওয়াটাও। কেন এমন হচ্ছে? জিজ্ঞাসা ছিল দলের একমাত্র মুখপাত্রের কাছেই। 'আসলে এই ধরনের বড় মাঠের সঙ্গে এখনও আমাদের ফিল্ডাররা মানিয়ে উঠতে পারেনি। বড় মাঠের গ্যাপগুলো বুঝতে পারেনি তারা। সে কারণেই বারবার ভুল হচ্ছে। তাছাড়া ওরা দারুণ ফিল্ডিং করেছে। যেখানে আমরা ২ রান নিতে পারতাম, সেখানে ১ কেটে নিয়েছে।'

বোলিং-ফিল্ডিংয়ের পর ব্যাটিং ব্যর্থতার কথা বলতে গিয়েও মাশরাফি আবারও সেই বাতাসের প্রসঙ্গে এসে পড়েন। 'এই মাঠে হামেশাই ১৮০ রান চেজ হয়। আমরাও ১৯৬ রান তাড়া করার জন্যই নেমেছিলাম। আর সে কারণেই ৩ উইকেট পড়ে যাওয়ার পরও আমাদের রানরেট ভালো ছিল। কিন্তু শেষ দিকে বাতাসের ওই গতি কাজে লাগাতে পারেনি আমাদের ব্যাটসম্যানরা। উল্টো দিকে বাউন্ডারি হাঁকাতে গিয়ে ক্যাচ দিয়ে বসেছে।' হাতে ৬ উইকেট নিয়ে ৫৪ বলে ৮৪ রান এখানকার টি২০ ক্রিকেটে তেমন কঠিন নয়, সেটা মনে করিয়ে দিয়েই মাশরাফির আক্ষেপ। 'এই ধরনের পিচে প্রচুর রান আসে। তবে ছোট ব্যাপারগুলোর সঠিক ব্যবহার করতে হয়। ওরা যে বাতাসের গতির দিকে বাউন্ডারি মারবে বলে ঠিক করেছিল, সেটা পরিষ্কার বোঝা গেছে। কিন্তু আমরা সেটা মাথায় না রেখে উল্টো দিকে বাউন্ডারি মারতে গেছি।' যেন হাওয়ার সঙ্গে আড়ি দিয়ে ফেললেন মাশরাফি!




সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
কুমিল্লার কাগজ ২০০৪ - ২০১৬
সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আবুল কাশেম হৃদয় (আবুল কাশেম হৃদয়)
নির্বাহী সম্পাদক: হুমায়ূন কবীর জীবন
কার্যালয়: কাজী অহিদুজ্জামান ম্যানশন, তৃতীয় তলা, কান্দিরপাড়,কুমিল্লা-৩৫০০, বাংলাদেশ
ফোন: +৮৮০ ৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২৪৪৩, +৮৮০ ১৭১৮০৮৯৩০২
ই মেইল: [email protected], [email protected],  Developed by i2soft
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ আবুল কাশেম হৃদয়
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ কাজী অহিদুজ্জামান ম্যানশান।
তৃতীয় তলা, কান্দিরপাড়, কুমিল্লা ৩৫০০। বাংলাদেশ। ফোন +৮৮ ০৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২ ৪৪৩
ইমেইল : [email protected] Developed by i2soft
document.write(unescape("%3Cscript src=%27http://s10.histats.com/js15.js%27 type=%27text/javascript%27%3E%3C/script%3E")); try {Histats.start(1,3445398,4,306,118,60,"00010101"); Histats.track_hits();} catch(err){};