ই-পেপার ভিডিও ছবি বিজ্ঞাপন অ্যাপস কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স কুমিল্লার ইতিহাস ও ঐতিহ্য লাইভ টিভি লাইভ রেডিও সকল পত্রিকা যোগাযোগ কুমিল্লার কাগজ পরিবার
‘ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারকে মিনি বিপিও সেন্টারে পরিণত করা হবে’
Published : Saturday, 7 January, 2017 at 2:11 AM
‘ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারকে মিনি বিপিও সেন্টারে পরিণত করা হবে’ নিজস্ব প্রতিবেদক। প্রতিটি ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারকে (ইউডিসি) মিনি বিজনেস প্রসেস সেন্টারে (বিপিও) পরিণত করার পরিকল্পনা রয়েছে সরকারের। এজন্য ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারের উদ্যোক্তাদের আউটসোর্সিং ও ই-কমার্সের প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে। যাতে উদ্যোক্তারা ইউডিসিতে একাধিক ব্যক্তিকে সঙ্গে নিয়ে আউটসোর্সিংয়ের কাজ এবং ই-কমার্সে পণ্য ক্রয় বিক্রয় করতে পারে।
গতকাল কুমিল্লায় জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের তৃণমূলের তথ্যজানালা কর্মসূচি ও তথ্যসেবা বার্তা সংস্থা (টিএসবি) আয়োজিত ইউডিসি-উদ্যোক্তা প্রশিক্ষণ কর্মশালায় বক্তারা এসব কথা বলেন।
অনুষ্ঠানে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের অতিরিক্ত সচিব সুশান্ত কুমার সাহা বলেন, সরকার ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণের অংশ হিসেবে সারাদেশে ৪,৫৫০টি ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার (ইউডিসি) প্রতিষ্ঠা করে। এর মূল লক্ষ্য গ্রামের মানুষের কাছে তথ্য ও সেবা সহজলভ্য করা। এসব ইউডিসির প্রায় ১০ হাজার উদ্যোক্তা ইন্টারনেট ও প্রযুক্তির ব্যবহার করে তৃণমূল পর্যায়ের মানুষের কাছে নিয়মিত তথ্য ও সেবা পৌছে দিচ্ছে।
তিনি বলেন, উচ্চ গতির ইন্টারনেট কানেক্টিভিটি নিশ্চিত করার জন্য সম্প্রতি জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি ইনফো সকোর-৩ প্রকল্পের অনুমোদন দিয়েছে। এ প্রকল্প বাস্তবায়িত হলে ইউনিয়নগুলোতে ব্রডব্যান্ড সংযোগ সম্প্রসারিত হবে। ইউডিসিতে বসে উদ্যোক্তারা আউটসোর্সিং ও ই-কমার্সের ব্যবসা পরিচালনা করতে পারবে।
সুশান্ত বলেন, ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারে উচ্চ গতির ইন্টারনেট কানেক্টিভিটি নিশ্চিত করে সরকার প্রতিটি সেন্টারকে বিপিও সেন্টার হিসেবে গড়ে তুলতে চায়। ইনফো সরকার-৩ প্রকল্প এস্টাবলিশিং ডিজিটাল কানেক্টিভিটি প্রকল্পের আওতায় প্রতিটি ইউনিয়নকে উচ্চগতির ইন্টারনেট কানেক্টিভিটির আওতায় নিয়ে আসা হবে।
কমিউনিকেশন স্পেশালিস্ট ও সিনিয়র সাংবাদিক অজিত কুমার সরকার বলেন, সরকারের উন্নয়ন কার্যক্রম গ্রাম পর্যন্ত বিস্তৃত। তৃণমূলে ছড়িয়ে আছে নানা সাফল্য গাথা। এসব উন্নয়ন ও সাফল্যের কথা ফিচার ও প্রতিবেদন আকারে লিখে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমের মাধ্যমে মানুষকে জানাতে পারে ইউডিসি উদ্যোক্তারা।
তিনি বলেন, ফিচার ও প্রতিবেদন লেখার দক্ষতা বৃদ্ধি পেলে ইউডিসি উদ্যোক্তারা মানুষের কাছে বিভিন্ন তথ্য যেমন বস্তুনিষ্ঠভাবে তুলে ধরতে পারবে তেমনি আউটসোর্সিংয়ের কাজে আর্টিকেল রাইটিং এবং ই-কমার্স পরিচালনায় পণ্যের বিপণনের জন্য এ দক্ষতাকে কাজে লাগাতে পারবে।
জেলা প্রশাসক মো. জাহাঙ্গীর আলমের সভাপতিত্বে কর্মশালায় আরও বক্তব্য দেন তথ্যসেবা বার্তা সংস্থার (টিএসবি) নির্বাহী সম্পাদক ড. অলিউর রহমান ও সহকারি সম্পাদক প্রতীক মাহমুদ।
কুমিল্লা জেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারের উদ্যোক্তারা প্রতিবেদন ও ফিচার লেখার পাশাপাশি আউটসোর্সিং ও ই-কমার্সেরর ওপর তিন দিনের এ প্রশিক্ষণ কর্মশালায় অংশ নিচ্ছেন। তিন বছর মেয়াদি তৃণমূলের তথ্যজানালা কর্মসূচির আওতায় সারাদেশের ১০ হাজার ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারের উদ্যোক্তাকে প্রশিক্ষণের মাধ্যমে ইনফোলিডার হিসেবে গড়ে তুলছে। এ কর্মসূচি বাস্তবায়নে সহযোগিতা করছে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের একসেস টু ইনফরমেশন (এটুআই) প্রোগ্রাম এবং এতে বাস্তবায়ন সহযোগী হিসেবে রয়েছে টিএসবি।




সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
কুমিল্লার কাগজ ২০০৪ - ২০১৬
সম্পাদক ও প্রকাশক : মোহাম্মদ আবুল কাশেম হৃদয় (আবুল কাশেম হৃদয়)
নির্বাহী সম্পাদক: হুমায়ূন কবীর জীবন
কার্যালয়: কাজী অহিদুজ্জামান ম্যানশন, তৃতীয় তলা, কান্দিরপাড়,কুমিল্লা-৩৫০০, বাংলাদেশ
ফোন: +৮৮০ ৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২৪৪৩, +৮৮০ ১৭১৮০৮৯৩০২
ই মেইল: hridoycomilla@yahoo.com, newscomillarkagoj@gmail.com,  Developed by i2soft
সম্পাদক ও প্রকাশকঃ আবুল কাশেম হৃদয়
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয়ঃ কাজী অহিদুজ্জামান ম্যানশান।
তৃতীয় তলা, কান্দিরপাড়, কুমিল্লা ৩৫০০। বাংলাদেশ। ফোন +৮৮ ০৮১ ৬৭১১৯, +৮৮০ ১৭১১ ১৫২ ৪৪৩
ইমেইল : hridoycomilla@yahoo.com Developed by i2soft
document.write(unescape("%3Cscript src=%27http://s10.histats.com/js15.js%27 type=%27text/javascript%27%3E%3C/script%3E")); try {Histats.start(1,3445398,4,306,118,60,"00010101"); Histats.track_hits();} catch(err){};